মাসে বিদ্যুতের বিলে ২০০ ইউনিট হলে আর চিন্তা নেই দিল্লিবাসীর। কোনও পয়সাই দিতে হবে না। আর বিল যদি থাকে ২০১ থেকে ৪০০-র মধ্যে, তা হলেও এখন ইউনিট-পিছু যে দামে বিদ্যুৎ কিনতে হয় দিল্লির নাগরিকদের, আজ, বৃহস্পতিবার থেকে তা অর্ধেক হয়ে গেল। কারণ, বাকি ৫০ শতাংশ ভর্তুকি দেবে দিল্লি সরকার।

মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল এ দিন এ কথা ঘোষণা করেছেন। বলেছেন, ‘‘দেশে এখন সবচেয়ে সস্তায় বিদ্যুৎ মিলবে দিল্লিতেই। আম আদমির জন্য এটা ঐতিহাসিক পদক্ষেপ।’’

কেজরীবাল সরকার দিল্লিতে আরও একটি নজির গড়ল। বিদ্যুতের বিল যাঁদের কোনও মাসেই ২০০ ইউনিটের বেশি হয় না, তাঁদের জন্য চালু হল ‘ফ্রি লাইফলাইন ইলেকট্রিসিটি’ প্রকল্প। এই প্রকল্পের আওতায় যাঁরা থাকবেন, তাঁদের বাড়িতে কোনও দিনই বিদ্যুতের বিল পাঠানো হবে না।

আরও পড়ুন- সিসিডি কর্তার ‘আত্মহত্যা’য় উঠছে ‘আয়কর সন্ত্রাস’-এর অভিযোগ

আরও পড়ুন- উন্নাও মামলা সরছে দিল্লিতে, বিজেপি থেকে বহিষ্কৃত সেঙ্গার, ৭ দিনে তদন্ত করার নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের​

এই প্রকল্প চালুর কথা ঘোষণা করে এ দিন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী নিজেই প্রশ্ন তুলেছেন, ‘‘বড় বড় রাজনীতিক আর ভিআইপি-রাও বিনা পয়সায় বিদ্যুৎ পাবেন, এটা নিয়ে কেউ কোনও প্রশ্ন তোলেননি এখনও পর্যন্ত। আম আদমিকে কেন ঠকাব? আপনারাই বলুন, আমার এই পদক্ষেপে কি কোনও ভুলত্রুটি রয়েছে?’’

কেজরীর মতে, মাসে যাঁদের বিদ্যুতের বিল ২০০ ইউনিটের বেশি হয় না, দিল্লির এমন ৩৩ শতাংশ গ্রাহক এর ফলে উপকৃত হবেন। তাঁর কথায়, ‘‘শীতে তো দিল্লির ৭০ শতাংশ মানুষেরই মিটার থাকে ২০০ ইউনিটের মধ্যে। সে ক্ষেত্রে বহু মানুষ উপকৃত হবেন এই পদক্ষেপে।’’