Advertisement
১৬ জুন ২০২৪
Entertainment News

মাধুরীর সঙ্গে কাজ করতে গিয়ে নার্ভাস হয়ে যেতেন সঞ্জয়!

‘কলঙ্ক’ ছবির ভাবনা মূলত ছিল কর্ণ জোহরের বাবা প্রয়াত যশ জোহরের। সঞ্জয় জানিয়েছেন, ১৯৯৩-এ ‘গুমরাহ’ ছবির শুটিংয়ের সময়ই এই গল্পের কথা তাঁকে বলেছিলেন যশ।

মাধুরী এবং সঞ্জয়।

মাধুরী এবং সঞ্জয়।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৫ এপ্রিল ২০১৯ ১৬:৪৫
Share: Save:

নব্বইয়ের দশকে সঞ্জয় দত্ত এবং মাধুরী দীক্ষিতের প্রেমের গসিপে সরগরম ছিল ইন্ডাস্ট্রি। অনস্ক্রিনে তখন একের পর এক কাজ করছেন তাঁরা। অফস্ক্রিনেও তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে বহু জল্পনা ছিল। তাঁরা ২২ বছর পর ফের ফিরছেন অনস্ক্রিনে। সৌজন্যে ‘কলঙ্ক’। সে ছবির সেটেই নাকি মাধুরীর সঙ্গে নিজের যমজ সন্তানদের আলাপ করিয়ে দিয়েছেন সঞ্জয়।

সম্প্রতি এক সাক্ষাত্কারে সঞ্জয় বলেন, “মাধুরীর সঙ্গে কাজ করাটা দারুণ অভিজ্ঞতা। আমি একটু নার্ভাসই থাকতাম। মাধুরীই বরং কাজটা অনেক সহজ করে দিয়েছিল। আমরা শুটিং ব্রেকে নিজেদের সন্তানদের নিয়েও কথা বলতাম। আমি তো শাহরান আর ইকরার সঙ্গে মাধুরীর আলাপ করাতে ওদের সেটেও নিয়ে গিয়েছিলাম।’’

‘কলঙ্ক’ ছবির ভাবনা মূলত ছিল কর্ণ জোহরের বাবা প্রয়াত যশ জোহরের। সঞ্জয় জানিয়েছেন, ১৯৯৩-এ ‘গুমরাহ’ ছবির শুটিংয়ের সময়ই এই গল্পের কথা তাঁকে বলেছিলেন যশ। সঞ্জয়ের কথায়, ‘‘গুমরাহের সময় যশ আঙ্কেল আমাকে গল্পটা বলেছিলেন। ধর্মা প্রোডাকশন তো পরিবারের মতো। ফলে কর্ণ যখন বলল আমাকে, না বলার কোনও প্রশ্নই ছিল না। আরও একটা ব্যাপার। এ ছবিতে আমার চরিত্রের নাম বলরাজ। আমার বাবা সুনীল দত্তের আসল নাম ছিল এটাই। পার্টিশানের সময় বাবাও পাকিস্তান থেকে এসেছিলেন। ফলে মানসিক ভাবে এ ছবির সঙ্গে প্রথম থেকেই যুক্ত ছিলাম।’’

দেখুন, বিনোদনের নানা কুইজ

‘কলঙ্ক’ মুক্তি পাবে আগামী ১৭ এপ্রিল। সঞ্জয়, মাধুরী ছাড়াও আলিয়া ভট্ট, বরুণ ধবন, সোনাক্ষী সিংহ, আদিত্য রায় কপূরের মতো শিল্পীর অভিনয়ে সমৃদ্ধ এই ছবি।

আরও পড়ুন, ছোট্ট একটা ভুল! তার জন্য ফের ভাইরাল প্রিয়া

(কোন সিনেমা বক্স অফিস মাত করল, কোন ছবি মুখ থুবড়ে পড়ল - বক্স অফিসের সব খবর জানতে পড়ুন আমাদের বিনোদন বিভাগ।)

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE