• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কংগ্রেসের পাশে, বার্তা সীতারামের

Sitaram Yechury
—ফাইল চিত্র।

পশ্চিমবঙ্গে বন্ধুত্ব। কেরলে রেষারেষি। রাজস্থানে সমর্থন। তিন রাজ্যে কংগ্রেস নিয়ে সিপিএম তিন রকম অবস্থানে।

বাংলায় যতই বাম-কংগ্রেস বোঝাপড়া হোক, কেরলে কংগ্রেসের জোট ও বিজেপি এক সঙ্গে মিলে বাম সরকারে অস্থিরতা তৈরির চেষ্টা করছে বলে আজ সিপিএম অভিযোগ তুলল। একই সঙ্গে জানিয়ে দিল, রাজস্থানে বিজেপি কংগ্রেসের সরকার ফেলার চেষ্টা করলে সিপিএমের দুই বিধায়ক কংগ্রেসের পাশেই থাকবে।

শনি ও রবিবার কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকের পরে আজ সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি দলীয় অবস্থান জানিয়ে পিনারাই সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছেন। কিন্তু একই সঙ্গে জানিয়েছেন, পার্টির নেতৃত্ব কাউকেই ‘ক্লিনচিট’ দিচ্ছে না। তিনি বলেন, কেরলের সোনা-পাচার কাণ্ডকে হাতিয়ার করে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউডিএফ ও বিজেপি এক সঙ্গে মিলে পিনারাই বিজয়নের সরকারে অস্থিরতা তৈরির চেষ্টা করছে। কেরলের মানুষ কংগ্রেস জোট ও বিজেপি-র অস্থিরতা তৈরির চেষ্টাকে হারিয়ে দেবে। পাশাপাশি ইয়েচুরির ইঙ্গিত, রাজস্থানে বিজেপির সরকার ফেলার চেষ্টাকে রুখতে দুই সিপিএম বিধায়ক কংগ্রেসের পাশে দাঁড়াবে। তেমনটাই দলের সিদ্ধান্ত।  

কেরল প্রসঙ্গে আজ ইয়েচুরি বলেন, “শুল্ক দফতর সোনা পাচার ধরেছে। তা রাজ্য সরকারের আওতার মধ্যে পড়ে না। মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রীয় সংস্থার তদন্ত চেয়েছেন। এনআইএ তদন্ত করছে। দোষীদের শাস্তি হবে।” কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে পিনারাই সরকারের সঙ্গে কেপিএমজি, প্রাইসওয়াটারহাউস কুপার্সের মতো সংস্থার চুক্তি নিয়ে আলোচনা হলেও তা নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি ইয়েচুরি। লকডাউন থেকে গা-ঝাড়া দিয়ে দলকে চাঙ্গা করতে পার্টির সমস্ত শাখাকে ২০ থেকে ২৬ অগস্ট মোদী সরকারের বিরুদ্ধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিবাদে নামানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিপিএম।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন