আইএস-এর সহযোগী একটি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে শনিবার দিল্লি থেকে মহম্মদ গুফরান নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল এনআইএ। অভিযোগ, ওই সংগঠনটি রাজধানীতে আত্মঘাতী হামলা, বিস্ফোরণের ছক করেছিল। তাদের নিশানায় ছিল রাজনীতিক ও নানা সরকারি ভবন।

এনআইএ-র মুখপাত্র জানিয়েছেন, পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের অমরোহার বাসিন্দা মহম্মদ গুফরান আইএস মডিউলের মতোই হরকত উল হারব এ ইসলাম নামে একটি সংগঠন তৈরি করেছিলেন। সেখানে তাঁর সহযোগী এক ব্যক্তিকে আগেই গ্রেফতার করা হয়েছিল রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধে ঘোষণা করায়। দিল্লিতে হামলার চক্রান্তে অন্যতম মাথা ছিল গুফরান।

এনআইএ-র দাবি, রাজধানী ও উত্তরপ্রদেশে হামলার জন্য গুফরানই অস্ত্র, গুলি ও বিস্ফোরক জোগাড় করেছিল। তল্লাশি চালিয়ে দেশি রকেট লঞ্চার, আত্মঘাতী হানার জ্যাকেট, ১১২টি অ্যালার্ম ঘড়ি, ২৫কেজি বিস্ফোরকের উপকরণ, ৯১টি মোবাইল ফোন, ১৩৪টি সিম কার্ড, তিনটি ল্যাপটপ, তরোয়াল, ইলেকট্রিক তার ও স্টিলের কৌটো বাজেয়াপ্ত করেছে এনআইএ।

রবিবার তাকে পাটিয়ালা হাউস কোর্টে তোলা হবে। গুফরানকে নিয়ে এই মামলায় এখনও পর্যন্ত ১৩ জনকে গ্রেফতার করেছে এনআইএ।  

 দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯