Advertisement
২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Presents
Personal Finance 2023

জীবনের শুরুতে করা ভুল ব্যথা হয়ে দাঁড়ায় বেশি বয়সে

 শিক্ষা ঋণ থাকলে তা শোধ করায় মন দিন। ক্রেডিট কার্ডকে আপতকালীন ব্যবহারের অস্ত্র করুন।রেস্টুরান্টে খরচের উপায় হিসাবে নয়। মাথায় রাখুন ঋণ অস্থায়ী দায়। কিন্তু তাকে স্থায়ী দায় করে তুলবেননা। 

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১১:০৮
Share: Save:

বিশ্ববিদ্যালয়ের সীমানা পার করেই চাকরি। মাস গেলে এক থোক টাকা। আজকের দ্রুত গতির জীবনে বাজারও হাতের মুঠোয়। তাই উপভোগই শেষ কথা। তাই কি?

আজ থেকে বছর তিরিশেক আগেও সদ্য চাকরিতে ঢোকা যুবকের ঘাড়ে অনেক দায় থাকত। বাড়ি করার, অবসরপ্রাপ্ত বাবা-মার দেখাশোনা। কিন্তু এখনকার প্রজন্মের কাছে সেই দায় কমলেও প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে থেকে এগিয়ে যাওয়ার চাপটাও সাংঘাতিক। তাই দায় থাকলেও দায়ের চরিত্র বদলে গিয়েছে। আর তারই সঙ্গে এসেছে এই চাপের মধ্যে নিঃশ্বাস ফেলার নামে টাকা খরচের প্রবণতাও। কিন্তু কেউই ভাবতে রাজি নন যে আজকের এই টাকা খরচ করার প্রবণতা জীবনের শেষ ভাগে গিয়ে কতটা মূল্য চোকাতে বাধ্য করতে পারে।

এর মূলে অবশ্যই রয়েছে আর্থিক অজ্ঞানতা। আমাদের শিক্ষাব্যবস্থায় এখনও সঞ্চয়ের পাঠ আবশ্যিক নয়। সম্প্রতি কোনও কোনও বোর্ড এই বিষয়টিকে সিলেবাসের অংশ করতে এগিয়ে এলেও সে ভাবে এখনও তা ছড়িয়ে পড়েনি। আর তার ফলে সঞ্চয়ের অভ্যাসটা ছোটবেলা থেকেই আমাদের মজ্জায় ঢোকে না। যেটুকু আমরা দেখি তা যতটা না নিয়ম তার থেকেও অনেক বেশি ব্যতিক্রম।

আর সঞ্চয়ের নানান দিক নিয়ে প্রশিক্ষণের অভাবেই কিন্তু আজ প্রবীণ নাগরিকদের মধ্যে আর্থিক সমস্যা একটি চিন্তার বিষয় হয়ে উঠেছে। তাই কর্মজীবন শুরু করার দিন থেকেই নজর দিন এই দিকে।

  • শিক্ষা ঋণ থাকলে তা শোধ করায় মন দিন। ক্রেডিট কার্ডকে আপতকালীন ব্যবহারের অস্ত্র করুন। রেস্তোরাঁয় খরচের উপায় হিসাবে নয়। মাথায় রাখুন ঋণ অস্থায়ী দায়। কিন্তু তাকে স্থায়ী দায় করে তুলবেননা।
  • খরচকে নিজের আয়ের সীমার মধ্যে রাখুন। জীবনযাত্রার মানকে এমন জায়গায় বাঁধুন যাতে তা দায় হয়ে না দাঁড়ায়। আপনি কে তার পরিচয় কিন্তু গাড়ি বা বাড়ি দিয়ে নির্ধারিত হয় না।
  • মাথায় রাখুন আপতকালীন খরচের জন্য আপনার ক্রেডিট কার্ড থাকলেও যদি তা নিজের সযত্নে করা সঞ্চয় থেকে মেটাতে পারেন তার থেকে ভাল আর কিছু হয় না।
  • ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করাতেও লাভ আছে। আপনি এতে পয়েন্টস পাবেন। যা পরে ভাঙানো যায়। কিন্তু ক্রেডিট কার্ডের খরচ সব সময় তার বিলের সময়সীমার মধ্যেই চুকিয়ে দিন। না হলে অনেক সুদ দিতে হয়। সেই খরচটা কিন্তু বাঁচালে তা সঞ্চয়ের খাতায় যোগ হতে পারে।
  • বিমা করুন চাকরির প্রথম দিনেই। স্বাস্থ্যবিমায় নজর দিন।
  • যত কমই হোক প্রতি মাসের আয় থেকে সঞ্চয় করুন। যা দীর্ঘকালীন ভিত্তিতে করলে তার উপকার কিন্তু অনেক।
  • আর প্রথম মাসের টাকা ব্যাঙ্কে ঢোকার সঙ্গে সঙ্গেই সঞ্চয় উপদেষ্টার সঙ্গে যোগাযোগ করুন। সখ্য করুন তাঁর সঙ্গেই। তাঁর উপদেশ মেনে চললে যে লাভ হবে তা কিন্তু সময়ে বুঝবেন।

বিশেষজ্ঞদের কাছে সমাধান খুঁজতে সঞ্চয় নিয়ে আমাদের প্রশ্ন পাঠান — takatalk2023@abpdigital.in এই ঠিকানায় বা হোয়াটস অ্যাপ করুন এই নম্বরে — ৮৫৮৩৮৫৮৫৫২আপনার আয়, খরচ এবং সঞ্চয় জানাতে ভুলবেন না। পরিচয় গোপন রাখতে চাইলে অবশ্যই জানান।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE