শরীরে মেদের আধিক্য। চিকিৎসক ঠিক করে দিয়েছেন খাবারের পরিমাপ। কিন্তু পেট ভরা থাকলেও খাবার দেখলেই আর লোভ সংবরণ করতে পারেন না। এই রকম মানুষদের জন্য এক বিশেষ যন্ত্র আনার চেষ্টা করছেন ক্যালিফোর্নিয়ার স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এক দল গবেষক। মেদবহুল মানুষদের ওজন কমানোর জন্য এক ধরনের বিশেষ মাইক্রোচিপ তৈরি করছেন তাঁরা।

সেই মাইক্রোচিপের কাজ হবে, মেদবহুল ব্যক্তির অসময়ে খাওয়ার ইচ্ছা হলেই ইলেকট্রিকের শক দেওয়া। এই শকের মাধ্যমেই অতিরিক্ত খাওয়া নিয়ন্ত্রণ করে কমানো হবে ওজন। অন্তত তেমনটাই দাবি গবেষকদের। তবে এই চিপ এখনও পরীক্ষা-নিরীক্ষার স্তরেই রয়েছে। মানুষের উপর ওই চিপের কার্যকারিতাও এখনও পরীক্ষা করা হয়নি। এই কাজের জন্য কয়েক জন মেদবহুল ব্যক্তি রাজিও হয়েছেন ইতিমধ্যেই।

ওই গবেষকদল মৃগী রোগীদের মস্তিষ্কের কার্যকলাপ পরীক্ষার জন্য রেসপনসিভ নিউরোস্টিমুলেশন সিস্টেম বা আরএনএস বানিয়েছিলেন আগেই। সেই সিস্টেমেরই পরিবর্তন করে মেদ কমানোর এই নতুন উপায় নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা চালাচ্ছেন তাঁরা।

কী ভাবে কাজ করবে এই চিপ? প্রথমে মেদবহুল ব্যক্তির শরীরে লাগিয়ে দেওয়া হবে ওই চিপ। ছয় মাস ধরে সেই চিপ মস্তিষ্কের কার্যকলাপ ভাল করে পরীক্ষা করবে। তার পর অসময়ে খাবারের ইচ্ছা হলেই হাল্কা ইলেকট্রিকের শক দেবে ওই চিপ।

যদিও এই চিপ দেহের বিএমআই (বডি মাস ইন্ডেক্স) দেখে তবেই বসানো হবে। এই প্রকল্প গোটাটাই পরীক্ষামূলক স্তরে আছে। পরীক্ষা সফল হলে মেদ কমাতে এই পদ্ধতি কাজে আসবে বলে আশা গবেষকদের। 

আরও পড়ুন: এমজেকে নকল করে চমকে দিল এই খুদে!

আরও পড়ুন: টিকটক বানাচ্ছেন বাবা-মা! নকল করতে গিয়ে ৩ বছরের শিশুর কাণ্ড দেখুন