• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাজনাথের ‘শস্ত্র পূজা’, কংগ্রেস বলছে ‘তামাশা’

Rajnath Singh
ছবি: পিটিআই।

Advertisement

যুদ্ধবিমান রাফালের গায়ে লেখা হল ‘ওম’। চাকার নীচে রাখা হল লেবু। প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহের এমন ‘শস্ত্র পূজা’ নিয়ে সৃষ্টি হল বিতর্কের। আজ কংগ্রেস একে ‘তামাশা’ আখ্যা দিতেই বিজেপি টেনেছে বফর্স প্রসঙ্গ। বলেছে, যাঁরা কুত্রোচ্চিকে পুজো করেন, তাঁদের জন্য ‘শস্ত্র পূজা’ সত্যিই সমস্যার।

মঙ্গলবার ফ্রান্সের বোর্দোয় আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রথম রাফাল যুদ্ধবিমানটি হাতে মেলার পরে সেটির গায়ে ওম চিহ্ন এঁকে, ফুল দিয়ে, নারকেল ফাটিয়ে, যুদ্ধবিমানের চাকার নীচে লেবু রেখে ‘শস্ত্র পূজা’ সারেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী।  বিজয়া দশমীর ‘রীতি মেনে’ রাজনাথের এই  ‘শস্ত্র পূজা’ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনা চলেছে দিনভর। কেউ লিখেছেন, দেশকে রক্ষা করার জন্য প্রথমে কেনা হল রাফাল। তার পরে রাফালকে রক্ষা করতে কেনা হল লেবু!’’ বিমানের চাকার নীচে লেবুর ছবিকে তুলে ধরে দক্ষিণী অভিনেতা মামুটির কটাক্ষ, ‘‘লেবুর জুস বানানোর জন্য রাফাল কিনছে না কি ভারত?’’ কংগ্রেসের মল্লিকার্জুন খড়্গে বলেন, ‘‘এই ধরনের তামাশার প্রয়োজন নেই। কংগ্রেস যখন বফর্স কিনেছিল, লোক দেখানোর জন্য সে সব আনতে কেউ বিদেশেও যায়নি।’’ ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর কুসংস্কার দেখে গোটা বিশ্ব কী ভাবছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন দলের আর এক নেতা উদিত রাজ। 

সমালোচনার জবাব দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তাঁর মতে, শস্ত্র পূজা ভারতে দীর্ঘ দিন ধরে প্রচলিত। তিনি বলেন, ‘‘কোন বিষয়কে সমর্থন করবে, কোনটি করবে না, কংগ্রেসের তা ভাবা উচিত।’’ মহারাষ্ট্রে ভোটের মুখে কংগ্রেস নেতা সঞ্জয় নিরুপম অমিতকে সমর্থন করেছেন। তাঁর মন্তব্য, ‘‘শস্ত্র পূজা দেশের পুরনো রীতি, একে তামাশা বলা যায় না।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন