Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

লখনউতে কাশ্মীরিদের উপর হামলাকারীরা বিকারগ্রস্ত, কানপুরের সভায় বললেন মোদী

নিজস্ব প্রতিবেদন
কানপুর ০৮ মার্চ ২০১৯ ২০:২১
কানপুরে মোদীর জনসভা। ছবি: পিটিআই।

কানপুরে মোদীর জনসভা। ছবি: পিটিআই।

গেরুয়া পোশাক পরে লখনউয়ের প্রকাশ্য রাস্তায় দুই কাশ্মীরি ফলবিক্রেতাকে নৃশংস ভাবে লাঠি দিয়ে মারার দৃশ্য এখনও টাটকা। কাশ্মীর তো বটেই, এই ঘটনার পর নিন্দার ঝড় উঠেছে সারা দেশেই। পরিস্থিতি সামাল দিতে কানপুরের জনসভায় সেই প্রসঙ্গ টেনে এনে নরেন্দ্র মোদী বললেন, ‘‘লখনউতে কিছু মানসিক বিকারগ্রস্ত ব্যক্তি এই কাজ করছে। ঘটনা জানার পর তখনই ব্যবস্থা নিয়েছে উত্তরপ্রদেশ সরকারও।’’

পুলওয়ামা কাণ্ডের পর সারা দেশে কাশ্মীরিদের উপর হামলা বন্ধে ব্যবস্থা নিতে রাজ্য সরকারগুলিকে কড়া নির্দেশ দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। রাজ্য সরকারের পাশাপাশি সুনির্দিষ্ট বার্তা দেওয়া হয়েছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রককেও। এই পরিস্থিতিতে বিজেপি শাসিত একটি রাজ্যে প্রকাশ্য রাস্তায় কাশ্মীরি ব্যবসায়ীর উপর এই হামলার ঘটনায় স্বাভাবিক ভাবেই অস্বস্তিতে পড়েছিল বিজেপি শিবির।

বুধবার দুই কাশ্মীরি ‘ড্রাই ফ্রুট’ বিক্রেতাকে জামার কলার ধরে টেনে নৃশংস ভাবে লাঠিপেটা করেছিল গেরুয়া পোশাক পরা কিছু দুষ্কৃতী। তাঁদের কাছে ভারতীয়ত্বের প্রমাণ চাওয়ার পাশাপাশি অকথ্য গালিগালাজও করে এই দুষ্কৃতীরা। তার পর সেই অত্যাচারের ভিডিয়ো রেকর্ড করে সোশ্যাল মিডিয়াতেও ছড়িয়ে দেয় তারা। সেই ভিডিয়ো সামনে আসার পর সারা দেশে নিন্দার ঝড় ওঠায় পাঁচ দুষ্কৃতীকে গ্রেফতারও করে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। যে দুষ্কৃতীরা এই অপকর্ম করেছে তাদের সঙ্গে বিজেপি যোগাযোগের অভিযোগ উঠলেও তা অস্বীকার করেছে নরেন্দ্র মোদীর দল।

Advertisement

আরও পড়ুন: ‘অপরাধ’ কাশ্মীরি, যোগী রাজ্যে রক্তাক্ত দুই ফল বিক্রেতার ভিডিয়ো পোস্ট করলেন অভিযুক্তই!

লখনউ-এর ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে এনে আজ উত্তরপ্রদেশের কানপুরে একটি জনসভায় মোদী বললেন, ‘‘কাশ্মীরি ভাইদের উপরে যারা এই অত্যাচার চালিয়েছে তারা মানসিক বিকারগ্রস্ত। দেশে ঐক্যের পরিবেশ বজায় রাখা জরুরি। এই ঘটনা জানার পরই সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নিয়েছে উত্তরপ্রদেশ সরকার।’’

এর আগেই কাশ্মীরিদের নিয়ে মুখ খুলেছিলেন মোদী। পুলওয়ামা কাণ্ডের পরপর সারা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসকারী কাশ্মীরিদের উপর অত্যাচারের ঘটনা তখন বেড়েই চলছিল। তখনও তিনি কাশ্মীরিদের উপর হামলার ঘটনা বন্ধে দেশবাসীর উদ্দেশে বার্তা দিয়েছিলেন। কিন্তু কোনও একটি নির্দিষ্ট ঘটনার এই প্রথম উল্লেখ করলেন তিনি। সরাসরি বিজেপির দিকে অভিযোগের আঙুল ওঠাতেই তিনি বাধ্য হলেন লখনউ কাণ্ডের উল্লেখ করতে, এমনটাই অভিযোগ বিরোধীদের।

আরও পড়ুন: কাশ্মীরিদের ওপর হামলা বন্ধে ব্যবস্থা নিন, কেন্দ্র ও ১০ রাজ্যকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

মোদীর পাশাপাশি লখনউ কাণ্ড নিয়ে আসরে নেমেছেন বিজেপি নেতা এবং দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহও। বিওয়ারে একটি অন্য জনসভায় তাঁর মন্তব্য,‘‘কাশ্মীরিদের উপরে হামলার ঘটনার কথা আমার কানে এসেছে। আমি স্পষ্ট বলে দিতে চাই, কাশ্মীরিরা আমাদেরই লোক। তাঁদের উপর যাতে হামলা না হয়, তা নিয়ে ব্যবস্থা নিতে সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের অনুরোধ করেছি আমি।’’ এই প্রসঙ্গে উল্লেখ্য লোকসভায় লখনউ-এর প্রতিনিধিত্ব করেন রাজনাথই।

আরও পড়ুন

Advertisement