দুষ্কৃতীর গুলিতে গুরুতর জখম বিখ্যাত পঞ্জাবি গায়ক পরমিশ বর্মা। শুক্রবার রাতে একটি অনুষ্ঠান সেরে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। সে সময়ে মোহালির সেক্টর-৭৪ এলাকায় তাঁর আবাসনের বাইরে তাঁকে গুলি করে দিলপ্রীত সিংহ ধহন নামে এক দুষ্কৃতী। পরে ফেসবুকে ওই হামলার দায়ও স্বীকার করেছে সে।

আপাতত মোহালির একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন পরমিশ। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, পায়ে গুলি লেগেছিল তাঁর। তবে এখন বিপদমুক্ত পরমিশ। চিকিৎসা চলছে।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাত দেড়টা নাগাদ অনুষ্ঠান সেরে এক বন্ধুর সঙ্গে ফিরছিলেন পরমিশ। আবাসনের ঠিক সামনেই তাঁকে গুলি করে পালায় এক দুষ্কৃতী। সঙ্গে সঙ্গে পরমিশকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

পরে ফেসবুকে একটি পোস্টে হামলার দায় স্বীকার করেছে দলপ্রীত সিংহ ধহন নামে ওই দুষ্কৃতী। পিস্তল হাতে নিজের একটি ছবি পোস্ট করে দলপ্রীত পঞ্জাবিতে লেখে, সেই পরমিশকে গুলি করেছে। এর আগেও নানাবিধ অপরাধমূলক কাজে নাম জড়িয়েছে দলপ্রীতের। মাথায় ঝুলছে একাধিক খুনের মামলাও। গত বছর এপ্রিল মাসে সেক্টর-৩৮ এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে দু’জনকে খুনের অভিযোগ ওঠে দলপ্রীতের বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন: 

উৎসবের শিকারে পশুহত্যা নয়, পণ দলমার

গান গেয়ে ক্রমশ জনপ্রিয় হচ্ছিলেন পরমিশ। গত বছর মুক্তি পায় তাঁর গাওয়া গান ‘গল নেহি করনাই’। ইউটিউবে এখনও পর্যন্ত ১১ কোটি ৮ লক্ষ বার দেখা হয়েছে ওই ভিডিও। কয়েক সপ্তাহ আগেই ‘শাদা’ বলে আরেকটি গান মুক্তি পায় পরমিশের। ইতিমধ্যে ইউটিউবে ২ কোটি ৭ লক্ষ বার দেখা হয়ে গিয়েছে সেটিও।

উঠতি গায়ক পরমিশের এই জনপ্রিয়তাই তাঁর শত্রু বাড়িয়েছিল বলে মনে করছেন পরমিশ-ঘনিষ্ঠদের একাংশ। পুলিশ সূত্রের খবর, পঞ্জাব পুলিশের মোস্ট ওয়ান্টে়ড তালিকায় শীর্ষে নাম রয়েছে দলপ্রীতের। ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তকে খুঁজছে পুলিশ।