Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বিনোদন

‘ধুম’, ‘হাঙ্গামা’র সেই রিমি সেন এখন কী করছেন জানেন?

নিজস্ব প্রতিবেদন
৩০ জুন ২০১৯ ০৯:৩০
প্রিয়দর্শনের ‘হাঙ্গামা’ ছবিতে আত্মপ্রকাশ রিমি সেনের। সেটা ছিল ২০০৩ সাল। এর মাঝে ১৬টা বছর কেটে গিয়েছে। ফিল্ম তো দূরের কথা, বর্তমানে কোনও অনুষ্ঠানেও রিমিকে তেমন একটা দেখা যায় না। রিমি এখন কী করছেন? কেমন দেখতে হয়েছে জানেন?

রিমি সেনের আসল নাম শুভমিত্রা সেন। ১৯৮১ সালে কলকাতায় জন্ম। বিদ্যা ভারতী স্কুল থেকে পাশ করে কমার্স নিয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক হন।
Advertisement
রিমি মায়ের সঙ্গে কলকাতার নিউ আলিপুরে থাকতেন। ছোট থেকেই তাঁর অভিনেতা হওয়ার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু বাড়িতে ঠাকুরদা ছাড়া আর কেউই তাঁর ইচ্ছাকে বিশেষ গুরুত্ব দিতেন না বলে জানিয়েছিলেন নায়িকাই।

মুম্বই এসে প্রথমে বেশ কিছু বিজ্ঞাপনে সুযোগ পান রিমি। আমির খানের সঙ্গে ঠান্ডা পানীয়ের একটি বিজ্ঞাপনের পরই নজরে আসেন রিমি।
Advertisement
তাঁর প্রথম ফিল্ম তেলুগুতে। নাম ‘নী থডু কাভালি’। এর পর ২০০৩ সালে বলিউডে তাঁর ডেবিউ ফিল্ম ছিল ‘হাঙ্গামা’। এই কমেডি ছবি বক্স অফিসে ভাল ফল করে।

এরপর ২০০৪ সালে বিগ বাজেট ছবি ‘ধুম’, ২০০৫ সালে ‘কিউ কি’ ও ‘গরম মশালা’, ২০০৬ সালে ‘গোলমাল’। এই পর্যন্ত ফিল্ম কেরিয়ার বেশ ভালই চলছিল রিমির। কিন্তু তারপর ‘জনি গদ্দার’, ‘দে থালি’, ‘সঙ্কট সিটি’, ‘হর্ন ওকে প্লিজ’— দর্শকরা একেবারেই পছন্দ করেননি। পরপর ফ্লপ ছবির ফলে তাঁর কেরিয়ার গ্রাফও নামতে শুরু করে।

এর পর আর কোনও ফিল্মেই সুযোগ পাননি রিমি। ২০১৫ সালে ‘থ্যাঙ্ক ইউ’ ছিল তাঁর কাম ব্যাক ফিল্ম। কিন্তু সেটাও বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে।

নতুন করে দর্শকদের মন পেতে বিগ বস ৯ সিজনে ডাক পেয়েছিলেন রিমি। কিন্তু সেখানেও খুব একটা জমাতে পারেননি। তাই খুব বেশি সময় বিগ বস হাউসে টেকেননি। আট সপ্তাহের মতো সেখানে ছিলেন। ২০১৫ সালের ওই বিগ বস ৯ সিজনের পর তাঁকে আর টিভির পর্দায়ও দেখা যায়নি।

তখন এটাও শোনা গিয়েছিল, এ বার নাকি প্রযোজনায় আসতে চান তিনি। আর সে কারণেই দর্শকদের সঙ্গে সরাসরি সংযোগ স্থাপনের জন্যই তাঁর বিগ বস যাত্রা। এর ঠিক দু’বছর পর, ২০১৭ সালে জানা যায়, রিমি নতুন কেরিয়ার শুরু হতে চলেছেন।

২০১৭ সালে বিজেপির শীর্ষনেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের উপস্থিতিতে দিল্লিতে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগ দেন রিমি। সংবাদমাধ্যমকে তখন রিমি সেন বলেছিলেন, ‘‘শুধু আমি নয়, সমস্ত ভারত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাজে অনুপ্রাণিত। পার্টির যেখানেই প্রয়োজন হবে, আমি যাব। সরকার আমাদের একটি দায়িত্ব দিয়েছে, আমরা সেটা পূর্ণ করব।’’

তখন কানাঘুঁষো শোনা গিয়েছিল, বাঙালি হওয়ায় তাঁকে হয়তো পশ্চিমবঙ্গ থেকে লোকসভা ভোটে লড়ার টিকিট দেবে বিজেপি। যদিও তা হয়নি। বিজেপির দলীয় পতাকা হাতে তুলে নিলেও সক্রিয় রাজনীতির ব্যাটন এখনও সে ভাবে ধরেননি তিনি।

ফিল্ম বা রাজনীতি কোনওটাই সে ভাবে ক্লিক করেনি রিমির কেরিয়ারে। তবে ইনস্টাগ্রামে বেশ সক্রিয় তিনি। নিজের ছবি, ভিডিয়ো সবই পোস্ট করেন নিয়মিত।

Tags: রিমি সেন