ভোটের মরসুম এগিয়ে আসছে। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বিরোধী ঐক্যকে মসৃণ করার উদ্দেশ্যে সক্রিয়তা বাড়াচ্ছেন রাহুল গাঁধী, অখিলেশ সিংহ যাদব, মায়াবতীরা। গত কাল আগরায় উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা এসপি নেতা অখিলেশ যাদব দরাজ কণ্ঠে বার্তা দিয়েছেন, মায়াবতীর বিএসপি-র সঙ্গে ভবিষ্যতে জোট অটুট থাকবে। তার জন্য বাড়তি আসন ছাড়তেও যে দ্বিধা করবে না এসপি সে কথাও স্পষ্ট ভাবে জানিয়েছেন মুলায়ম-পুত্র। অন্য দিকে আজ রাহুল গাঁধীর বক্তব্য, ‘‘খুশির কথা, পুরো বিরোধী শিবির একজোট হচ্ছে। এটা কেউ আটকাতে পারবে না। আপনারা দেখবেন ৬-৭ মাসে হোক বা এক বছরে, নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ ও মোহন ভাগবতকে দেশ নিজের শক্তি দেখাবে। তাঁরা বুঝবেন, তিন জন ব্যক্তি ভারত চালাতে পারেন না। ভারত চালাবে দেশের জনতা ও যুব সম্প্রদায়।’’ মায়াবতীর পক্ষ থেকেও বিরোধী ঐক্যকে মজবুত করার ডাকই দেওয়া হয়েছে।

আগামিকাল দু’দিনের সফরে মহারাষ্ট্র সফরে যাচ্ছেন রাহুল গাঁধী। এই সফরের সময়ে শরিক নেতা শরদ পওয়ারের সঙ্গেও বৈঠক হতে পারে রাহুলের। মহারাষ্ট্রে কংগ্রেসের সঙ্গে এনসিপির জোটের ব্যাপারেও উভয়ের আলোচনা হতে পারে। পাশাপাশি বছরের শেষে মধ্যপ্রদেশ, ছত্তীসগঢ় এবং রাজস্থানের বিধানসভা নির্বাচনে কী ভাবে বিজেপির মোকাবিলা করা সম্ভব তা নিয়ে শীঘ্রই রাহুল বৈঠক করতে চলেছেন সংশ্লিষ্ট বিরোধী দলগুলির সঙ্গে।

আজ লখনউয়ে ইফতারের আয়োজন করেছেন অখিলেশ। আগামিকাল মধ্যপ্রদেশের দলীয় নেতাদের সঙ্গে কোন কোন আসনে তাঁর দলের সাংগঠনিক শক্তি জোরদার তা নিয়ে বৈঠকে বসছেন তিনি। দলের নেতা তথা অখিলেশ ঘনিষ্ঠ কিরণময় নন্দের কথায়, ‘‘নিজেদের শক্তি মধ্যপ্রদেশে কতটা তা ভাল করে বুঝে নিয়ে তারপরই অন্যান্য সমমনস্ক দলের সঙ্গে জোট করার দিকে এগোবো আমরা। ওই রাজ্যে দশ বছর আগেও যথেষ্ট ভাল শক্তি ছিল আমাদের। ৯ জন বিধায়ক এবং জবলপুর থেকে এক সাংসদও ছিলেন।’’

আরও পড়ুন: ভাইকে গুলি, মাথা নোয়াতে নারাজ কাফিল

গত কাল অখিলেশ জানিয়েছেন, ‘‘বিএসপি-র সঙ্গে আমাদের জোট বহাল থাকবে। বিজেপিকে হারাতে যদি আমরা প্রতি চারটি আসনের মধ্যে দু’টি করে আসনে লড়ার সুযোগ পাই তাহলেও পিছপা হব না।’’ এর আগে মায়াবতী জানিয়েছিলেন, ‘সম্মানজনক’ সংখ্যায় আসন পেলে তবেই তিনি অন্যান্য দলের সঙ্গে সমঝোতার পথে হাঁটবেন। রাজনৈতিক সূত্রের বক্তব্য, মায়াবতীর আশঙ্কাকে নির্মূল করতেই এই বার্তা দিয়েছেন অখিলেশ। বিএসপি সূত্রের খবর, অখিলেশের এই আহ্বানকে যথেষ্ট ইতিবাচক বলেই মনে করছেন মায়াবতী। আজ দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, উত্তরপ্রদেশের সাম্প্রতিক উপনির্বাচনগুলিতে বিরোধী ঐক্যের কাছে পরাজিত হয়েছে বিজেপি। লোকসভাতেও সেই জোট অটুটই থাকবে।