Advertisement
২৪ এপ্রিল ২০২৪
DRDO

DRDO: পাক হানাদারি রুখবে আকাশে, দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি যুদ্ধ ড্রোনের প্রথম পরীক্ষা সফল

চালকহীন যুদ্ধবিমান জমির উপর থাকা লক্ষ্যবস্তুতে নিখুঁত ভাবে আঘাত হানতে সক্ষম বলে ডিআরডিওর একটি সূত্র জানাচ্ছে।

এ বার ড্রোন দিয়ে ড্রোন রুখতে চায় ভারত।

এ বার ড্রোন দিয়ে ড্রোন রুখতে চায় ভারত। ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া।

সংবাদ সংস্থা
বেঙ্গালুরু শেষ আপডেট: ০১ জুলাই ২০২২ ১৬:০৭
Share: Save:

দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি নয়া ড্রোনের প্রথম সফল পরীক্ষা করল ভারতীয় প্রতিরক্ষা গবেষণা এবং উন্নয়ন সংস্থা (‘ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন’ বা ডিআরডিও)। সংস্থার তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, শুক্রবার কর্নাটকের চিত্রদুর্গের ‘অ্যারোনটিক্যাল টেস্ট রেঞ্জ’-এ সফল পরীক্ষা করা হয় ওই আধুনিক হামলাকারী ড্রোনের।

পোশাকি নাম, ‘অটোনমাস ফ্লাইং উইং টেকনোলজি ডেমনস্ট্রেটর’। দেশীয় সংস্থা ‘অ্যারোনটিক্যাল ডেভেলপমেন্ট এস্টাবলিশমেন্ট’-এর নকশায় তৈরি এই চালকহীন যুদ্ধবিমান জমির উপর থাকা লক্ষ্যবস্তুতে নিখুঁত ভাবে আঘাত হানতে সক্ষম বলে ডিআরডিওর একটি সূত্র জানাচ্ছে। পাশাপাশি, আকাশে শত্রু ড্রোনকে চিহ্নিত করে সেখানেই সেটিকে ধ্বংস করার প্রযুক্তিও এই নয়া ড্রোনের অন্তর্ভুক্ত করা যায় বলে ওই সূত্রের দাবি। ‘অভ্যাস’ নামে পরিচিত ওই ড্রোনের আগেও উত্‌ক্ষেপণ করেছে ডিআরডিও। বছর কয়েক আগে ওড়িশার চাঁদিপুরের ইন্টেরিম টেস্ট রেঞ্জ (আইটিআর) থেকে এর পুরনো সংস্করণটি পরীক্ষা করা হলেও প্রত্য়াশিত সাফল্য় মেলেনি বলে সূত্রের খবর।

কয়েক বছর ধরেই পাকিস্তান থেকে ড্রোনের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণরেখা (এলওসি) এবং আন্তর্জাতিক সীমান্ত পার করে অস্ত্রশস্ত্র, মাদক, জাল টাকা পাঠানো হচ্ছে ভারতে। আকাশপথে তার মোকাবিলা করার প্রযুক্তি এখনও ভারতের অধরা। অনুপ্রবেশকারী পাক ড্রোনগুলিকে মূলত বিমানবিধ্বংসী ভারী মেশিনগান থেকে গুলি ছুড়ে মাটিতে নামানো হয়। এই পরিস্থিতিতে ভবিষ্যতে নয়া ড্রোনের সাহায্যে সীমান্তে শত্রু ড্রোন ধ্বংস করা সম্ভব হতে পারে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

DRDO Drone Pak Drone Drone Attack
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE