• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বর্ণিকা: অবশেষে গ্রেফতার বিজেপি নেতার ছেলে

Vikas Varala
হরিয়ানা বিজেপি সভাপতি সুভাষ বরালার ছেলে বিকাশকে বুধবার গ্রেফতার করা হয়েছে।- ফাইল চিত্র।

বর্ণিকা কুণ্ডুর গাড়ির পিছনে ধাওয়া করা হরিয়ানা বিজেপি সভাপতি সুভাষ বরালার ছেলে বিকাশ ও তাঁর বন্ধু আশিসকে শেষ পর্যন্ত গ্রেফতার করা হল। বিকাশের বিরুদ্ধে নারী অপহরণের চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর আগে তাঁর বিরুদ্ধে এক মহিলার পিছনে ধাওয়া করা ও মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানোর তুলনামূলক লঘু অভিযোগ আনা হয়েছিল। সিসিটিভি’র ফুটেজের ভিত্তিতেই তাঁদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

শনিবার রাতে বর্ণিকা কুণ্ডুর গাড়ির পিছনে তাঁদের এসইউভি গাড়ি নিয়ে ধাওয়া করেছিলেন বিকাশ ও তাঁর বন্ধু আশিস। তার পর তাঁদের আটক করে পুলিশ। পরে তাঁদের ছেড়েও দেওয়া হয়।

ওই ঘটনার পর তাঁর ফেসবুক পোস্টে বর্ণিকা লেখেন, ‘‘সে দিন যে ভাবে ওরা আমার পিছু ধাওয়া করেছিল, তাতে বরাত জোরে আমি বেঁচে গিয়েছি। আমার ভাগ্য ভাল যে, আমাকে ধর্ষিতা হতে হয়নি!’’

আরও পড়ুন- সেই রাতে বর্ণিকাকে ধাওয়া করেছিল বিকাশের গাড়ি, প্রমাণ দিচ্ছে সিসিটিভি

আরও পড়ুন- নীতীশকে ফের ধাক্কা দিয়ে আহমেদ পটেলকে অভিনন্দন শরদের

এর পরেই নিন্দা-সমালোচনার ঝড় বয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। ইস্তফার দাবি ওঠে হরিয়ানা বিজেপি সভাপতি সুভাষ বরালার। অভিযোগ ওঠে, বিকাশের ঘটনাকে লঘু করার চেষ্টা করছে হরিয়ানার শাসক দল বিজেপি। তার প্রেক্ষিতে বুধবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে রাজ্য বিজেপি সভাপতি বলেন, ‘‘আমরা আইন মেনে চলি।’’

সোশ্যাল মিডিয়া প্রতিবাদে সরব হওয়ায় থানায় হাজিরা দেওয়ার জন্য গতকাল সমন পাঠানো হয় বিকাশকে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁকে এ দিন সকাল ১১টায় থানায় যেতে বলা হয়। কিন্তু বুধবার নির্ধারিত সময়ের তিন ঘণ্টা পর থানায় হাজিরা দেন বিকাশ। দুপুর ২টো নাগাদ। বিকাশকে যাতে জনতার রোষের মুখে পড়তে না হয়, সে জন্য এ দিন পুলিশে পুলিশে ছয়লাপ ছিল থানার সামনের চত্বর।

আরও পড়ুন- চিনে ভয়ঙ্কর ভূমিকম্প, শতাধিক মৃত্যুর আশঙ্কা

থানায় হাজিরা দিতে কেন দেরি হল ছেলের, তার কৈফিয়ত দিতে গিয়ে হরিয়ানার বিজেপি সভাপতি সুভাষ বরালা সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘সমনটা যখন হাতে পাই আমরা, তখন বিকাশকে চণ্ডীগড়ে চলে যেতে হয়েছিল। পুলিশের সঙ্গে সব রকম সহযোগিতা করতে সেখান থেকে ফিরেই হাজিরা দিতে গিয়েছে বিকাশ।’’ সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময়েই রাজ্য বিজেপি সভাপতির কাছে থানা থেকে ফোন আসে তাঁর ছেলে বিকাশের।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন