বাড়ি তৈরির অনুদানের কাটমানি ফেরতের দাবিতে পঞ্চায়েত সদস্যকে আটকে হেনস্থার অভিযোগ উঠল গ্রামবাসীদের একাংশের বিরুদ্ধে। শনিবার ঘটনাটি ঘটে সাঁইথিয়ার দেড়িয়াপুর পঞ্চায়েতের তিলপুকুর গ্রামে।

পঞ্চায়েত ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই পঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্য হীরু বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বাড়ি তৈরির অনুদান পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। কিন্তু কাটমানি দিলেও অনেকে বাড়ি তৈরির টাকা পাননি বলে অভিযোগ। কিছুদিন ধরে কাটমানি ফেরতের দাবি জানাচ্ছিলেন গ্রামবাসীরা। অভিযোগ, ফেরতের আশ্বাস দিলেও ওই পঞ্চায়েত সদস্য টাকা ফেরত দেননি।

স্থানীয় সূত্রে খবর, এ দিন গ্রামে ওই সদস্যকে পেয়ে টাকা ফেরতের দাবিতে তাঁকে বটতলায় আটকে রাখেন গ্রামবাসীদের একাংশ। অভিযোগ, তাঁর জামার কলার ধরে টানাটানি করা হয়। খবর পেয়ে ওই পঞ্চায়েত সদস্যের অনুগামীরা তাঁকে মোটরবাইকে বসিয়ে উদ্ধার করার চেষ্টা করেন। গ্রামবাসীরা মোটরবাইক আটকে দেন। সেটি থেকে পড়ে যান হীরুবাবু৷ দু’পক্ষের হাতাহাতির সুযোগে এক জন হীরুবাবুকে মোটরবাইকে চাপিয়ে ওই গ্রাম থেকে চলে যান।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, বাড়ি তৈরির অনুদান পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে হীরুবাবু গ্রামের শ’খানেক লোকের কাছ থেকে ২-৫ হাজার টাকা করে কাটমানি নিয়েছেন। কিন্তু তাঁদের বেশিরভাগ বাড়ি তৈরির অনুদান পাননি। ফেরত পাননি কাটমানির টাকাও।

হীরুবাবু অবশ্য দাবি করেছেন, ‘‘কাটমানি নয়, ব্যক্তিগত প্রয়োজনে কয়েক জনের কাছ থেকে টাকা ধার নিয়েছিলাম। সময় মতো ফেরত দিয়ে দেব।’’ তৃণমূলের সাঁইথিয়া ব্লক সভাপতি সাবের আলি খান বলেন, ‘‘বিষয়টি জানা নেই। খোঁজ না নিয়ে কিছু বলতে পারব না।’’