Advertisement
২৯ নভেম্বর ২০২২
Entertainment News

ঐশ্বর্যা রাইয়ের আত্মহত্যার চেষ্টার ভুয়ো খবরে উত্তাল সোশ্যাল মিডিয়া

কড়া ডোজের ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন ঐশ্বর্যা। পারিবারিক সমস্যার জেরেই তিনি নাকি সম্প্রতি নিজের জীবন শেষ করতে চেয়েছিলেন। এমনটাই দাবি করেছে ‘আউটলুক পাকিস্তান’ নামের একটি ওয়েবসাইট।

‘জজবা’ ছবির একটি দৃশ্যে ঐশ্বর্যা রাই বচ্চন।— ফাইল চিত্র।

‘জজবা’ ছবির একটি দৃশ্যে ঐশ্বর্যা রাই বচ্চন।— ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
শেষ আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০১৬ ১৩:৫২
Share: Save:

কড়া ডোজের ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন ঐশ্বর্যা রাই। পারিবারিক সমস্যার জেরেই তিনি নাকি সম্প্রতি নিজের জীবন শেষ করতে চেয়েছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়তেই মুহূর্তে তা ভাইরাল হয়ে যায়। গত কয়েক দিন ধরেই খবরটা সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ভাবে ঘুরছে। কিন্তু, রবিবার রাতে ফ্যাশন ডিজাইনার মণীশ মলহোত্রের জন্মদিনের পার্টিতে অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে ঐশ্বর্যাকে দেখা যায়। সেখানে বেশ হাসিখুশি ছিলেন তিনি। অতিথিদের সঙ্গে ছবি তোলার জন্য হাসি মুখে পোজ দিতেও দেখা যায় বচ্চন-বধূকে।

Advertisement

‘লজ্জা বলে তো কিছুই নেই’, ঐশ্বর্যাকেই কি বিঁধলেন জয়া?

গত ২ ডিসেম্বর ‘আউটলুক পাকিস্তান’ নামের একটি ওয়েবসাইটে ঐশ্বর্যাকে নিয়ে ওই ভুয়ো খবর প্রকাশিত হয়। নির্দিষ্ট কোনও সূত্রের নাম না করে সেখানে সংবাদমাধ্যম থেকে পাওয়া খবর হিসেবে ঐশ্বর্যার আত্মহত্যার চেষ্টার সংবাদটি করা হয়। সেখানে লেখা হয়, পারিবারিক সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে বেশ কড়া ডোজের ঘুমের ওষুধ খান ঐশ্বর্যা। তাঁকে অচৈতন্য অবস্থায় দেখে পরিবারের লোকজন তড়িঘড়ি চিকিত্সক ডেকে আনেন। শেষে পাকস্থলী পরিষ্কার করে তাঁকে বাঁচিয়ে তোলেন চিকিত্সকেরা। কিন্তু, এই খবরের সত্যতা অন্য কোথাও স্বীকার করা হয়নি। বচ্চন পরিবারের ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানানো হয়েছে, এ খবর সম্পূর্ণ মিথ্যা। এমন কোনও ঘটনাই ঘটেনি। পাশাপাশি, মণীশের জন্মদিনে রবিবার ঐশ্বর্যাকে ভীষণ ভাল মেজাজে দেখা গিয়েছে। ওই অনুষ্ঠানে হাজির এক জন জানিয়েছেন, তিনি রবিবার প্রায় মাঝ রাত পর্যন্ত অভিষেক-ঐশ্বর্যার সঙ্গে ছিলেন। ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’-এ নায়িকার ভূমিকার ভূয়সী প্রসংশাও করেন পার্টিতে হাজির অনেকে। তাতে অভিষেককে বেশ খুশি দেখাচ্ছিল বলে জানিয়েছেন ওই ব্যক্তি।। তাঁর কথায়, ‘‘ছবি তোলার জন্য পোজও দিচ্ছিলেন নায়িকা।’’

জয়া-ঐশ্বর্যা কলহে ড্যামেজ কন্ট্রোলে অভিষেক?

Advertisement

ঐশ্বর্যার আত্মহত্যার চেষ্টার ঘটনায় বচ্চন পরিবারের দিকে আঙুলও তোলা হয় ওই লেখায়। বলা হয়, ঐশ্বর্যাকে নিয়ে আগে থেকেই পরিবারে সমস্যা ছিল। ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’-এ রণবীর কপূরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের জেরে সেই পারিবারিক অশান্তি চরমে পৌঁছয়। শাশুড়ি জয়া বচ্চনও নাম না করেই প্রকাশ্যে কটাক্ষ করেন ঐশ্বর্যাকে। এর পরে সেখানে লেখা হয়, তাঁর বৈবাহিক জীবন যে সঙ্কটময় এটা কোনও ভাবেই আর গোপন ছিল না। এর আগেও পুত্রবধূকে নিয়ে বচ্চন পরিবারের এমন অনেক গণ্ডগোলের খবর প্রকাশ্যে এসেছে বলে ওই ওয়েবসাইটের দাবি।

মণীশ মালহোত্রার পার্টিতে ঐশ্বর্যা এবং শ্রীদেবী। — নিজস্ব চিত্র।

বচ্চন পরিবারের বিরুদ্ধে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার অভিযোগও তোলা হয়। এবং সেই কারণেই নাকি তাঁকে হাসপাতালে না নিয়ে গিয়ে বাড়িতেই চিকিত্সক ডাকা হয়। এমনকী, চিকিত্সকের মুখ বন্ধ রাখার চেষ্টাও করা হয় বলে ওই ওয়েবসাইটের দাবি। তারা এও লিখেছে, এক জন চিকিত্সক নাম প্রকাশ না করার শর্তে খবরটি ফাঁস করেন। সেই চিকিত্সককে উদ্ধৃত করে সেখানে লেখা হয়েছে, জ্ঞান ফেরার পর ঐশ্বর্যা নাকি তাঁকে বলেছেন, ‘আমাকে মরতে দিন, এমন কষ্টকর ভাবে বাঁচার থেকে মরে যাওয়া ভাল।’

সব মিলিয়ে ভুয়ো এই খবর নিয়ে বেশ থমথমে বলিউড। কেউই কোনও মন্তব্য করতে নারাজ।

অভিষেক-ঐশ্বর্যার দাম্পত্যে যেন রিল লাইফের ‘অভিমান’
এই সেলেবদের মৃত্যুর ভুয়ো খবর ছড়িয়েছিল মিডিয়ায়

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.