ভারতের আপত্তি মেনে নিয়ে ব্রিটেনে ‘বুরহান ওয়ানি স্মরণ দিবস’ পালনে অনুমতি প্রত্যাহার করে নিল বার্মিংহাম প্রশাসন।

গত বছর ৮ জুলাইয়ে জম্মু-কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গি বুরহান ওয়ানি নিহত হন। তাঁর স্মরণে ওই জঙ্গি সংগঠনটির ব্রিটেন শাখা বার্মিংহামে ‘বুরহান ওয়ানি স্মরণ দিবস’ পালন করতে চেয়েছিল। ওই দিন বার্মিংহামের ভিক্টোরিয়া স্কোয়্যারে একটি সমাবেশ করারও অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। প্রথমে স্থানীয় প্রশাসন তাতে অনুমতি দিয়েছিল। কিন্তু ওই স্মরণ দিবস পালন করতে দেওয়া হলে ‘জঙ্গিদের মহিমান্বিত’ করা হবে, এই যুক্তিতে ভারতের তরফে ওই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আবেদন জানানো হয়। লন্ডনে ভারতের ডেপুটি হাই কমিশনার দীনেশ পট্টনায়েক সোমবার ব্রিটেনের বিদেশ মন্ত্রককে বুরহান ওয়ানির অপরাধের সবিস্তার তালিকা দেন। তারই প্রেক্ষিতে অনুমতি প্রত্যাহার করে নিয়েছে বার্মিংহাম সিটি কাউন্সিল।

ভিক্টোরিয়া স্কোয়্যারে হিজবুল মুজাহিদিনের ওই সমাবেশের অনুমতি দেওয়ার পক্ষে যুক্তি দিতে গিয়ে প্রথমে বার্মিংহাম সিটি কাউন্সিলের তরফে বলা হয়েছিল, ‘‘কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়টি নিয়ে শান্তিপূর্ণ সমাবেশ হবে জেনেই আমরা ওই অনুমতি দিয়েছিলাম।’’

আরও পড়ুন- চিন আর বাংলার মাঝে স্যান্ডউইচ সিকিম: তীব্র বিতর্ক মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যে

সোমবার ব্রিটেনের বিদেশ মন্ত্রকের কাছে পাঠানো চিঠিতে লন্ডনে ভারতের ডেপুটি হাই কমিশনার দীনেশ পট্টনায়েক লেখেন, ‘‘কাশ্মীর নিয়ে সমাবেশ হতেই পারে। কিন্তু কোনও জঙ্গিকে মহিমান্বিত করার চেষ্টা হলে তা কখনওই মেনে নেওয়া যায় না। গত কয়েক মাসে ব্রিটেনও বেশ কয়েক বার সন্ত্রাসের শিকার হয়েছে। সে ক্ষেত্রে জঙ্গিদের মহিমান্বিত করার চেষ্টাকে এই ভাবে উৎসাহিত করা হচ্ছে কেন?’’

এর পরেই ভারতের আপত্তি মেনে নিয়ে অনুমতি প্রত্যাহার করে নেয় বার্মিংহাম সিটি কাউন্সিল।