×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

চৃড়ান্ত সফল হলেও এক বিশেষ কারণে অমিতাভের সঙ্গে এই ফিল্ম করতেই চাননি গোবিন্দ

নিজস্ব প্রতিবেদন
২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৩:৪২
নয়ের দশকে বলিউডের চূড়ান্ত জনপ্রিয় তারকা ছিলেন গোবিন্দ। পিঠে কোনও বড় নামের হাত ছিল না তাঁর। সম্পূর্ণ নিজের দক্ষতায় ইন্ডাস্ট্রিতে জায়গা করে নিয়েছিলেন তিনি।

সে সময় ঋণে জর্জরিত অমিতাভ বচ্চনের কামব্যাকের প্রয়োজন ছিল। এমন এক জন তারকার সঙ্গে তিনি ছবি করতে চাইছিলেন যাঁর যথেষ্ট জনপ্রিয়তা রয়েছে।
Advertisement
কারণ তারকাদের জন্য কামব্যাক ছবি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই ছবি হিট না হলে কেরিয়ারও শেষ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

অমিতাভের হাতে তখন অ্যাকশন কমেডি ছবি ‘বড়ে মিয়াঁ ছোটে মিয়াঁ’। ১৯৯৮ সালে মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি।
Advertisement
এই ছবিতে অভিনয় করেছিলেন অমিতাভ এবং গোবিন্দ জুটি। তাঁদের পছন্দ করেছিলেন দর্শক। অমিতাভের কামব্যাক ছবিও সফল হয়।

কিন্তু জানেন কি প্রথমে এই ছবিতে অভিনয় করতেই রাজি ছিলেন না গোবিন্দ! অমিতাভের প্রস্তাবও ফিরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি!

এই ছবির জন্য অমিতাভের সঙ্গে কাকে নেওয়া হবে এ নিয়ে তখন আলোচনাপর্ব চলছে পরিচালক, প্রযোজকের মধ্যে।

গোবিন্দকে নেওয়ার প্রস্তাব অমিতাভই তাঁদের সামনে রাখেন। সেই মতো ছবির প্রস্তাব নিয়ে অমিতাভ নিজে গোবিন্দর বাড়িতে গিয়ে হাজির হন।

বিগ বি-কে যথেষ্ট সম্মান দিতেন গোবিন্দ। যত ক্ষণ তিনি বাড়িতে ছিলেন গোবিন্দ জোড় হাতে তাঁর সঙ্গে কথা বলে গিয়েছেন।

কিন্তু ওই ছবি যে তাঁর পক্ষে করা অসম্ভব তাও জানিয়ে দেন। কারণ সে সময় ব্যক্তিগত জীবনে টানাপড়েন চলছিল তাঁর।

যার প্রভাব পড়ছিল তাঁর পেশাতেও। কোনও দিন সময়ে শ্যুটিং সেটে পৌঁছতে পারতেন না তিনি। সংবাদমাধ্যমে তখন তাঁর সমালোচনা করে অনেক কিছু লেখালেখিও হচ্ছিল।

এই কারণেই প্রথমে অমিতাভের সঙ্গে ছবি করতে রাজি ছিলেন না গোবিন্দ। কারণ অমিতাভ ছিলেন এ সব বিষয়ে ভীষণ কড়া।

তিনি নিজে কখনও ১ মিনিট দেরি করতেন না সেটে পৌঁছতে। গোবিন্দ তাই জানিয়ে দিয়েছিলেন তাঁর এই সমস্যা নিয়ে যদি অমিতাভের কোনও অসুবিধা না থাকে তা হলেই একমাত্র তিনি ছবিটি করবেন।

গোবিন্দর শর্তে রাজি হয়ে যান অমিতাভ। দু’জনেই একই সঙ্গে চোর এবং পুলিশের ভূমিকায় অভিনয় করেন ছবিতে। ছবি মুক্তির আগে পর্যন্ত গোবিন্দ জানতেনই না তাঁর কতটা গুরুত্ব রয়েছে ছবিতে।

তিনি শুধুমাত্র অমিতাভের জন্যই ছবিটি করছিলেন। মুক্তি পাওয়ার পর বক্স অফিসে চূড়ান্ত সফল হয় ‘বড়ে মিয়াঁ ছোটে মিয়াঁ’।