ভারতে পরিসংখ্যান নিয়ে চর্চার জনক তিনি। শুক্রবার ১২৫তম জন্মদিনে সেই প্রশান্তচন্দ্র মহলানবিশকে ডুডলে শ্রদ্ধা জানাল গুগল। সার্চ ইঞ্জিনে এই ডুডলটি উৎসর্গ করা হয়েছে পিসি মহলানবিশকেই। ডুডলটি এঁকেছেন নিশান্ত চোকসি।

দেশে পরিসংখ্যানবিদ্যার চর্চা শুরু হয় তাঁর হাত ধরেই। জনগণনার সময় এখনও পর্যন্ত তাঁর আবিষ্কৃত ‘মহলানবিশ ডিসট্যান্স’ পদ্ধতিটিই ব্যবহার করা হয়। প্রেসিডেন্সি কলেজে অধ্যাপনা করার সময়ই তাঁর মনে হয়েছিল, পরিসংখ্যানবিদ্যা চর্চার জন্য পৃথক কোনও প্রতিষ্ঠানের প্রয়োজন। ১৯৩১ সালে কলকাতার বরানগরে তিনি ইন্ডিয়ান স্ট্যাটিস্টিক্যাল ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করেন।

ভারতের মতো এত বড় একটা দেশে তথ্য সংগ্রহ এবং সেই তথ্য বিশ্লেষণের মতো দুরূহ কাজ সহজ হয়েছিল তাঁর প্রচলন করা পদ্ধতি অনুসরণ করেই। ন্যাশনাল স্যাম্পেল সার্ভে অফিস (এনএসএসও) এবং সেন্ট্রাল স্ট্যাটিস্টিক্যাল অর্গানাইজেশনের (সিএসও) মাধ্যমে তিনিই দেশের মধ্যে প্রথম একটি সার্বিক পরিসংখ্যান ব্যবস্থা গড়ে তোলেন।

গুগল ডুডলে শ্রদ্ধা প্রশান্তচন্দ্র মহলানবিশকে। ছবি গুগল থেকে নেওয়া।

সংখ্যাতত্ত্বের বিষয়ে তাঁর পাণ্ডিত্যকে কাজে লাগাতে দেশের প্রথম যোজনা কমিশনেরও সদস্য করা হয় প্রশান্ত মহলানবিশকে। জনসংখ্যা, মাথাপিছু খরচ, ফসলের উৎপাদন, এমনকি নৃতত্ত্ব, অর্থনীতি, পদার্থবিদ্যার গবেষণার ক্ষেত্রেও তাঁর অবদান অপরিসীম। ১৮৯৩ সালের ২৯ জুন পশ্চিমবঙ্গেই জন্ম হয়েছিল মহলানবিশের।

আরও খবর: পাকিস্তানে কষা হয় হত্যার ছক, লস্কর-ই-তৈবার নির্দেশেই খুন শুজাত বুখারি

সংবিধানে ৬০ বছরের পুরনো ‘টাইপো’ ঠিক করার আবেদন ফ্রান্সে