Advertisement
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
collagen

৪০-এও চাই তারুণ্যের ছোঁয়া? যৌবন ধরে রাখতে রোজের জীবনে ৫ বদল এনে দেখুন

ত্বক ও চুল তরতাজা রাখতে কী করবেন ভাবছেন? যৌবন ধরে রাখতে শরীরে কোলাজেন উৎপাদন কী ভাবে বৃদ্ধি করবেন, রইল তার হদিস।

৪০ পেরোলেও শাহিদের চেহারায় তারুণ্যের জেল্লা।

৪০ পেরোলেও শাহিদের চেহারায় তারুণ্যের জেল্লা। ছবি: সংগৃহীত।

কলকাতা শেষ আপডেট: ২৮ নভেম্বর ২০২৩ ১৬:৫১
Share: Save:

ত্বক ও চুলের পরিচর্যায় কোলাজেন নামক প্রোটিনের ভূমিকা অনেকটা। ত্বকের জেল্লা বাড়ানো থেকে চুলের গোড়া মজবুত করা, সবেতেই প্রয়োজন হয় এই প্রোটিনের। তবে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শরীরে কোলাজেনের ঘাটতি শুরু হয়। তা ছাড়াও, অস্বাস্থ্যকর খাওয়াদাওয়া, দূষণের কারণে এই প্রোটিন উৎপাদনের হার আরও কমিয়ে দেয়। ফলস্বরূপ, অকালেই চেহারায় বয়েসের ছাপ পড়ে, চামড়া ঝুলে যায় ত্বকের জেল্লা হারিয়ে যায়।

ত্বক ও চুল তরতাজা রাখতে কী করবেন ভাবছেন? যৌবন ধরে রাখতে শরীরে কোলাজেন উৎপাদন কী ভাবে বৃদ্ধি করবেন, রইল তার হদিস।

১) বেশি করে জল খেতে হবে: শরীরে কোলাজেনের ঘাটতি মেটানোর উপায় হল বেশি করে জল খাওয়া। শীতকালে জল খাওয়ার অভ্যাস কমে যায়, তবে যৌবন ধরে রাখতে চাইলে দিনে আড়াই থেকে তিন লিটার জল খেতে হবে। এ ছাড়া জলের মাত্রা বেশি রয়েছে এমন পল খেতে হবে।

২) ডায়েটে ভিটামিন সি রাখুন: কোলাজেন উৎপাদনে এই ভিটামিনও বেশ উপকারী। ত্বক ও চুলের পরিচর্যার ক্ষেত্রে এই ভিটামিনের জুড়ি মেলা ভার। তাই ত্বকের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে টক জাতীয় ফল, পেঁপে, টোম্যাটো, লাল ও হলুদ বেলপেপার ইত্যাদি খাদ্যতালিকায় রাখতেই হবে।

৩) অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টে গুরুত্ব দিন: ত্বক ও চুলের পরিচর্যায় অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। কোলাজেন উৎপাদনেও ভূমিকা রাখে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট। তাই ত্বক ডিটক্স করতে, ত্বকে অক্সিজ়েনের উৎপাদন বাড়িয়ে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করতে পরিচর্যায় অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টযুক্ত পালং শাক, ডার্ক চকোলেট, ব্লুবেরি, স্ট্রবেরি, বিট বেশি করে খেতে হবে।

৪) মদ্যপান ও ধূমপান বন্ধ করুন: এই দুই অভ্যাস কেবল শরীরের নয়, ত্বক ও চুলেরও ক্ষতি করে। এই অভ্যাসের কারণে শরীরে কোলাজেনের ঘাটতি হয়। ত্বকের জেল্লা কমে যায়, চুল রুক্ষ দেখায়। তাই শরীরে কোলাজেনের মাত্রা বৃদ্ধি করতে মদ্যপান ও ধূমপান ছাড়তে হবে।

৫) প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খান: অ্যামিনো অ্যাসিড শরীরে কোলাজেন উৎপাদনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার যেমন মাংস, ডিম, বিভিন্ন ধরনের বাদাম, টফু, কটেজ চিজ, মাছ, দুধ ইত্যদি শরীরে খেলে অ্যামিনো অ্যাসিডের মাত্রা বাড়ে। ফলে কোলাজেন উৎপাদনের হারও বেড়ে যায়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE