অস্থায়ী বা আংশিক সময়ের কর্মীদের নিয়মিত ছুটির আওতায় আনতে একটি বিল পাশ হল ক্যালিফর্নিয়ায়। আইনে পরিণত হতে চাই শুধু গভর্নর গাভিন নিউসমের স্বাক্ষর। ‘অ্যাসেম্বলি ৫’ নামে এই অর্থনৈতিক অধিকার আইন কার্যকর হলে সাধারণ ছুটি এবং অসুস্থতার জন্য সবেতন ছুটি পাবেন এই কর্মীরা। উব্‌র বা লিফ্টের মতো যে সব সংস্থার সদর দফতর ক্যালিফর্নিয়ায়, বিলটি আইনে পরিণত হলে উপকৃত হবেন বিশেষত তাদের কর্মীরাই। বিশেষজ্ঞদের মতে, মূলত আংশিক সময়ের কর্মীদের দিয়ে কাজ চালায় এই সংস্থাগুলি। এ বার তাঁদের পূর্ণ-সময়ের কর্মচারীর মর্যাদা দিতে সংস্থাগুলিকে ৩০% খরচ বাড়াতে হবে। গত বছরই ক্যালিফর্নিয়ার সুপ্রিম কোর্টে একটি মামলার 

পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতিরা বলেন, অস্থায়ী কর্মীরাও যে-হেতু সংস্থার ব্যবসায়িক লাভের ‘অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ’ এবং সংস্থার নির্দেশ মেনেই কাজ করেন— তাই তাঁদের কর্মচারীর মর্যাদা থেকে বঞ্চিত করা সম্পূর্ণ যুক্তিহীন। বিলটিকে সম্পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন ম্যাসাচুসেটসের এলিজ়াবেথ ওয়ারেন, ভারমন্টের বার্নি স্যান্ডার্স এবং ক্যালিফর্নিয়ার কমলা হ্যারিসের মতো ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীরা। সেনেটে বিলটির পক্ষে ভোট পড়েছে ২৯টি। বিপক্ষে ১১টি। বিলটির প্রতি নৈতিক সমর্থন রয়েছে ক্যালিফর্নিয়ার গভর্নর গাভিন নিউসমের। বিশেষজ্ঞদের মতে, গভর্নরের সই করা এখন সময়ের অপেক্ষা। বিলের বিরোধিতা করেও সরব হয়েছেন অনেকে। এর মধ্যে প্রথম সারিতে রয়েছে উব‌্‌র বা লিফ্টের মতো সংস্থাগুলিই। যারা মূলত চুক্তির ভিত্তিতে অল্প সময়ের জন্য কর্মী নিয়োগ করে। এই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে গণভোটের দাবি তুলেছে তারা। বিলটি পাশ হওয়ার পর-পরই লিফ্টের পক্ষে একটি বিবৃতিতে বলা হয়, ‘চালকদের নিয়োগের উপরে সংস্থার স্বতন্ত্র অধিকার 

কায়েম রাখার বিষয়টি নিয়ে ক্যালিফর্নিয়াবাসীদের মতামত নিতে আমরা সম্পূর্ণ প্রস্তুত।’ উব‌্‌র গত সপ্তাহেই এই বিলটির বিরোধিতায় আরও একটি বিল আনতে গণভোটের পক্ষে সরব হয়েছিল। বিশেষজ্ঞদের মতে যা কি না, সংস্থাগুলির অধীনে কর্মরত চুক্তিভিত্তিক অস্থায়ী চালকদের ‘অ্যাসেম্বলি ৫’ বিলটির আওতায় পড়া থেকে আটকাবে। 

বিলটিকে সাধুবাদ জানিয়েছে ক্যালিফর্নিয়ার ১২০০টি শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতিনিধিত্বমূলক সংগঠন লেবর ফেডারেশন। এক বিবৃতিতে তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘অ্যাসেম্বলি ৫’ বিলটি পাশ করিয়ে বাকি দেশের সামনে নজির গড়ল ক্যালিফর্নিয়া। তবে বিরোধীদের দাবি, যাঁরা নিজেদের সুবিধা মতো সময়ে বা সময়সীমায় কাজ করতে আগ্রহী, তাঁদের উপর বিলটির বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে।