Advertisement
২০ জুলাই ২০২৪

‘পদ্মাবত’ নিয়ে ফের মামলা সুপ্রিম কোর্টে

আজই চারটি রাজ্যের বিরুদ্ধে শীর্ষ আদালতে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করেছেন তেহসিন পুনাওয়ালা নামে এক কংগ্রেস কর্মী। তাঁর দাবি, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ সত্ত্বেও রাজস্থান, হরিয়ানা, গুজরাত আর মধ্যপ্রদেশ সরকার ছবির মুক্তি ঘিরে বিক্ষোভ দমন করতে ব্যর্থ হয়েছে। যার অর্থ আদালতের নির্দেশ অমান্য করা।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৬ জানুয়ারি ২০১৮ ০৩:০১
Share: Save:

ছবির মুক্তির পরেও ‘পদ্মাবত’ ঘিরে আইনি জটিলতা অব্যাহত। কয়েকটি রাজ্য বাদে দেশের বাকি অংশে আজই মুক্তি পেয়েছে সঞ্জয় লীলা ভন্সালীর বিতর্কিত এই ছবিটি। আর আজই চারটি রাজ্যের বিরুদ্ধে শীর্ষ আদালতে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করেছেন তেহসিন পুনাওয়ালা নামে এক কংগ্রেস কর্মী। তাঁর দাবি, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ সত্ত্বেও রাজস্থান, হরিয়ানা, গুজরাত আর মধ্যপ্রদেশ সরকার ছবির মুক্তি ঘিরে বিক্ষোভ দমন করতে ব্যর্থ হয়েছে। যার অর্থ আদালতের নির্দেশ অমান্য করা।

শীর্ষ আদালতে আর একটি মামলা করেছেন বিনীত ধান্দা নামে এক আইনজীবী। তিনি গোটা দেশে ওই ছবি ঘিরে হাঙ্গামা বাধানোর মূল কারিগর শ্রী রাষ্ট্রীয় রাজপুত করণী সেনার বিরুদ্ধে হিংসা ছড়ানোর অভিযোগ এনেছেন। দু’টি মামলাই আগামী সোমবার শুনবে বলে জানিয়েছে শীর্ষ আদালত। গত ১৮ জানুয়ারি সুপ্রিম কোর্ট স্পষ্ট জানিয়েছিল, আইন শৃঙ্খলার অবনতি হওয়ার আশঙ্কায় কোনও রাজ্য এই ছবির মুক্তি আটকাতে পারে না। তার প্রেক্ষিতেই শীর্ষ আদালতে আদালত অবমাননার মামলা করেছেন ওই কংগ্রেস কর্মী।

পঞ্জাব আর হরিয়ানা হাইকোর্টে করণী সেনার সমর্থকদের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে জনস্বার্থ মামলাও। আইনজীবী রঞ্জন লক্ষণপাল আদালতের কাছে আর্জি জানিয়েছেন, যে সব রাজ্যে করণী সেনার হিংসায় জিনিসপত্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তার দায় নিতে হবে সংশ্লিষ্ট রাজ্য সরকারকেই। ওই আবেদনকারীর বক্তব্য, ‘‘বিষয়টি তো আর শুধু একটি ছবি নিয়ে নয়। এটি এখন রাজনীতির বিষয়।’’

রাজপুত সংগঠনগুলির বিক্ষোভের আতঙ্কে আজ বিহারেও কার্যত মুক্তি পায়নি ‘পদ্মাবত।’ যদিও রাজ্যের মুখ্যসচিব অঞ্জনীকুমার সিংহ বলেন, ‘‘আমরা সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মেনেই চলব। ছবির মুক্তিতে কোনও অসুবিধা নেই।’’ মুখ্যসচিব এমন কথা বললেও পটনার কোনও সিনেমা হলেই আজ ‘পদ্মাবত’-এর কোনও চিহ্ন ছিল না। শুধুমাত্র বেগুসরাইয়ের সাবিত্রী সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। ঝামেলার আশঙ্কায় হলের সামনে মোতায়েন করা হয়েছিল বিশাল পুলিশ বাহিনী। মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের জেলা নালন্দার একটি হলে মুক্তি পেলেও রাজপুত মহাসভার বিক্ষোভে মাঝপথে ছবি দেখানো বন্ধ করে দেওয়া হয়।’

কালও হয়েছিল, আজও ‘পদ্মাবত’ নিয়ে বিক্ষোভ হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের আসানসোল শহরে। ছবি মুক্তির বিরোধিতা করে আজ আসানসোল শহরের দু’টি জায়গায় বিক্ষোভ দেখান বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সদস্য ও সমর্থকেরা। দেশের বাকি অংশে আজ অবশ্য করণী সেনার তাণ্ডব তেমন দেখা যায়নি। বিক্ষিপ্ত কিছু বিক্ষোভ প্রতিবাদ ছাড়া আজ মোটামুটি শান্ত ছিল দেশ।

লখনউয়ের একটি সিনেমা হলের সামনে উল্টে গাঁধীগিরি করতে দেখা গিয়েছে করণী সেনার কিছু সমর্থককে। হলের সামনে জড়ো হওয়া দর্শকদের কাছে গিয়ে গোলাপ হাতে তাঁরা অনুরোধ করেছেন, ছবিটি যেন কেউ না দেখেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE