• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রফার চেষ্টা চালাচ্ছে নয়াদিল্লি ও বেজিং

Ladakh
ছবি রয়টার্স।

লাদাখে সংঘর্ষের আবহে ‘ভুল বোঝাবুঝি মেটানোর’ চেষ্টা করবে ভারত ও চিন। দু’দেশের বিদেশ মন্ত্রকের আধিকারিকদের বৈঠকে আজ এই সিদ্ধান্ত হয়েছে।

ভারত ও চিনের সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে আজ ‘ওয়ার্কিং মেকানিজম অব কনসালটেশন অ্যান্ড কোয়র্ডিনেশন’-এর ভার্চুয়ালবৈঠক হয়। এর পরে নয়াদিল্লিতে বিদেশ মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (এলএসি)-র পরিস্থিতি পর্যালোচনা করেছে দু’দেশ। সম্প্রতি ভারত ও চিনের শীর্ষ কমান্ডারদের ষষ্ঠ বৈঠকে যে ‘ইতিবাচক’ দিকগুলি সামনে এসেছিল, তা নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিদেশ মন্ত্রক জানিয়েছে, বৈঠকে চিনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এলএসি-র পরিস্থিতি নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি দূর করা প্রয়োজন। সামরিক বাহিনীর কমান্ডারদের বৈঠকে যে সব বিষয়ে একমত হওয়া সম্ভব হয়েছে, তার রূপায়ণ জরুরি। সে ক্ষেত্রে কমান্ডারদের মধ্যে আলোচনা আরও বাড়াতে সম্মত হয়েছে দু’দেশ। গত ২১ সেপ্টেম্বর ভারত ও চিনের সামরিক বাহিনীর কমান্ডারদের প্রায় ১৪ ঘণ্টা ধরে চলা বৈঠকে লাদাখে উত্তেজনা কমানোর ব্যাপারে ফয়সালা হয়েছিল। সিদ্ধান্ত হয়েছিল, সীমান্তে আরও সেনা পাঠানো বন্ধ করা হবে। একতরফা ভাবে কোনও পদক্ষেপ করবে না দু’দেশের সেনাবাহিনী। আরও সিদ্ধান্ত হয়েছিল যে, এমন কোনও কিছু করা হবে না, যাতে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়ে ওঠে। 

বিদেশ মন্ত্রক আরও জানিয়েছে, ভারত ও চিনের বিদেশমন্ত্রীরা মস্কোয় যে সব বিষয়ে সহমত হয়েছিলেন, তা রূপায়ণ করার উপর আজ জোর দিয়েছে চিন। সে সময়ে সীমান্তে উত্তেজনা কমাতে পাঁচটি বিষয় নিয়ে দু’দেশের রাজনৈতিক নেতৃত্ব একমত হয়েছিলেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন