Advertisement
২১ জুন ২০২৪
India-China

Rajnath Singh: ভারতের জমিতে কুনজর দিলে ছেড়ে দেব না, নাম না করে চিনকে হুঁশিয়ারি রাজনাথের

লাল বাহাদুর শাস্ত্রী ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে অসামরিক ও সামরিক আধিকারিকদের যৌথ প্রশিক্ষণ শিবিরে বক্তৃতা করেন রাজনাথ।

উত্তরাখণ্ডে রাজনাথ।

উত্তরাখণ্ডে রাজনাথ। ছবি: পিটিআই।

সংবাদ সংস্থা
মুসৌরি শেষ আপডেট: ১৩ জুন ২০২২ ১৮:৪৮
Share: Save:

নাম না করে চিনকে কড়া বার্তা দিলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ। সোমবার উত্তরাখণ্ডের মুসৌরিতে লাল বাহাদুর শাস্ত্রী ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে অসামরিক ও সামরিক আধিকারিকদের ২৮তম যৌথ প্রশিক্ষণ শিবিরে বক্তৃতায় তিনি বলেন, ‘‘ভারত কখনও কোনও দেশ আক্রমণ করেনি। কারও এক ইঞ্চি জমিও দখল করেনি। কিন্তু কেউ যদি আমাদের জমিতে কুনজর দেয়, আমরা উপযুক্ত জবাব দেব।’’

ওই বক্তৃতায় সাম্প্রতিক রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রসঙ্গও তুলেছেন রাজনাথ। ভারতকে ‘শান্তিপ্রিয় দেশ’ বলেছেন। পাশাপাশি তাঁর দাবি, পৃথিবীতে এখন একরতফা ভাবে ‘যুদ্ধবাজ’ এবং ‘শান্তকামী’ রাষ্ট্র চিহ্নিত করা যায় না। ঘটনা পরম্পরা এবং ধারাবাহিকতা অনুসরণ করেই এ বিষয়ে রাষ্ট্রগুলির ভূমিকা নির্ধারিত হয়। সরাসরি যুদ্ধ না হলেও তথাকথিত শান্তির সময়ও ‘প্রক্সি যুদ্ধ’ চলতে থাকে বলে জানান তিনি।

গত ২০২০ সালে সীমান্ত বিবাদের আবহে পূর্ব লাদাখের গলওয়ানে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়েছিল ভারত ও চিন সেনা। ওই সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন ভারতীয় সেনার মৃত্যু হয়েছিল। তার পর থেকে সীমান্তে স্থিতাবস্থা বজায় রাখতে অন্তত ১৫ বার সামরিক আলোচনা হয়েছে দু’দেশের মধ্যে। প্যাংগং হ্রদ, গোগরা-সহ কিছু এলাকা থেকে চিনা সেনা সরলেও এখনও কিছু প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার (এলএসি) এ পারের কিছু অঞ্চলে চিনা ফৌজ রয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ। সম্প্রতি আমেরিকার প্রতিরক্ষা সচিব লয়েড অস্টিন জানিয়েছেন, ফের এলএসি-তে চিনা ফৌজের ‘তৎপরতা’ বেড়েছে।

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE