Advertisement
২৬ জুন ২০২৪
Entertainment News

অরিন্দমের ছবি থেকে হঠাত্ই সরে দাঁড়াল বাংলাদেশের প্রযোজনা সংস্থা

গোয়েন্দা গল্প শবর বা ব্যোমকেশ সিরিজ হিট। অন্যধারার গল্প ‘দুর্গা সহায়’-এর শুটিং শেষ। সে ছবি মুক্তির অপেক্ষায়। তাই রিপোর্ট কার্ড এখনও হাতে আসেনি। সেই আবহেই আরও একটা নতুন স্টেপ ফেললেন পরিচালক অরিন্দম শীল। ঘোষণা করলেন ভারত-বাংলাদেশ যৌথ প্রযোজনায় তাঁর নতুন ছবি ‘অনুপ্রবেশ’-এর।

স্বরলিপি ভট্টাচার্য
শেষ আপডেট: ১৬ মার্চ ২০১৭ ১৯:৫৭
Share: Save:

গোয়েন্দা গল্প শবর বা ব্যোমকেশ সিরিজ হিট। অন্যধারার গল্প ‘দুর্গা সহায়’-এর শুটিং শেষ। সে ছবি মুক্তির অপেক্ষায়। তাই রিপোর্ট কার্ড এখনও হাতে আসেনি। সেই আবহেই আরও একটা নতুন স্টেপ ফেললেন পরিচালক অরিন্দম শীল। ঘোষণা করলেন ভারত-বাংলাদেশ যৌথ প্রযোজনায় তাঁর নতুন ছবি ‘অনুপ্রবেশ’-এর।

আরও পড়ুন, কালিকাদা আর আমার মধ্যে রয়ে গেল ‘বিসর্জন’

এতটা পর্যন্ত কাহিনি বেশ সরল। বাঁক নিল ঠিক এর পরেই। বাংলাদেশের প্রযোজনা সংস্থা ‘বেঙ্গল গ্রুপ’-এর এই ছবিটি প্রযোজনা করার কথা ছিল। কিন্তু রাতারাতি গোটা প্রজেক্ট থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন তাঁরা। না! তাতে বিন্দুমাত্র দমে যাওয়ার পাত্র নন অরিন্দম। বরং বেশ জোর দিয়েই বললেন, ‘‘আমার ছবির জন্য প্রযোজকের অভাব হবে না। যেমন বলেছিলাম তেমনই ঠিক সময়ে শুটিং শুরু করব।’’ তার পর নিজেই জানালেন, খুব কম সময়ের মধ্যে প্রযোজকও পেয়ে গিয়েছেন তিনি। তবে নামটা এখনই প্রকাশ্যে আনতে চান না। ভারত থেকে ছবিটি প্রযোজনা করবে ‘বেঙ্গল সম্ভার’।

আরও পড়ুন, প্রসেনজিত্‌‌কে নিয়ে টুইট করলেন আমির খান

কিন্তু কেন হঠাত্ ‘অনুপ্রবেশ’-এর প্রযোজনা থেকে সরে গেল ‘বেঙ্গল গ্রুপ’? ওই সংস্থার প্রধান আবুল খের লিটুর সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয়। তিনি ফোন ধরেননি। মেসেজেরও কোনও উত্তর দেননি। এর আসল উত্তর কি পরিচালক জানেন? প্রশ্নের উত্তরে স্ট্রেট ব্যাট চালালেন অরিন্দম। তাঁর কথায়, ‘‘যদিও এর উত্তর সবচেয়ে ভাল উনিই দিতে পারবেন। তবে লিটু ভাইয়ের সঙ্গে আমার ফোনে কথা হয়েছে। বর্ডার, সেনসিটিভ ইস্যু— ছবিতে এ সব থাকলে তাঁর প্রযোজনা করতে সমস্যা বলে জানালেন। কিন্তু তা হলে গৌতম ঘোষের ছবি কী ভাবে হয়? শঙ্খচিল কী ভাবে হল? ওখানেও তো এ সব ইস্যু এসেছে। আরে সিনেমাকে তো সত্ভাবে বাঁচতে দিতে হবে।’’

প্রধান চরিত্রে আবিরকে কাস্ট করার কথা ভেবেছেন পরিচালক।

সমরেশ মজুমদারের ‘অনুপ্রবেশ’ গল্প নিয়েই চিত্রনাট্য ভেবেছেন অরিন্দম। প্রধান চরিত্রে রয়েছেন আবির। এ ছাড়াও রুদ্রনীল, কাঞ্চন, ঋতাভরী, পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখা যাবে বিভিন্ন চরিত্রে। বাংলাদেশ থেকে পরিমণি, নুসরত ইমরোজ তিশা, কুসুম শিকদার, ওপি করিমের সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ভারত-বাংলাদেশ মিলিয়ে হবে শুটিং। ক্যামেরার দায়িত্বে সৌমিক হালদার। গানঘর সামলাবেন বিক্রম ঘোষ। এ বছরের মাঝামাঝিই শুরু হবে শুটিং। প্রযোজকের পিছিয়ে যাওয়া অরিন্দমের মিশন যে কোথাও নষ্ট করতে পারেনি তা দৃশ্যতই স্পষ্ট।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE