• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আমি জয়ললিতার মেয়ে: সুপ্রিম কোর্টে মহিলা

Jayalalithaa
নিজেকে জয়ললিতার মেয়ে দাবি করে সুপ্রিম কোর্টে আমরুথা।

Advertisement

এক ‘ছেলে’ গ্রেফতার হয়েছেন, এ বার হাজির এক ‘মেয়ে’!

জে কৃষ্ণমূর্তির পর এ বার আদালতে গিয়ে জয়ললিতার সন্তানের পরিচয় দাবি করলেন এক মহিলা। নিজেকে তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ছেলে বলে মাদ্রাজ হাইকোর্টে মামলা করেছিলেন কৃষ্ণমূর্তি নামে এক যুবক। সে দাবি ধোপে টেকেনি। জয়ার সম্পত্তি চেয়ে শেষমেষ প্রাপ্তি হয়েছিল জেলের ঘানি। এ বার আর এক মহিলা ওই একই দাবিতে সরব হয়েছেন। ৩৭ বছর বয়সী আমরুথা নামের ওই মহিলা সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন। জয়াই তাঁর মা, এটা প্রমাণ করার জন্য ডিএনএ টেস্ট করার আবেদন জানিয়েছেন শীর্ষ আদালতের কাছে।

আরও পড়ুন: ফ্রিতে ফলের রসের আবদার, ফলাফল খুন

আমরুথা সুপ্রিম কোর্টকে জানান, ১৯৮০ সালের ১৪ অগস্টে তাঁর জন্ম। কিন্তু প্রথম থেকেই তাঁর জন্ম পরিচয় বদলে দেওয়া হয়। জন্মের পর থেকেই তিনি বেঙ্গালুরুতে জয়ললিতার এক দূর সম্পর্কের বোন শাইলাজার কাছে বড় হন। পরিবারের সম্মান রক্ষা করার জন্যই এ ভাবে তাঁর জন্মপরিচয় গোপন রাখা হয়েছিল। সুপ্রিম কোর্টকে আমরুথা জানান, তিনি যে সত্যিই জয়ললিতার মেয়ে তার প্রমাণ দেওয়ার জন্য তিনি প্রস্তুত। এর জন্য তাঁর ডিএনএ পরীক্ষা করা হোক। আমরুথা নিজেকে জয়ললিতার মেয়ে দাবি করলেও, তাঁর বাবা কে তা নিয়ে কিছু বলেননি সুপ্রিম কোর্টকে। আমরুথার কথা শোনার পর সুপ্রিম কোর্ট তাঁকে কর্নাটক আদালতে আবেদন করতে বলেছে।

জয়ললিতার মৃত্যুর পর থেকেই আমরুথা মৌখিক ভাবে এই দাবি করতে শুরু করেন। কিন্তু জয়ার পরিবার তাঁর এই দাবি মানতে নারাজ। মাসখানের আগে জয়ার ভাইঝি দীপা জয়কুমারও দাবি করেন, আমরুথা মিথ্যা বলছেন। এর পরই সুপ্রিম কোর্টে যান তিনি।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন