Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

লাইফস্টাইল

কোটিপতিদের আদরের সব গাড়ি, দাম জানেন এগুলোর

কুমার শঙ্কর রায়
২৯ জুলাই ২০১৮ ১২:৪৮
২০১০ সালে রতন টাটা কিনেছিলেন এক লাল ফেরারি, এবং সঙ্গে সঙ্গে চলে যান দেশের এক মুষ্টিমেয় মানুষের ক্লাবে যাদের কাছে ওই ক্লাসিক গাড়িটি আছে। কোটিপতিদের নানা শখ থাকে। গাড়ি কেনা তাঁর মধ্যে অন্যতম। তাঁদের গ্যারেজ ভর্তি অতুলনীয় সব গাড়ি। কিন্তু যে সে গাড়ি কেনার মধ্যে সেই আভিজাত্যের প্রতিফলন হয় না। গাড়ির বিশাল দাম হলেও অবশ্য মান বাড়ে না।

কুড়ি বছর বা তাঁর থেকে পুরনো গাড়িকে বলা হয় 'ক্লাসিকস'। একটি নতুন রিপোর্ট বলছে, এই ক্লাসিক গাড়ির বিশ্ব বাজারের মূল্য প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ কোটি টাকা। এই ক্লাসিক গাড়ি বিনিয়োগ হিসাবেও দারুণ। শুধু গত ১০ বছরে এই ক্লাসিক গাড়ির দাম বেড়েছে গড়ে ১৬০ শতাংশ। চলুন দেখা যাক কোটিপতিদের সর্বাধিক জনপ্রিয় ক্লাসিক কার কোনগুলি এবং কী তার দাম।
Advertisement
ফেরারি ২৫০ জিটিও (১৯৬০ দশকের)- এঞ্জো ফেরারি ১৯৩৯ সালে ফেরারির প্রথম গাড়ি বানান। ১২৫এস মডেল থেকে যাত্রা শুরু করে ফেরারি। কোটিপতিদের ২০টি সর্বাধিক জনপ্রিয় ক্লাসিক গাড়িদের মধ্যে ৯টি গাড়িই এসেছে ফেরারি থেকে। এই তালিকার একদম উপরে আছে ফেরারি ২৫০ জিটিও (১৯৬০ দশকের), যার দাম ২.৪ কোটি ডলার বা ১৬৮ কোটি টাকা।

‘জিটিও’, অর্থাত্ 'গ্র্যান টুরিসমো ওমওলোগাতা'। বিশ্বে এই গাড়ি রয়েছে মাত্র ৩৬টি। ২০১৮ সালে একটি ১৯৬৩/১৯৬৪ তৈরি ফেরারি ২৫০ জিটিও বিক্রি হয় ৭ কোটি মার্কিন ডলার অর্থাৎ ৪৯০ কোটি টাকায়! ওয়েদার টেক কোম্পানির ডেভিড ম্যাকনিল কিনেছিলেন ওই গাড়ি।
Advertisement
ফেরারি ২৫০ জিটি ক্যালিফোর্নিয়া স্পাইডার (১৯৬০ দশকের) - ঠিকঠাক চলছে এমন ফেরারি ২৫০ জিটি ক্যালিফোর্নিয়া স্পাইডারের দাম অনেক। নিউ ওয়ার্ল্ড ওয়েলথ সংস্থা বলছে ফেরারির এই গাড়ির দাম ২ কোটি ডলার বা ১৪০ কোটি টাকা।

ফেরারি ১৬৬ বারচেটটা (১৯৫০ দশকের)- ফেরারির এই গাড়ি পাওয়া যায় ৯০ লাখ ডলার বা ৬৩ কোটি টাকায়। বারচেটটা কথার অর্থ ছোট নৌকা।

বুগ্যাটি রয়ালে (১৯৩০ দশকের)- এত্তরে বুগ্যাটি ঠিক করেন বিশ্বের সব থেকে ভাল লাক্সারি গাড়ি বানাবেন। ঠিক করা হয়, মাত্র ২৫টি গাড়ি তৈরি করা হবে। কিন্তু গ্রেট ডিপ্রেশনের প্রভাবে তৈরি হয় মাত্র ৭টি গাড়ি। এখনও পর্যন্ত বিশ্বে এই গাড়ি রয়েছে মাত্র ছ’টি। নিউ ওয়ার্ল্ড ওয়েলথ সংস্থা জানাচ্ছে, এর দাম ১.৬ কোটি ডলার বা ১১২ কোটি টাকা।

এত্তরে বুগ্যাটিকে নিয়ে নানান মজার গল্প আছে বলেই হয়ত বুগ্যাটি রয়ালের দাম চড়চড় করে বেড়েই গিয়েছে। গাড়ি বিক্রি করার পর খদ্দের অভিযোগ করলে নানান কথা শোনাতেন এত্তরে বুগ্যাটি। ব্রেক কাজ করছিল না অভিযোগ করায়, এত্তরে সেই ক্রেতাকে বলেন যে, উনি এমন গাড়ি বানান যা স্পিডে চলে, থামানোর জন্যে নয়।

* ফেরারি এফ৪০ (১৯৯০ দশকের) - অনেক ধনী পরিবার এই গাড়ি কেনেন। ফেরারির ৪০তম বার্ষিকী উপলক্ষে তৈরি করা হয় এই গাড়ি। তা ছাড়া, ফেরারি এফ৪০ শেষ মডেল যার নকশা ফেরারি কোম্পানির মালিক এঞ্জো ফেরারি ব্যক্তিগত ভাবে অনুমোদন করেন। এর একটি গাড়ির দাম ১৪ লাখ ডলার বা ৯.৮ কোটি টাকা।

* পোর্সে ৯১৭ (১৯৭০ দশকের) - কোটিপতিদের মধ্যে আরেক জনপ্রিয় গাড়ি। এই গাড়ির বাজারদর ১ কোটি ডলার বা ৭০ কোটি টাকা। জনপ্রিয়তার তালিকায় আছে ম্যাকল্যারেন কোম্পানির এফ১, যা ১৯৯০-এর দশকে বানানো হয়। এই গাড়ির এত দাম কেন?

না, সেরকম কোনও কিংবদন্তির নাম নেই এই গাড়ির সঙ্গে। কিন্তু হ্যাঁ, এই গাড়ির প্রোটোটাইপ ২৩১ মাইল বা ৩৭১ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টার গতিতে ছুটেছিল। আজকে, এই গাড়ির মডেলের দাম ৮০ লাখ ডলার বা ৫৬ কোটি টাকা।

এ ছাড়াও কোটিপতিদের মধ্যে জনপ্রিয় ক্লাসিক গাড়িদের মধ্যে আছে পোর্সে ৫৫০ স্পাইডার (১৯৫০ দশকের), মার্সিডিজ গালউইং ৩০০ এসএল (১৯৫০ দশকের), পোর্সে ৯৫৯ (১৯৮০ দশকের), অ্যাস্টন মার্টিন ডিবি৪ (১৯৫০ দশকের), অ্যাস্টন মার্টিন ডিবি৫ (১৯৬০ দশকের), ল্যামবর্ঘিনি মিউরা এবং ল্যামবর্ঘিনি কুন্টাচ।

এ গুলির দাম যথাক্রমে ২০ লাখ ডলার বা ১৪ কোটি টাকা, ১৮ লাখ ডলার বা ১২.৬০ কোটি টাকা, ১৫ লাখ ডলার বা ১০.৫০ কোটি টাকা, ১৪ লাখ ডলার বা ৯.৮ কোটি টাকা, ১০ লাখ ডলার বা ৭ কোটি টাকা, ৮ লাখ ডলার বা ৫.৬ কোটি টাকা, ৫ লাখ ডলার বা ৩.৫ কোটি টাকা।

জনপ্রিয় গাড়ির তালিকায় সব থেকে কম দাম হল ১৯৮০র দশকে তৈরি হওয়া ফেরারি ৩০৮ যা পাওয়া যায় ৪২ লাখ টাকায়!