চিকিৎসকরাজানালেন আর কয়েক মুহূর্ত দেরি হলেই সব শেষ হয়ে যেত। বাঁচানো সম্ভব হত না সত্যনারায়ণ গুব্বালাকে। কিন্তু এক সিআইএসএফ জওয়ানের তৎপরতায় দ্বিতীয় বার জীবন ফিরে পেলেন তিনি।

অন্ধ্রপ্রদেশের বাসিন্দা গুব্বালা। মুম্বই এসেছিলেন কাজের জন্য। বাড়ি ফেরার জন্য শুক্রবার তিনি মুম্বই বিমানবন্দরে আসেন। বিমান ধরার ঠিক আগেই চরম বিপদ ঘটে গেল। বিমানবন্দরে ঢোকার পরেই হঠাৎই জ্ঞান হারান তিনি। মাটিতে পড়ে যান। কাছেই সিআইএসএফ-এর দুই জওয়ান পাহারায় ছিলেন। হঠাৎ তাঁরা দেখেন এক ব্যক্তি জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে পড়ে গিয়েছেন। সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা ছুটে আসেন কী হয়েছে দেখার জন্য।

ইতিমধ্যেই ওই দুই জওয়ানের মধ্যে এক জন এএসআই মোহিত কুমার শর্মা বুঝতে পারেন গুব্বালার হার্ট অ্যাটাক হয়েছে। বিন্দুমাত্র সময় নষ্ট না করে তিনি গুব্বালার হৃদযন্ত্রের উপর চাপ দেওয়া শুরু করেন। চিকিতৎসার পরিভাষায় যাকে কার্ডিও পালমোনারি রিসাসিটেশন (সিপিআর) বলা হয়। বিমানবন্দরে থাকা সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায় গুব্বালা পড়ে যাওয়ার পরই মোহিত কুমার তাঁকে সিপিআর দেন। ৩০ সেকেন্ড মতো সিপিআর-এর পরই জ্ঞান ফেরে গুব্বালার। তার পর তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছে, গুব্বালার শারীরিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল রয়েছে।

 

আরও পড়ুন: ১৮৮ যাত্রী নিয়ে মাঝ সমুদ্রে ভেঙে পড়ল ইন্দোনেশিয়ার বিমান

আরও পড়ুন: স্ট্রোকের এই উপসর্গগুলি সম্পর্কে সচেতন আছেন তো?

গোটা ঘটনাটি ধরা পড়েছে সিসিটিভি ফুটেজে। সেই ভিডিয়োই এখন ভাইরাল।

 

(কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী, গুজরাত থেকে মণিপুর - দেশের সব রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ খবর জানতে আমাদেরদেশবিভাগে ক্লিক করুন।)