Advertisement
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Lifestyle News

শিশুর মোটা হওয়া রুখতে বেঁধে দিন রুটিনে

ছোটবেলা এই ইংরেজি ছড়া আমরা সকলেই পড়েছি। তবে ব্যস্ত জীবনের ইঁদুর দৌড়ে আর বেশি আমল দেওয়া হয়ে ওঠেনি এর মর্ম কথাকে।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৫ এপ্রিল ২০১৭ ১৮:১৯
Share: Save:

‘আর্লি টু বেড অ্যান্ড আর্লি টু রাইজ/মেকস আ ম্যান হেলদি, ওয়েলদি অ্যান্ড ওয়াইজ’

ছোটবেলা এই ইংরেজি ছড়া আমরা সকলেই পড়েছি। তবে ব্যস্ত জীবনের ইঁদুর দৌড়ে আর বেশি আমল দেওয়া হয়ে ওঠেনি এর মর্ম কথাকে। আর এখন স্ট্রেস, সময়ের অভাবে তাড়াতাড়ি ঘুমনোর কথা ভাবতেই পারি না আমরা।

তবে নতুন একটি গবেষণা বলছে, ছোট থেকে এই মন্ত্র মেনে চললে তা আপনার সন্তানকে ভবিষ্যতে সুস্বাস্থ্যের অধিকারী করে তুলতে পারে। রাতে খাওয়া ও শোওয়ার নির্দিষ্ট সময় মেনে চললে, টিভি দেখার সময় কমালে তা শিশুদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। পরবর্তী কালে ওবেসিটির ঝুঁকিও অনেক কমিয়ে দিতে পারে।

আরও পড়ুন: ওবেসিটি বাড়িয়ে দিচ্ছে ১৩ ধরনের ক্যানসারের ঝুঁকি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওহিও স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষকরা ১০,৯৫৫ জন শিশুকে নিয়ে গবেষণা করেন। যখন শিশুদের বয়স ৩ বছর, সেই সময় থেকে তাদের ঘুমনোর সময় ও খাওয়ার সময় নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে টিভি দেখার সময়ও কমিয়ে দিতে বলা হয়। বাবা, মায়েদেরও নিজেদের রুটিন কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনতে বলা হয়।

গবেষণার সময় দেখা যায় ৩ বছর বয়সে এদের মধ্যে ৪১ শতাংশ শিশু নির্দিষ্ট শোওয়ার সময় মেনে চলত, ৪৭ শতাংশ শিশু নির্দিষ্ট সময় খাবার খেত ও ২৩ শতাং‌শ শিশু দিনে এক ঘণ্টা বা তার কম সময় টিভি দেখত। শিশুদের ১১ বছর বয়সে দেখা যায় তাদের মধ্যে ৬ শতাংশ ওবেসিটির শিকার। দেখা গিয়েছে, যেই শিশুরা নিয়মিত সময় মেনে চলতে পারেনি শুধুমাত্র তারাই ওবেসিটিতে আক্রান্ত হয়েছে।

ওবেসিটি ইন্টারন্যাশনাল জার্নালে এই গবেষণার ফল প্রকাশিত হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE