Advertisement
২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Dinesh Phadnis Death

আমির, সুনীলদের সহ-অভিনেতা, করতেন লেখালিখিও, অকালে চলে গেলেন ‘সিআইডি’-র ইনস্পেক্টর

মুম্বইয়ের হাসপাতালে ‘লিভার ফেলিয়োর’-এর জেরে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন ‘সিআইডি’ খ্যাত আর এক অভিনেতা দয়ানন্দ ত্রিপাঠী ওরফে ‘দয়া’। দীনেশ বেশ কিছু দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন বলেও দয়ানন্দ জানিয়েছেন।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৬:৫৬
Share: Save:
০১ ১৭
প্রয়াত জনপ্রিয় টেলি সিরিয়াল ‘সিআইডি’ খ্যাত অভিনেতা দীনেশ ফড়নিশ। মৃত্যুর সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৭।

প্রয়াত জনপ্রিয় টেলি সিরিয়াল ‘সিআইডি’ খ্যাত অভিনেতা দীনেশ ফড়নিশ। মৃত্যুর সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৭।

০২ ১৭
মুম্বইয়ের হাসপাতালে ‘লিভার ফেলিয়োর’-এর জেরে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন ‘সিআইডি’ খ্যাত আর এক অভিনেতা দয়ানন্দ ত্রিপাঠী ওরফে ‘দয়া’। দীনেশ বেশ কিছু দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন বলেও জানিয়েছেন দয়ানন্দ।

মুম্বইয়ের হাসপাতালে ‘লিভার ফেলিয়োর’-এর জেরে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন ‘সিআইডি’ খ্যাত আর এক অভিনেতা দয়ানন্দ ত্রিপাঠী ওরফে ‘দয়া’। দীনেশ বেশ কিছু দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন বলেও জানিয়েছেন দয়ানন্দ।

০৩ ১৭
‘সিআইডি’-তে ইনস্পেক্টর ফ্রেডরিক্‌সের চরিত্রে অভিনয় করতেন দীনেশ। পেশায় গোয়েন্দা হলেও ফ্রেডরিক্‌স মোটেও রাশভারী ছিল না। বাস্তবেও দীনেশ মজা করে জীবনযাপন করতে ভালবাসতেন বলে জানিয়েছেন তাঁর ঘনিষ্ঠেরা।

‘সিআইডি’-তে ইনস্পেক্টর ফ্রেডরিক্‌সের চরিত্রে অভিনয় করতেন দীনেশ। পেশায় গোয়েন্দা হলেও ফ্রেডরিক্‌স মোটেও রাশভারী ছিল না। বাস্তবেও দীনেশ মজা করে জীবনযাপন করতে ভালবাসতেন বলে জানিয়েছেন তাঁর ঘনিষ্ঠেরা।

০৪ ১৭
দীনেশের জন্ম ১৯৬৬ সালের ২ নভেম্বর। ছোট থেকেই অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ তৈরি হয়েছিল।

দীনেশের জন্ম ১৯৬৬ সালের ২ নভেম্বর। ছোট থেকেই অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ তৈরি হয়েছিল।

০৫ ১৭
১৯৯৩ সালে ‘ফাসলে’ নামে এক টেলিভিশন সিরিয়াল দিয়ে অভিনয়ে হাতেখ়ড়ি দীনেশের।

১৯৯৩ সালে ‘ফাসলে’ নামে এক টেলিভিশন সিরিয়াল দিয়ে অভিনয়ে হাতেখ়ড়ি দীনেশের।

০৬ ১৭
১৯৯৮ সালে শুরু হয় বিপি সিংহ পরিচালিত ‘সিআইডি’। এই সিরিয়ালে এসিপি প্রদ্যুম্নর চরিত্রে অভিনয় করেন শিবাজি সাটম। সেই সিরিয়ালে ইনস্পেক্টর ফ্রেডরিক্‌সের চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পেয়ে যান দীনেশ।

১৯৯৮ সালে শুরু হয় বিপি সিংহ পরিচালিত ‘সিআইডি’। এই সিরিয়ালে এসিপি প্রদ্যুম্নর চরিত্রে অভিনয় করেন শিবাজি সাটম। সেই সিরিয়ালে ইনস্পেক্টর ফ্রেডরিক্‌সের চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পেয়ে যান দীনেশ।

০৭ ১৭
এর পর আর ফিরে তাকাতে হয়নি দীনেশকে। টানা ২০ বছর চুটিয়ে সিআইডি-তে অভিনয় করে গিয়েছেন দীনেশ। সেই সিরিয়াল এতটাই জনপ্রিয় হয়েছিল যে, তাঁকে আর অন্য কোথাও অভিনয়ের কথা ভাবতে হয়নি।

এর পর আর ফিরে তাকাতে হয়নি দীনেশকে। টানা ২০ বছর চুটিয়ে সিআইডি-তে অভিনয় করে গিয়েছেন দীনেশ। সেই সিরিয়াল এতটাই জনপ্রিয় হয়েছিল যে, তাঁকে আর অন্য কোথাও অভিনয়ের কথা ভাবতে হয়নি।

০৮ ১৭
ইনস্পেক্টর ফ্রেডরিকসের চরিত্রে রূপদান করেছিলেন দীনেশ। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সিরিয়ালটিতে একাধিক চরিত্রের আনাগোনা ঘটেছে। এক সময় এই সিরিয়াল থেকে অনেক তারকাও উঠে আসেন। কিন্তু দীনেশ, দয়ানন্দ, আদিত্য শ্রীবাস্তব সহ-কয়েক জন অভিনেতার জনপ্র

ইনস্পেক্টর ফ্রেডরিকসের চরিত্রে রূপদান করেছিলেন দীনেশ। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সিরিয়ালটিতে একাধিক চরিত্রের আনাগোনা ঘটেছে। এক সময় এই সিরিয়াল থেকে অনেক তারকাও উঠে আসেন। কিন্তু দীনেশ, দয়ানন্দ, আদিত্য শ্রীবাস্তব সহ-কয়েক জন অভিনেতার জনপ্র

০৯ ১৭
দীনেশ এক সাক্ষাৎকারে এক বার বলেছিলেন, ‘‘আমার মনে আছে আমি অভিনয়ের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলাম। কিন্তু কোনও কাজ পাচ্ছিলাম না। এর পর আমি প্রযোজক বিপি সিংহের সঙ্গে দেখা করি। তিনি আমাকে সিআইডিতে অভিনয়ের সুযোগ দেন। এভাবেই আমার যাত্রা শুরু হয়।”

দীনেশ এক সাক্ষাৎকারে এক বার বলেছিলেন, ‘‘আমার মনে আছে আমি অভিনয়ের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলাম। কিন্তু কোনও কাজ পাচ্ছিলাম না। এর পর আমি প্রযোজক বিপি সিংহের সঙ্গে দেখা করি। তিনি আমাকে সিআইডিতে অভিনয়ের সুযোগ দেন। এভাবেই আমার যাত্রা শুরু হয়।”

১১ ১৭
তবে সিআইডির পাশাপাশি ভৌতিক সিরিয়াল ‘আহট’ এবং কমেডি সিরিয়াল ‘তারক মেহতা কা উল্টা চশমা’ সিরিয়ালেও বার কয়েক মুখ দেখাতে দেখা গিয়েছিল দীনেশকে।

তবে সিআইডির পাশাপাশি ভৌতিক সিরিয়াল ‘আহট’ এবং কমেডি সিরিয়াল ‘তারক মেহতা কা উল্টা চশমা’ সিরিয়ালেও বার কয়েক মুখ দেখাতে দেখা গিয়েছিল দীনেশকে।

১২ ১৭
আমির খান অভিনীত ‘সরফরোশ’ এবং ‘মেলা’ ছবিতেও অভিনয় করেছিলেন দীনেশ। অভিনয় করেছিলেন সুনীল শেট্টি অভিনীত ‘অফিসার’ ছবিতেও।

আমির খান অভিনীত ‘সরফরোশ’ এবং ‘মেলা’ ছবিতেও অভিনয় করেছিলেন দীনেশ। অভিনয় করেছিলেন সুনীল শেট্টি অভিনীত ‘অফিসার’ ছবিতেও।

১৩ ১৭
সিআইডি-র জন্য দীনেশ এতটাই পরিচিতি পেয়েছিলেন যে, তাঁকে রাস্তাঘাটে মানুষে ইনস্পেক্টর ফ্রেডরিক্‌স নামেই ডাকতে শুরু করেন।

সিআইডি-র জন্য দীনেশ এতটাই পরিচিতি পেয়েছিলেন যে, তাঁকে রাস্তাঘাটে মানুষে ইনস্পেক্টর ফ্রেডরিক্‌স নামেই ডাকতে শুরু করেন।

১৪ ১৭
অভিনয় ছাড়াও বেশ কয়েকটি মরাঠি ছবির গল্পও লিখেছেন দীনেশ। এমনকি, সিআইডি-রও বেশ কয়েকটি পর্বের জন্য গল্প লিখেছেন তিনি।

অভিনয় ছাড়াও বেশ কয়েকটি মরাঠি ছবির গল্পও লিখেছেন দীনেশ। এমনকি, সিআইডি-রও বেশ কয়েকটি পর্বের জন্য গল্প লিখেছেন তিনি।

১৫ ১৭
মুম্বইয়ের বোরিভলি পূর্বে স্ত্রী এবং মেয়ের সঙ্গে থাকতেন দীনেশ। দীনেশের স্ত্রীর নাম নয়না এবং কন্যার নাম তনু।

মুম্বইয়ের বোরিভলি পূর্বে স্ত্রী এবং মেয়ের সঙ্গে থাকতেন দীনেশ। দীনেশের স্ত্রীর নাম নয়না এবং কন্যার নাম তনু।

১৬ ১৭
অভিনেতা সমাজমাধ্যমে বেশ সক্রিয় ছিলেন। প্রায়ই নিজের ছবি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করতেন। ইনস্টাগ্রাম দীনেশের ফলোয়ারের সংখ্যা প্রায় ১ লক্ষ।

অভিনেতা সমাজমাধ্যমে বেশ সক্রিয় ছিলেন। প্রায়ই নিজের ছবি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করতেন। ইনস্টাগ্রাম দীনেশের ফলোয়ারের সংখ্যা প্রায় ১ লক্ষ।

১৭ ১৭
সম্প্রতি হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন দীনেশ। তাঁকে মুম্বইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল। তাঁর অবস্থা ছিল সঙ্কটজনক। রাখা হয়েছিল ভেন্টিলেশনে। কিন্তু সব চেষ্টা ব্যর্থ করে মৃত্যু হল তাঁর। হাসপাতাল সূত্রে খবর, দীনেশের যকৃৎ বিকল হয়ে গিয়েছিল। তার জেরেই মৃত্যু হলে মনে করা হচ্ছে।

সম্প্রতি হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন দীনেশ। তাঁকে মুম্বইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল। তাঁর অবস্থা ছিল সঙ্কটজনক। রাখা হয়েছিল ভেন্টিলেশনে। কিন্তু সব চেষ্টা ব্যর্থ করে মৃত্যু হল তাঁর। হাসপাতাল সূত্রে খবর, দীনেশের যকৃৎ বিকল হয়ে গিয়েছিল। তার জেরেই মৃত্যু হলে মনে করা হচ্ছে।

সব ছবি: সংগৃহীত।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE