Advertisement
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
National News

সাড়ে চার বছরে মোদীর বিদেশ সফরের খরচ ২০০০ কোটিরও বেশি! সংসদে তথ্য পেশ

২০১৪ সালের ২৬ মে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদী। বিনয় বিশ্বমের প্রশ্নের উত্তরে আর ভি কে সিংহ হিসেব দিয়েছেন ১৫ জুন, ২০১৪ থেকে ৩ ডিসেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে চার বছরের।

অলঙ্করণ: শৌভিক দেবনাথ

অলঙ্করণ: শৌভিক দেবনাথ

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ ১৫:৪২
Share: Save:

চার বছরে ৮৪টি দেশে সফর। মোট বিমান ভাড়ার খরচই ২০০০ কোটিরও বেশি! বিরোধীদের অভিযোগ কিংবা কোনও সূত্রের দেওয়া তথ্য নয়। ক্ষমতায় আসার পর থেকে গত সাড়ে চার বছরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীবিদেশ সফর নিয়ে এটাই সরকারি হিসেব। যা পেশ হয়েছে সংসদে। এবং হিসেব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীরই সহকর্মী, বিদেমন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী ভি কে সিংহ।

কিন্তু পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা ভোটের রাজনৈতিক চর্চার মধ্যেও এই প্রসঙ্গ এল কীভাবে? বৃহস্পতিবার রাজ্যসভায় প্রশ্নোত্তর পর্বে এ নিয়ে তথ্য চান কেরলের সিপিএম সাংসদ বিনয় বিশ্বম। তিনি জানতে চান, প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর গত সাড়ে চার বছরে মোদী কতগুলি দেশ সফর করেছেন। এই সফরগুলিতে তাঁর সফরসঙ্গী কারা কারা ছিলেন, কী কী চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে এবং এয়ার ইন্ডিয়াকে কত টাকা দিতে হয়েছে এসব তথ্যও চান বিশ্বম।

২০১৪ সালের ২৬ মে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদী। বিনয় বিশ্বমের প্রশ্নের উত্তরে আর ভি কে সিংহ হিসেব দিয়েছেন ১৫ জুন, ২০১৪ থেকে ৩ ডিসেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে চার বছরের। সেই তথ্য বলছে, এই সময়ের মধ্যে ৮৪টি দেশ সফর করেছেন মোদী। সেই সব বিদেশভ্রমণে মোট খরচ হয়েছে ২১২১.৫৮ কোটি টাকা।

আরও পড়ুন: রাফাল চুক্তিতে গলদ নেই, কোনও তদন্ত নয়, জানাল সুপ্রিম কোর্ট, স্বস্তিতে কেন্দ্র

কোন খাতে কত খরচ হয়েছে, তাও জানিয়েছেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি খরচ হয়েছে বিমান রক্ষণাবেক্ষণে, ১৫৮৩ কোটি ১৮ লক্ষ টাকা। এছাড়া চাটার্ড বিমানের জন্য সরকারি কোষাগার থেকে গিয়েছে ৪২৯ কোটি ২৮ লক্ষ এবং নিরাপদ হটলাইনের জন্য খরচ হয়েছে ৯ কোটি ১২ লক্ষ টাকা। তবে এই হটলাইনের খরচ ধরা হয়েছে ২০১৪ থেকে ২০১৭ এই তিন বছরে।

আরও পডু়ন: ক্ষমা চান রাহুল, ভোট পিছনে রেখে রাফাল নিয়ে ময়দানে অমিত শাহ

‘এনআরআই’ প্রধানমন্ত্রী বলে বিরোধীরা বরাবরই কটাক্ষ করে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। প্রধানমন্ত্রী কোনও বিদেশ সফর থেকে ফিরলেই ‘ভারত সফরে এলেন মোদী’— এ রকম ট্যাগলাইন, মিম ঘোরাফেরা করে সোশ্যাল মিডিয়ায়। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, ২০১৬-র নভেম্বরে নোট বাতিলের ঘোষণার পরই জাপান সফরে চলে যান মোদী। তখন এ নিয়ে তীব্র ব্যাঙ্গ-বিদ্রুপ হয়েছে। তার মধ্যেই লোকসভা ভোটের আগে মোদীর সফরের এই বিপুল খরচ নিয়ে বিরোধীরা নতুন করে অস্ত্র পেল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক শিবির।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE