পঞ্জাবে কংগ্রেস সরকারের অভ্যন্তরে অশান্তি অব্যাহত। সৌজন্যে মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিংহ এবং মন্ত্রী নভজ্যোত সিংহ সিধুর দ্বৈরথ। তাঁর হাত থেকে গুরুত্বপূর্ণ দফতর কেড়ে নেওয়ার পর মন্ত্রিসভার কোনও উপদেষ্টা কমিটিতে জায়গা হল না সিধুর।

পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী শুক্রবার টুইট করেন, উন্নয়নের গতিকে ত্বরান্বিত করতে আটটি উপদেষ্টা কমিটিতে রদবদল করা হয়েছে। ওই কমিটি সরকারের ফ্ল্যাগশিপ প্রকল্পগুলির কাজ খতিয়ে দেখবে। মুখ্যমন্ত্রী ব্যক্তিগত ভাবে নগরোন্নয়ন এবং মাদক-বিরোধী প্রচারের বিষয়টি দেখভাল করবেন। প্রশাসনের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, সিধু ছাড়া ওই উপদেষ্টা কমিটিতে জায়গা হয়নি চিকিৎসা শিক্ষা দফতরের মন্ত্রী ওমপ্রকাশ সোনিরও। তবে সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর বিবাদের কারণেই সিধুকে কোনও উপদেষ্টা কমিটিতে রাখা হয়নি। অমরেন্দ্রের সঙ্গে সিধুর সম্পর্কে যথেষ্টই ‘মধুর’। লোকসভা ভোটের প্রচারে মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করে সিধু প্রশ্ন তুলেছিলেন, ‘‘গুরু গ্রন্থ সাহিবকে অপবিত্র করা এবং ২০১৫ সালে পুলিশের গুলি চালনার ঘটনায় কেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী প্রকাশ সিংহ বাদল এবং তাঁর ছেলের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা চালু হল না।’’ তার জেরে পুর, পর্যটন এবং সংস্কৃতি দফতর থেকে সিধুকে সরিয়ে দেন অমরেন্দ্র। সিধুকে কম গুরুত্বপূর্ণ বিদ্যুৎ ও শক্তি দফতরের মন্ত্রী করা হয়েছে। ওই দফতরের দায়িত্ব এখনও গ্রহণ করেননি সিধু।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।