• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

এক সঙ্গে ৮৩টি উপগ্রহ পাঠিয়ে নয়া নজির গড়ার পথে ইসরো

pslv
ফাইল চিত্র।

আরও বড়সড় অভিযানের প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসরো। ২০১৭-র জানুয়ারিতে মহাকাশে এক সঙ্গে ৮৩টি উপগ্রহ পাঠাতে চলেছে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটি। এখনও পর্যন্ত এক সঙ্গে ৩৭টি উপগ্রহ পাঠানোর নজির রয়েছে রাশিয়ার দখলে। তার পরেই আমেরিকা, ২৯টি। এ বছরের ২২ জুন ২০টি উপগ্রহ পাঠিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। আগামী বছরে ইসরোর এই প্রচেষ্টা সফল হলে তা সব রেকর্ডকে ছাপিয়ে যাবে। আরও একটা নতুন পালক জুড়বে ভারতের মুকুটে। গত আড়াই বছরে মহাকাশ বিজ্ঞানে একের পর সাফল্যের পথে হেঁটেছে ভারত। যদি ২০১৭-র এই মিশন সফল হয়, তা হবে মহাকাশ বিজ্ঞানের ইতিহাসে একটা নয়া পদক্ষেপ।

মার্স অরবিটার মিশন (মম)-এর প্রোজেক্ট ডিরেক্টর সুব্বিয়া অরুণান মুম্বইয়ে অনুষ্ঠিত ব্র্যান্ড ইন্ডিয়া সামিট-এ জানান, মহাকাশে যে ৮৩টি উপগ্রহ পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসরো, তার মধ্যে ৬০টি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের, ২০টি ইউরোপের এবং ২টি ব্রিটেনের। ২০১৪-য় প্রথম প্রচেষ্টাতেই মঙ্গলের কক্ষপথে পৌঁছে বিশ্বকে চমকে দিয়েছিল ইসরো। আন্তর্জাতিক প্রশংসাও কুড়িয়েছিল এই অভাবনীয় সাফল্যের জন্য।

কী ভাবে এই মহা মিশনের প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসরো?

যে রকেটে চড়ে উপগ্রহেরা তাদের গন্তব্যে পৌঁছবে, সেই পোলার স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকল (পিএসএলভি)-কে আরও উন্নত প্রযুক্তিতে তৈরি করা হয়েছে। সমস্ত উপগ্রহকে কক্ষপথে ছেড়ে আসা পর্যন্ত সেই কক্ষেই অবস্থান করবে পিএসএলভি-এক্সএল। অরুণান জানিয়েছেন, এটাই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ইসরোর কাছে। প্রায় ১৬০০ কেজি ওজন নিয়ে মহাকাশে পাড়ি দেবে এই রকেট। অরুণান আরও জানান, ২০২০-তে মঙ্গলের পথে দ্বিতীয় বারের জন্য পাড়ি দেবে ভারত। এ বার মঙ্গলের আরও কাছে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত নেওয়া হচ্ছে।   

আরও খবর... 

রোগ সারানোর দাওয়াই লুকিয়ে কোষ মানচিত্রে

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন