Advertisement
২৬ মে ২০২৪
2024 Predictions

নামের প্রথম ইংরেজি বর্ণ বলে দেয় অনেক কিছু, জেনে নিন কোন বর্ণের কেমন কাটবে ২০২৪

জ্যোতিষ শাস্ত্রে জাতকের নাম তাঁর সময় কেমন কাটবে সেই বিষয়ে যথেষ্ট প্রভাব ফেলে। নামের আদ্যক্ষর থেকে অনেক ক্ষেত্রে মানুষের প্রকৃতি ও স্বভাবের ধরনও বলে দেওয়া যায়।

শিলাদিত্য শাস্ত্রী
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৭ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৬:০৫
Share: Save:
০১ ২৭
নতুন বছর আসতে আর মাত্র কয়েকদিনের অপেক্ষা। জ্যোতিষ শাস্ত্রে জাতকের নাম তাঁর সময় কেমন কাটবে সেই বিষয়ে যথেষ্ট প্রভাব ফেলে। নামের আদ্যক্ষর থেকে অনেক ক্ষেত্রে মানুষের প্রকৃতি ও স্বভাবের ধরনও বলে দেওয়া যায়। দেখে নেওয়া যাক, আগামী বছর নামের আদ্যক্ষর অনুযায়ী কোন মানুষের কেমন কাটবে।

নতুন বছর আসতে আর মাত্র কয়েকদিনের অপেক্ষা। জ্যোতিষ শাস্ত্রে জাতকের নাম তাঁর সময় কেমন কাটবে সেই বিষয়ে যথেষ্ট প্রভাব ফেলে। নামের আদ্যক্ষর থেকে অনেক ক্ষেত্রে মানুষের প্রকৃতি ও স্বভাবের ধরনও বলে দেওয়া যায়। দেখে নেওয়া যাক, আগামী বছর নামের আদ্যক্ষর অনুযায়ী কোন মানুষের কেমন কাটবে।

০২ ২৭
A-নতুন বছরে নতুন প্রেম আসতে পারে জীবনে। তবে শারীরিক সমস্যাও হতে পারে। খাওয়াদাওয়ায় সংযম থাকা দরকার। বছরের মাঝামাঝি সময় থেকে পরিস্থিতি বদলাবে। এটা জেনে রাখা দরকার যে, নামের শুরুতে A থাকলে তাঁরা সাহসী ও আত্মবিশ্বাসী হন। যে কোনও কাজেই তাঁরা এগিয়ে এসে উদ্যোগ নেন। মস্তিষ্ক উদ্ভাবনী হয়। চরিত্র একদম জলের মতো। যখন যে পাত্রে ঢালা হবে, সে সেই পাত্রেরই আকার নেয়। তবে এঁরা খুবই সাহসী হওয়ায় সহজে এঁদের কেউ দমাতে পারে না।

A-নতুন বছরে নতুন প্রেম আসতে পারে জীবনে। তবে শারীরিক সমস্যাও হতে পারে। খাওয়াদাওয়ায় সংযম থাকা দরকার। বছরের মাঝামাঝি সময় থেকে পরিস্থিতি বদলাবে। এটা জেনে রাখা দরকার যে, নামের শুরুতে A থাকলে তাঁরা সাহসী ও আত্মবিশ্বাসী হন। যে কোনও কাজেই তাঁরা এগিয়ে এসে উদ্যোগ নেন। মস্তিষ্ক উদ্ভাবনী হয়। চরিত্র একদম জলের মতো। যখন যে পাত্রে ঢালা হবে, সে সেই পাত্রেরই আকার নেয়। তবে এঁরা খুবই সাহসী হওয়ায় সহজে এঁদের কেউ দমাতে পারে না।

০৩ ২৭
B- নতুন বছরে এঁরা অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেবেন। তাতে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই সাফল্য মিলবে। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে সেটা না হলেও এঁরা হতাশ হওয়ার পাত্র নন। যাঁদের নামের শুরুতেই ‘B’ বা ‘ব’ রয়েছে , তাঁরা খুবই প্রেমিক মনের মানুষ হন। সঙ্গীকে ভালবাসায় ভরিয়ে রাখতে পারেন। এমনিতে দায়িত্ববান থাকলেও এঁরা খুবই ধাক্কা খান অপরের থেকে। তবুও নিজের পরিজনকে আগলে রাখতে খুবই ভালোবাসেন। সামনের মানুষটির মনে কথা এঁরা সহজেই পড়ে ফেলতে পারেন।

B- নতুন বছরে এঁরা অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেবেন। তাতে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই সাফল্য মিলবে। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে সেটা না হলেও এঁরা হতাশ হওয়ার পাত্র নন। যাঁদের নামের শুরুতেই ‘B’ বা ‘ব’ রয়েছে , তাঁরা খুবই প্রেমিক মনের মানুষ হন। সঙ্গীকে ভালবাসায় ভরিয়ে রাখতে পারেন। এমনিতে দায়িত্ববান থাকলেও এঁরা খুবই ধাক্কা খান অপরের থেকে। তবুও নিজের পরিজনকে আগলে রাখতে খুবই ভালোবাসেন। সামনের মানুষটির মনে কথা এঁরা সহজেই পড়ে ফেলতে পারেন।

০৪ ২৭
C-  নতুন বছরটায় এঁদের পারিবারিক কলহ বাড়তে পারে। প্রথম দিকটায় একটু সতর্ক থাকতে হবে। অর্থ ও প্রেম ভাগ্য মাঝারি। তবে বছরের প্রথম ভাগ খানিক সুখেই কাটবে। সাধারণত বাঙালি নামের মধ্যে C এর প্রচলন কম। তবে যাঁদের নামের আগে এই বর্ণ থাকে তাঁরা খুবই মিশুকে প্রকৃতির হন। ৩ সংখ্যার যা গুণ রয়েছে, সেই গুণই এই বর্ণ দিয়ে শুরু নামের জাতক, জাতিকাদের মধ্যে থাকে। এঁরা সৃষ্টিশীল কাজে নিজেদের নিযুক্ত রাখেন। যে কোনও গঠনমূলক কাজের সঙ্গে নিজেকে জুড়তে ভালবাসেন। মিশুকে হওয়ার দরুণ যে কোনও সামাজিক কাজে এঁরা অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। অপরকে আকর্ষণ করতে পারেন।

C- নতুন বছরটায় এঁদের পারিবারিক কলহ বাড়তে পারে। প্রথম দিকটায় একটু সতর্ক থাকতে হবে। অর্থ ও প্রেম ভাগ্য মাঝারি। তবে বছরের প্রথম ভাগ খানিক সুখেই কাটবে। সাধারণত বাঙালি নামের মধ্যে C এর প্রচলন কম। তবে যাঁদের নামের আগে এই বর্ণ থাকে তাঁরা খুবই মিশুকে প্রকৃতির হন। ৩ সংখ্যার যা গুণ রয়েছে, সেই গুণই এই বর্ণ দিয়ে শুরু নামের জাতক, জাতিকাদের মধ্যে থাকে। এঁরা সৃষ্টিশীল কাজে নিজেদের নিযুক্ত রাখেন। যে কোনও গঠনমূলক কাজের সঙ্গে নিজেকে জুড়তে ভালবাসেন। মিশুকে হওয়ার দরুণ যে কোনও সামাজিক কাজে এঁরা অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন। অপরকে আকর্ষণ করতে পারেন।

০৫ ২৭
D-  নতুন বছর এঁদের অর্থাগম আশাতিরিক্ত হতে পারে। বছরের মাঝখান থেকে সেটা কমবে। তবে আয় যতই হোক টাকা থাকবে না। আয়ের সঙ্গে ব্যায়ের মাত্রাও বাড়বে। খরচের ক্ষেত্রে সংযমী হতে হবে। নামের প্রথম বর্ণ ডি হলে লক্ষ্যে পৌঁছতে এঁরা পরিশ্রম করতে পারেন। ব্যবসায় এঁরা বেশি সাফল্য পান। এই ব্যাক্তিরা যদি কোনও জিনিস নেবেন বলে ঠিক করেন তা হলে হাল ছাড়েন না। তবে চাকরি ক্ষেত্রেও উচ্চপদ পেয়ে যান। আসলে কোনও পরিশ্রমেই ভয় পান না। নিজেক গড়ে তোলার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি প্রশংসা প্রাপ্তির দাবি রাখেন। পরিবারের প্রতিও যথেষ্ট টান থাকে। তবে নিজেকে প্রমাণ করার লড়াইতে নেমে অনেক সময় কিছুটা স্বার্থপরের মতো আচরণ করে ফেলেন।

D- নতুন বছর এঁদের অর্থাগম আশাতিরিক্ত হতে পারে। বছরের মাঝখান থেকে সেটা কমবে। তবে আয় যতই হোক টাকা থাকবে না। আয়ের সঙ্গে ব্যায়ের মাত্রাও বাড়বে। খরচের ক্ষেত্রে সংযমী হতে হবে। নামের প্রথম বর্ণ ডি হলে লক্ষ্যে পৌঁছতে এঁরা পরিশ্রম করতে পারেন। ব্যবসায় এঁরা বেশি সাফল্য পান। এই ব্যাক্তিরা যদি কোনও জিনিস নেবেন বলে ঠিক করেন তা হলে হাল ছাড়েন না। তবে চাকরি ক্ষেত্রেও উচ্চপদ পেয়ে যান। আসলে কোনও পরিশ্রমেই ভয় পান না। নিজেক গড়ে তোলার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি প্রশংসা প্রাপ্তির দাবি রাখেন। পরিবারের প্রতিও যথেষ্ট টান থাকে। তবে নিজেকে প্রমাণ করার লড়াইতে নেমে অনেক সময় কিছুটা স্বার্থপরের মতো আচরণ করে ফেলেন।

০৬ ২৭
E-  নতুন ইংরাজি বছরটায় নিজের দিকে খেয়াল দিতে হবে বেশি করে। সাবধানে চলতে হবে। কাউকে বিশ্বাস করে ঠকার ভয় রয়েছে। অর্থভাগ্য মধ্যম। তবে পারিবারিক সুখ নিয়ে কোনও চিন্তা নেই। জীবনে চড়াই উতরাইয়ের মধ্য দিয়ে এঁরা চলেন। তবে, সব প্রতিকূলতার মধ্যেও সমস্ত কাজ সব সময়ে এঁরা নতুন উদ্যম নিয়ে করতে ভালবাসেন। সংখ্যাতত্ত্ব অনুযায়ী ৫ সংখ্যার সঙ্গে এঁদের সম্পর্ক রয়েছে। তবে ব্যাক্তিসত্ত্বার দিক থেকে এঁরা খুবই কল্পনাপ্রবণ। এই বর্ণ দিয়ে দিয়ে নাম শুরু হলে, সেই ব্যাক্তি খুবই উচ্চ হৃদয়ের মানুষ হন। তিনি ভালবাসতে জানেন, পাশপাশি ভালো রাখতেও জানেন। তবে উল্টো দিক থেকে যতটা ভালবাসা আশা করেন সেটা পান না। তাই মাঝে মাঝে হতাশা আসে।

E- নতুন ইংরাজি বছরটায় নিজের দিকে খেয়াল দিতে হবে বেশি করে। সাবধানে চলতে হবে। কাউকে বিশ্বাস করে ঠকার ভয় রয়েছে। অর্থভাগ্য মধ্যম। তবে পারিবারিক সুখ নিয়ে কোনও চিন্তা নেই। জীবনে চড়াই উতরাইয়ের মধ্য দিয়ে এঁরা চলেন। তবে, সব প্রতিকূলতার মধ্যেও সমস্ত কাজ সব সময়ে এঁরা নতুন উদ্যম নিয়ে করতে ভালবাসেন। সংখ্যাতত্ত্ব অনুযায়ী ৫ সংখ্যার সঙ্গে এঁদের সম্পর্ক রয়েছে। তবে ব্যাক্তিসত্ত্বার দিক থেকে এঁরা খুবই কল্পনাপ্রবণ। এই বর্ণ দিয়ে দিয়ে নাম শুরু হলে, সেই ব্যাক্তি খুবই উচ্চ হৃদয়ের মানুষ হন। তিনি ভালবাসতে জানেন, পাশপাশি ভালো রাখতেও জানেন। তবে উল্টো দিক থেকে যতটা ভালবাসা আশা করেন সেটা পান না। তাই মাঝে মাঝে হতাশা আসে।

০৭ ২৭
F-  নতুন বছরের গোটাটাই খুব ভাল যাবে। নাম, যশ, অর্থ সবই আসবে। প্রেমের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে। নিজেকে শান্ত রাখতে হবে, উত্তেজিত হলে চলবে না। এঁরা শান্তিপূর্ণ পরিবেশ, ভাল পোশাক পরিচ্ছদ এঁদের আকৃষ্ট করে। প্রকাশ না করলেও এঁরা খুবই রোম্যান্টিক হন। এঁরা খুব সহজ সরল মানুষ হন। কোনও বিষয়কে জটিলভাবে ভাবতেই পারেন না। খুবই সহানুভূতিশীল হন। অন্যের সমস্যায় ঝাঁপিয়ে পড়েন।

F- নতুন বছরের গোটাটাই খুব ভাল যাবে। নাম, যশ, অর্থ সবই আসবে। প্রেমের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে। নিজেকে শান্ত রাখতে হবে, উত্তেজিত হলে চলবে না। এঁরা শান্তিপূর্ণ পরিবেশ, ভাল পোশাক পরিচ্ছদ এঁদের আকৃষ্ট করে। প্রকাশ না করলেও এঁরা খুবই রোম্যান্টিক হন। এঁরা খুব সহজ সরল মানুষ হন। কোনও বিষয়কে জটিলভাবে ভাবতেই পারেন না। খুবই সহানুভূতিশীল হন। অন্যের সমস্যায় ঝাঁপিয়ে পড়েন।

০৮ ২৭
G-  নতুন বছরটা খুবই সতর্ক থাকতে হবে। চাকরিজীবীদের ভাগ্য মধ্যম। ব্যবসায় মন্দা হতে পারে। তবে সেটা খুব যে কষ্টের মধ্যে রাখবে তা নয়। হিসাব করে খরচ করতে হবে। অর্থ ভাগ্য মধ্যম। তবে এমন একটা বড় সাফল্য পেতে পারেন যা তা সারা জীবনের কষ্ট ভুলিয়ে মনে আনন্দ এনে দেবে। এমনিতেই ধর্ম বিষয়ে এঁদের নিষ্ঠা ও ভক্তি অতুলনীয় থাকে। কম বয়সে না থাকলেও মাঝ বয়সের পরে ধর্মের প্রতি টান খুব বাড়ে। এঁরাও পরোপকারি হয়ে থাকেন। তবে এঁরা প্রেমকে খুবই পবিত্র মনে করেন। টাকা পয়সার বিষয়ে খুব একটা লোভ থাকে না। যে কোনও অন্যায়ের প্রতিবাদ করেন। তবে এঁদের রাগও খুব বেশি হয়

G- নতুন বছরটা খুবই সতর্ক থাকতে হবে। চাকরিজীবীদের ভাগ্য মধ্যম। ব্যবসায় মন্দা হতে পারে। তবে সেটা খুব যে কষ্টের মধ্যে রাখবে তা নয়। হিসাব করে খরচ করতে হবে। অর্থ ভাগ্য মধ্যম। তবে এমন একটা বড় সাফল্য পেতে পারেন যা তা সারা জীবনের কষ্ট ভুলিয়ে মনে আনন্দ এনে দেবে। এমনিতেই ধর্ম বিষয়ে এঁদের নিষ্ঠা ও ভক্তি অতুলনীয় থাকে। কম বয়সে না থাকলেও মাঝ বয়সের পরে ধর্মের প্রতি টান খুব বাড়ে। এঁরাও পরোপকারি হয়ে থাকেন। তবে এঁরা প্রেমকে খুবই পবিত্র মনে করেন। টাকা পয়সার বিষয়ে খুব একটা লোভ থাকে না। যে কোনও অন্যায়ের প্রতিবাদ করেন। তবে এঁদের রাগও খুব বেশি হয়

০৯ ২৭
H-  নতুন বছরে নতুন কিছু আশা না করাই ভাল। রাগ কমাতে হবে। অকারণে দুর্নামের সম্ভাবনা রয়েছে। অনেক সময়ে নিজের থেকে পরোপকারে এগিয়ে গিয়ে প্রতিদান নাও মিলতে পারে। অর্থভাগ্য মধ্যম। মনে রাখবেন, নামের শুরু যাঁদের ‘H’ বা ‘হ’ দিয়ে, তাঁরা সৃষ্টিশীল কাজে যুক্ত হতে পারেন। এই ইংরাজি বর্ণটির সঙ্গে ৮ সংখ্যাটি সম্পর্কিত। যা সৃষ্টি ও ক্ষমতাকে প্রকাশ করে। সব সময়ে সাফল্য না এলেও উৎসাহে ঘাটতি দেখা যায় না। কখনও কখনও সফল ব্যবসায়ীও হন এঁরা।

H- নতুন বছরে নতুন কিছু আশা না করাই ভাল। রাগ কমাতে হবে। অকারণে দুর্নামের সম্ভাবনা রয়েছে। অনেক সময়ে নিজের থেকে পরোপকারে এগিয়ে গিয়ে প্রতিদান নাও মিলতে পারে। অর্থভাগ্য মধ্যম। মনে রাখবেন, নামের শুরু যাঁদের ‘H’ বা ‘হ’ দিয়ে, তাঁরা সৃষ্টিশীল কাজে যুক্ত হতে পারেন। এই ইংরাজি বর্ণটির সঙ্গে ৮ সংখ্যাটি সম্পর্কিত। যা সৃষ্টি ও ক্ষমতাকে প্রকাশ করে। সব সময়ে সাফল্য না এলেও উৎসাহে ঘাটতি দেখা যায় না। কখনও কখনও সফল ব্যবসায়ীও হন এঁরা।

১০ ২৭
I-  খুবই ভাল কাটবে ২০২৪ সালটা। ছোটখাট সমস্যা বাদ দিলে সারাটা বছরই অর্থ ও যশ ভাগ্য ভাল। বছরের মাঝামাঝি সময়ে বিদেশ ভ্রমণের সুযোগ আসতে পারে। হিসাব করে খরচ করুন। বিবেকবান হওয়ায়, এঁরা প্রতিটি বিষয় গভীরভাবে চিন্তা করেন। এই ব্যক্তিরা যে কোনও কারও দুঃখে সব রকমের ত্যাগ স্বীকার করতে রাজি হন। এঁদের উপরে চোখ বুজে নির্ভর করা যাতে পারে। প্রতিদানের আশাও করেন না। সহানুভূতির সঙ্গে বুদ্ধির মিশেলে এঁরা সকলের আস্থা অর্জন করেন।

I- খুবই ভাল কাটবে ২০২৪ সালটা। ছোটখাট সমস্যা বাদ দিলে সারাটা বছরই অর্থ ও যশ ভাগ্য ভাল। বছরের মাঝামাঝি সময়ে বিদেশ ভ্রমণের সুযোগ আসতে পারে। হিসাব করে খরচ করুন। বিবেকবান হওয়ায়, এঁরা প্রতিটি বিষয় গভীরভাবে চিন্তা করেন। এই ব্যক্তিরা যে কোনও কারও দুঃখে সব রকমের ত্যাগ স্বীকার করতে রাজি হন। এঁদের উপরে চোখ বুজে নির্ভর করা যাতে পারে। প্রতিদানের আশাও করেন না। সহানুভূতির সঙ্গে বুদ্ধির মিশেলে এঁরা সকলের আস্থা অর্জন করেন।

১১ ২৭
J-  যে লক্ষ্য নিয়ে চলছেন সেটা বজায় রাখুন নতুন বছরেও। আলস্য যেন এই জাতক জাতিকাদের প্রধান শক্তি মনোবল ভেঙে না দেয়। এই বছরটা অর্থভাগ্য ভাল। প্রেমভাগ্য মধ্যম। এই বর্ণ দিয়ে নাম শুরু হলে যেখানে যে পদেই থাকুন না কেন, এঁদের হাতে সব সময়ে ক্ষমতা থাকে। সব পরিস্থিতিতে প্রভাব বিস্তার করতে পারেন। কখনও কখনও ভুল পদক্ষেপ হলেও সেটা খুবই কম। ক্ষমতা ঠিক ছায়াসঙ্গী হয়ে যায়। এঁদের মধ্যে শিল্পী সত্ত্বাও থাকে। তবে কোনও কোনও সময়ে আলস্যও এঁদের চেপে ধরে। ফলে কাজের ক্ষেত্রে অসুবিধায় পড়েন।J  যে লক্ষ্য নিয়ে চলছেন সেটা বজায় রাখুন নতুন বছরেও। আলস্য যেন এই জাতক জাতিকাদের প্রধান শক্তি মনোবল ভেঙে না দেয়। এই বছরটা অর্থভাগ্য ভাল। প্রেমভাগ্য মধ্যম। এই বর্ণ দিয়ে নাম শুরু হলে যেখানে যে পদেই থাকুন না কেন, এঁদের হাতে সব সময়ে ক্ষমতা থাকে। সব পরিস্থিতিতে প্রভাব বিস্তার করতে পারেন। কখনও কখনও ভুল পদক্ষেপ হলেও সেটা খুবই কম। ক্ষমতা ঠিক ছায়াসঙ্গী হয়ে যায়। এঁদের মধ্যে শিল্পী সত্ত্বাও থাকে। তবে কোনও কোনও সময়ে আলস্যও এঁদের চেপে ধরে। ফলে কাজের ক্ষেত্রে অসুবিধায় পড়েন।

J- যে লক্ষ্য নিয়ে চলছেন সেটা বজায় রাখুন নতুন বছরেও। আলস্য যেন এই জাতক জাতিকাদের প্রধান শক্তি মনোবল ভেঙে না দেয়। এই বছরটা অর্থভাগ্য ভাল। প্রেমভাগ্য মধ্যম। এই বর্ণ দিয়ে নাম শুরু হলে যেখানে যে পদেই থাকুন না কেন, এঁদের হাতে সব সময়ে ক্ষমতা থাকে। সব পরিস্থিতিতে প্রভাব বিস্তার করতে পারেন। কখনও কখনও ভুল পদক্ষেপ হলেও সেটা খুবই কম। ক্ষমতা ঠিক ছায়াসঙ্গী হয়ে যায়। এঁদের মধ্যে শিল্পী সত্ত্বাও থাকে। তবে কোনও কোনও সময়ে আলস্যও এঁদের চেপে ধরে। ফলে কাজের ক্ষেত্রে অসুবিধায় পড়েন।J যে লক্ষ্য নিয়ে চলছেন সেটা বজায় রাখুন নতুন বছরেও। আলস্য যেন এই জাতক জাতিকাদের প্রধান শক্তি মনোবল ভেঙে না দেয়। এই বছরটা অর্থভাগ্য ভাল। প্রেমভাগ্য মধ্যম। এই বর্ণ দিয়ে নাম শুরু হলে যেখানে যে পদেই থাকুন না কেন, এঁদের হাতে সব সময়ে ক্ষমতা থাকে। সব পরিস্থিতিতে প্রভাব বিস্তার করতে পারেন। কখনও কখনও ভুল পদক্ষেপ হলেও সেটা খুবই কম। ক্ষমতা ঠিক ছায়াসঙ্গী হয়ে যায়। এঁদের মধ্যে শিল্পী সত্ত্বাও থাকে। তবে কোনও কোনও সময়ে আলস্যও এঁদের চেপে ধরে। ফলে কাজের ক্ষেত্রে অসুবিধায় পড়েন।

১২ ২৭
K-  নতুন বছরটা বেশ ভাল কাটবে। বিশেষ করে অর্থভাগ্য খুবই ভাল। তবে দুর্নামের যোগ রয়েছে বছরের শেষ দিকটায়। সতর্ক থাকতে হবে। এঁরা যে কোনও পরিস্থিতিতে সমতা রক্ষা করে চলেন। এই আদ্যাক্ষরের নামের মানুষদের মধ্যে এগগুঁয়ে ভাব থাকে। তাই বিপদে পড়লেও নিজেকে সেখান থেকে বের করে আনতে সক্ষম হন। আশপাশের লোকজনকে প্রভাবিত করতে পারেন। এই ধরণের মানুষরা কোনও জায়গায় অশান্তি শুরু হলে, শান্তি স্থাপনের জন্য এগিয়ে আসেন। যে কোনও ভাল কাজে এগিয়ে আসতে চান। কখনও কখনও তার জন্য দুর্নামও কুড়োতে হয়। তবে তাতে দমে যান না।

K- নতুন বছরটা বেশ ভাল কাটবে। বিশেষ করে অর্থভাগ্য খুবই ভাল। তবে দুর্নামের যোগ রয়েছে বছরের শেষ দিকটায়। সতর্ক থাকতে হবে। এঁরা যে কোনও পরিস্থিতিতে সমতা রক্ষা করে চলেন। এই আদ্যাক্ষরের নামের মানুষদের মধ্যে এগগুঁয়ে ভাব থাকে। তাই বিপদে পড়লেও নিজেকে সেখান থেকে বের করে আনতে সক্ষম হন। আশপাশের লোকজনকে প্রভাবিত করতে পারেন। এই ধরণের মানুষরা কোনও জায়গায় অশান্তি শুরু হলে, শান্তি স্থাপনের জন্য এগিয়ে আসেন। যে কোনও ভাল কাজে এগিয়ে আসতে চান। কখনও কখনও তার জন্য দুর্নামও কুড়োতে হয়। তবে তাতে দমে যান না।

১৩ ২৭
L - ২০২৪ সাল ভাল-মন্দ মিশিয়ে কাটবে। কখনও কখনও বড় বাধাও আসবে। তবে দৃঢ় মনে নিয়ে এগিয়ে যাবেন। অর্থভাগ্য মাঝারি। নতু প্রেম আসার সুযোগ কম। তবে সাংসারিক সুখ বিঘ্নিত হবে না। এমনিতেই এঁরা দানশীল হন। কারও দুঃখ কষ্ট দেখলে এগিয়ে যান। অপরের প্রয়োজনে জান প্রাণ লড়িয়ে দিতে পারেন। ইংরাজি বর্ণ মালার এই অক্ষরটি খুবই সৃষ্টির আকাঙ্খা তৈরি করে। এঁরা সবকিছুতেই আগ্রহ দেখান। সবই শিখতে চান। এই ধরনের মানুষরা সৃষ্টিশীল হন। ব্যবসা বা চাকরিতে নতুন কিছু করে দেখানোর চেষ্টা করেন। এঁরা পরিস্থিতি মতো নিজেকে বদলাতে জানেন। খুব মজাদার মানুষও হন এঁরা। পুজোর মাসটায় এঁরা সমাজে সুনাম অর্জন করতে পারেন। তবে তার জন্য পরিবারের প্রতি অবহেলার অভিযোগ উঠতে পারে।

L - ২০২৪ সাল ভাল-মন্দ মিশিয়ে কাটবে। কখনও কখনও বড় বাধাও আসবে। তবে দৃঢ় মনে নিয়ে এগিয়ে যাবেন। অর্থভাগ্য মাঝারি। নতু প্রেম আসার সুযোগ কম। তবে সাংসারিক সুখ বিঘ্নিত হবে না। এমনিতেই এঁরা দানশীল হন। কারও দুঃখ কষ্ট দেখলে এগিয়ে যান। অপরের প্রয়োজনে জান প্রাণ লড়িয়ে দিতে পারেন। ইংরাজি বর্ণ মালার এই অক্ষরটি খুবই সৃষ্টির আকাঙ্খা তৈরি করে। এঁরা সবকিছুতেই আগ্রহ দেখান। সবই শিখতে চান। এই ধরনের মানুষরা সৃষ্টিশীল হন। ব্যবসা বা চাকরিতে নতুন কিছু করে দেখানোর চেষ্টা করেন। এঁরা পরিস্থিতি মতো নিজেকে বদলাতে জানেন। খুব মজাদার মানুষও হন এঁরা। পুজোর মাসটায় এঁরা সমাজে সুনাম অর্জন করতে পারেন। তবে তার জন্য পরিবারের প্রতি অবহেলার অভিযোগ উঠতে পারে।

১৪ ২৭
M- এই বছরটায় একটু দু’দিক সামলে চলতে হবে। অপ্রিয় কথা বেশি না বলাই ভাল। বাড়ির অশান্তি বাইরের কাজে প্রভাব ফেলতে পারে। অর্থ ও যশভাগ্য বেশ ভাল। নামের শুরুতে যদি M থাকলে তাঁর উপর নির্ভর করা যায়। তিনি দায়িত্ব নিলে তা করেবেনই। এঁরা ভীষণ দৃঢ়চেতা। এঁরা মূলত কাজ নিয়ে থাকতে ভালোবাসেন। খুবই কাজের মানুষ। তবে নিয়মানুবর্তিতার বিষয়ে এঁরা খুবই দুর্বল। বাঁধাধরা জীবন এঁরা একেবারেই পছন্দ করেন না। তবে সততা নিয়ে কোনও প্রশ্ন তোলা য়াবে না।

M- এই বছরটায় একটু দু’দিক সামলে চলতে হবে। অপ্রিয় কথা বেশি না বলাই ভাল। বাড়ির অশান্তি বাইরের কাজে প্রভাব ফেলতে পারে। অর্থ ও যশভাগ্য বেশ ভাল। নামের শুরুতে যদি M থাকলে তাঁর উপর নির্ভর করা যায়। তিনি দায়িত্ব নিলে তা করেবেনই। এঁরা ভীষণ দৃঢ়চেতা। এঁরা মূলত কাজ নিয়ে থাকতে ভালোবাসেন। খুবই কাজের মানুষ। তবে নিয়মানুবর্তিতার বিষয়ে এঁরা খুবই দুর্বল। বাঁধাধরা জীবন এঁরা একেবারেই পছন্দ করেন না। তবে সততা নিয়ে কোনও প্রশ্ন তোলা য়াবে না।

১৫ ২৭
N-  নতুন বছরের গোড়ার দিকটা খুব একটা সুখকর হবে না। সারাটা বছরই ছোটখাট শারীরিক সমস্যায় ভুগতে হয়েছে। তাই নিয়ম মেনে খাওয়া দাওয়ার দিকে মন দিতে হবে। অর্থভাগ্য মধ্যম। এই বর্ণ দিয়ে নাম শুরু হলে স্বাধীনতাবোধ ও কল্পনা ইত্যাদি বিষয়কে প্রশ্রয় দেয়। এঁরা সবসময় কর্মঠ হন না। তবে সাহসী হন। এঁদের কোনও নিয়মমাফিক ছকে ধরে রাখা যায় না। কোন সময় এঁরা কী কাজ করবেন তা নিজেরা ছা়ড়া বাইরের কেউ সহজে বুঝতে পারেন না। খুবই স্পষ্টবাদী, সোজাসাপটা বক্তব্য রাখতে এঁরা ভালোবাসেন। নিজেদের মূ্ল্যবোধে অনড় থাকেন।

N- নতুন বছরের গোড়ার দিকটা খুব একটা সুখকর হবে না। সারাটা বছরই ছোটখাট শারীরিক সমস্যায় ভুগতে হয়েছে। তাই নিয়ম মেনে খাওয়া দাওয়ার দিকে মন দিতে হবে। অর্থভাগ্য মধ্যম। এই বর্ণ দিয়ে নাম শুরু হলে স্বাধীনতাবোধ ও কল্পনা ইত্যাদি বিষয়কে প্রশ্রয় দেয়। এঁরা সবসময় কর্মঠ হন না। তবে সাহসী হন। এঁদের কোনও নিয়মমাফিক ছকে ধরে রাখা যায় না। কোন সময় এঁরা কী কাজ করবেন তা নিজেরা ছা়ড়া বাইরের কেউ সহজে বুঝতে পারেন না। খুবই স্পষ্টবাদী, সোজাসাপটা বক্তব্য রাখতে এঁরা ভালোবাসেন। নিজেদের মূ্ল্যবোধে অনড় থাকেন।

১৬ ২৭
O-  নতুন বছরটা এঁদের জন্য খুবই ভাল। জীবনে নতুন প্রেম আসার যোগ যেমন রয়েছে তেমনই অর্থভাগ্য খুবই ভাল। যশও আসবে। চাইলে রাজনীতিতে যোগ দিতে পারেন। এপনিতেই এই বর্ণ দিয়ে যাঁদের নাম শুরু তাঁরা ভালবাসা, আদরে, যত্নে এঁরা সকলকে নিজের করে নিতে পারেন। নামের শুরুতে এই বর্ণ থাকলে তাঁরা আপনজনদের খুবই আগলে রাখতে চান। এই মানুষদের কৌতূহল খুব বেশি থাকায়,তাঁরা সম্ভাবনাময় গবেষক হয়ে উঠতে পারেন। ন্যায়বোধে এই ধরনের মানুষরা খুবই আগ্রাসী হন। যে কোনও বিষয়ে নিজেকে পরিষ্কার রাখতে এঁরা খুবই উদ্যোগী হন।

O- নতুন বছরটা এঁদের জন্য খুবই ভাল। জীবনে নতুন প্রেম আসার যোগ যেমন রয়েছে তেমনই অর্থভাগ্য খুবই ভাল। যশও আসবে। চাইলে রাজনীতিতে যোগ দিতে পারেন। এপনিতেই এই বর্ণ দিয়ে যাঁদের নাম শুরু তাঁরা ভালবাসা, আদরে, যত্নে এঁরা সকলকে নিজের করে নিতে পারেন। নামের শুরুতে এই বর্ণ থাকলে তাঁরা আপনজনদের খুবই আগলে রাখতে চান। এই মানুষদের কৌতূহল খুব বেশি থাকায়,তাঁরা সম্ভাবনাময় গবেষক হয়ে উঠতে পারেন। ন্যায়বোধে এই ধরনের মানুষরা খুবই আগ্রাসী হন। যে কোনও বিষয়ে নিজেকে পরিষ্কার রাখতে এঁরা খুবই উদ্যোগী হন।

১৭ ২৭
P-  নতুন বছরটা এঁদের খুব বড় কিছু প্রাপ্তির আশা রয়েছে। সেটা সংসারের পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রেও। হঠাৎ করে হাতে অর্থ আসতে পারে। নতুন প্রেম আসলেও অবাক হবেন না। এমনিতেই কারও নাম যদি এই বর্ণ দিয়ে শুরু হয়, তা হলে তাঁর জীবনে আধ্যাত্মিকতা ঠিক চলে আসে। নীতির বাইরে যেতে চান না। সোজা কথা সোজ করে বলতে পারেন। গুছিয়ে কথা বলাতেও ওস্তাদ। এঁরা ভাল বাগ্মী হতে পারেন। তবে এঁরা জীবনে খুব বেশি ভোগ বিলাস পছন্দ করেন না। কিন্তু সকলের থেকে কী ভাবে আলাদা হয়ে থাকা যায় তা জানেন। মজার কথা বলে সকলকে খুশি রাখতেও পারেন। পরিশ্রমের জোরেই অর্থ উপার্জন বাড়বে। অর্থ সঞ্চয়ও করতে পারেন। বিনিয়োগ থেকেও ভাল মুনাফা পাবেন।

P- নতুন বছরটা এঁদের খুব বড় কিছু প্রাপ্তির আশা রয়েছে। সেটা সংসারের পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রেও। হঠাৎ করে হাতে অর্থ আসতে পারে। নতুন প্রেম আসলেও অবাক হবেন না। এমনিতেই কারও নাম যদি এই বর্ণ দিয়ে শুরু হয়, তা হলে তাঁর জীবনে আধ্যাত্মিকতা ঠিক চলে আসে। নীতির বাইরে যেতে চান না। সোজা কথা সোজ করে বলতে পারেন। গুছিয়ে কথা বলাতেও ওস্তাদ। এঁরা ভাল বাগ্মী হতে পারেন। তবে এঁরা জীবনে খুব বেশি ভোগ বিলাস পছন্দ করেন না। কিন্তু সকলের থেকে কী ভাবে আলাদা হয়ে থাকা যায় তা জানেন। মজার কথা বলে সকলকে খুশি রাখতেও পারেন। পরিশ্রমের জোরেই অর্থ উপার্জন বাড়বে। অর্থ সঞ্চয়ও করতে পারেন। বিনিয়োগ থেকেও ভাল মুনাফা পাবেন।

১৮ ২৭
Q-  এঁদের জীবনে সুখ আর দুঃখের আসা যাওয়া লেগেই থাকে। তবে নতুন বছরটায় সে ভাবে চিন্তার কিছু নেই। খুব ভাল কিছু না হলেও যেমন আছে তেমনই থাকবে পরিস্থিতি। হতাশার কোনও কারণ নেই। অর্থভাগ্য মধ্যম। নামের শুরু যাঁদের এই বর্ণ দিয়ে হয়, তাঁরা জন্ম সূত্রেই ধন সম্পত্তির প্রাচুর্য পেয়ে থাকেন কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া। এঁদের মধ্যে একটা অদ্ভুত নিজস্বতা থাকে। সকলের মধ্যে আলাদা করা যায়। বুদ্ধিমান হন। মেধায় অতুলনীয়। দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে পারেন। ইচ্ছাশক্তিও প্রবল।

Q- এঁদের জীবনে সুখ আর দুঃখের আসা যাওয়া লেগেই থাকে। তবে নতুন বছরটায় সে ভাবে চিন্তার কিছু নেই। খুব ভাল কিছু না হলেও যেমন আছে তেমনই থাকবে পরিস্থিতি। হতাশার কোনও কারণ নেই। অর্থভাগ্য মধ্যম। নামের শুরু যাঁদের এই বর্ণ দিয়ে হয়, তাঁরা জন্ম সূত্রেই ধন সম্পত্তির প্রাচুর্য পেয়ে থাকেন কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া। এঁদের মধ্যে একটা অদ্ভুত নিজস্বতা থাকে। সকলের মধ্যে আলাদা করা যায়। বুদ্ধিমান হন। মেধায় অতুলনীয়। দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে পারেন। ইচ্ছাশক্তিও প্রবল।

১৯ ২৭
R-  নতুন বছরে এঁদের অর্থাগাম হলেও যশ খুব একটা মিলবে না। প্রেমভাগ্যও খুব আশা ব্যাঞ্জক নয়। তবে খরচ নিয়ে সতর্ক থাকতে হবে। হিসাব না রাখলে মাঝে মাঝেই চাপে পড়তে হবে।  নামের শুরু যদি এই বর্ণ দিয়ে হয় তবে, সেই মানুষের অনেক প্রচুর ইতিবাচক চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য থাকে। সাধারণত এঁরা খুবই সহ্যশীল। জ্ঞানের ক্ষেত্রে বিচারণ করতে এঁদের ভাল লাগে। সবেতেই জানা আগ্রহ। এই কারণে জীবনে প্রতিষ্ঠাও আসে। তবে কূটনৈতিক বোধ কম হয়। ফলে অনেক সময়েই এক পা এগিয়েও দু’পা পিছিয়ে আসতে হয়।

R- নতুন বছরে এঁদের অর্থাগাম হলেও যশ খুব একটা মিলবে না। প্রেমভাগ্যও খুব আশা ব্যাঞ্জক নয়। তবে খরচ নিয়ে সতর্ক থাকতে হবে। হিসাব না রাখলে মাঝে মাঝেই চাপে পড়তে হবে। নামের শুরু যদি এই বর্ণ দিয়ে হয় তবে, সেই মানুষের অনেক প্রচুর ইতিবাচক চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য থাকে। সাধারণত এঁরা খুবই সহ্যশীল। জ্ঞানের ক্ষেত্রে বিচারণ করতে এঁদের ভাল লাগে। সবেতেই জানা আগ্রহ। এই কারণে জীবনে প্রতিষ্ঠাও আসে। তবে কূটনৈতিক বোধ কম হয়। ফলে অনেক সময়েই এক পা এগিয়েও দু’পা পিছিয়ে আসতে হয়।

২০ ২৭
S-  এঁদের জন্য নতুন বছরটা খুবই ভাল। বাড়তি সুখ আসবে। সবেতে না হলেও কোনও একটা বিষয়ে এক নম্বর হওয়ার সুযোগ আসবে। অর্থাভাগ্যও সারা বছর খুবই ভাল। তবে নতুন প্রেম চাইলে হতাশ হতে হবে। এলেও স্থায়ী না হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। জেনে রাখা দরকার যে, নামের আদ্যাক্ষর S হলে, তারা সবসময়ে নতুন কিছু করার বিষয়ে উদ্যোগী হন। সব সময়ে মাথায় নতুন কিছু করার ভাবনা কাজ করে। এঁরা সবেতেই এক নম্বর হতে চান। ফলে মাঝে মাঝে হতাশ হতে হয়। এঁরা খুবই আত্মনির্ভর হন। নিজের কাজ নিজে করতেই পছন্দ করেন। অপরের জ্ঞান শোনেন, কিন্তু নিজের মতোই চলেন।

S- এঁদের জন্য নতুন বছরটা খুবই ভাল। বাড়তি সুখ আসবে। সবেতে না হলেও কোনও একটা বিষয়ে এক নম্বর হওয়ার সুযোগ আসবে। অর্থাভাগ্যও সারা বছর খুবই ভাল। তবে নতুন প্রেম চাইলে হতাশ হতে হবে। এলেও স্থায়ী না হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। জেনে রাখা দরকার যে, নামের আদ্যাক্ষর S হলে, তারা সবসময়ে নতুন কিছু করার বিষয়ে উদ্যোগী হন। সব সময়ে মাথায় নতুন কিছু করার ভাবনা কাজ করে। এঁরা সবেতেই এক নম্বর হতে চান। ফলে মাঝে মাঝে হতাশ হতে হয়। এঁরা খুবই আত্মনির্ভর হন। নিজের কাজ নিজে করতেই পছন্দ করেন। অপরের জ্ঞান শোনেন, কিন্তু নিজের মতোই চলেন।

২১ ২৭
T-  নতুন বছরটায় খুব কিছু আশা না করাই ভাল। যেমন চলছে তেমনই চলবে। তেমন খারাপও কিছু হবে না। মনে রাখবেন নামের শুরুতে T থাকলে, তাঁরা মূলত শান্তিপ্রিয় মানুষ হন। যে কোনও ঝামেলা এড়িয়ে যান। নিজের মতো থাকতে ভালবাসেন। যে কোনও পরিবেশে এঁরা মানানসই। নামের শুরুতে T থাকা মানে তিনি নিজের কাছে সব সময় সৎ থাকতে চান। এর জন্য অপরের দ্বারা সে ভাবে প্রভাবিত হন না।

T- নতুন বছরটায় খুব কিছু আশা না করাই ভাল। যেমন চলছে তেমনই চলবে। তেমন খারাপও কিছু হবে না। মনে রাখবেন নামের শুরুতে T থাকলে, তাঁরা মূলত শান্তিপ্রিয় মানুষ হন। যে কোনও ঝামেলা এড়িয়ে যান। নিজের মতো থাকতে ভালবাসেন। যে কোনও পরিবেশে এঁরা মানানসই। নামের শুরুতে T থাকা মানে তিনি নিজের কাছে সব সময় সৎ থাকতে চান। এর জন্য অপরের দ্বারা সে ভাবে প্রভাবিত হন না।

২২ ২৭
U-  শুরুর কয়েক মাস বাদ দিলে নতুন বছরটা সুখেই কাটবে। অর্থভাগ্য মধ্যম হলেও খ্যাতি পাবেন। বছরের শেষ দিকে ছোটখাট অসুখে ভুগতে হতে পারে। সাবধানে থাকাই ভাল। কথাবার্তা বলার ধরনের জন্য তো বটেই, তা ছাড়াও এঁদের আকর্ষণ ক্ষমতা অনেক বেশি হয়। এঁরা বাইরের মানুষকে চট করে কাছে টেনে নিতে পারেন। এই ধরণের মানুষ সব সময়ে বিলাসিতা পছন্দ করেন। নিজেকে সাজিয়ে রাখতে চান। রান্নাবান্না, আঁকা,আলপনার প্রতি আকর্ষণ দেখা যায়।

U- শুরুর কয়েক মাস বাদ দিলে নতুন বছরটা সুখেই কাটবে। অর্থভাগ্য মধ্যম হলেও খ্যাতি পাবেন। বছরের শেষ দিকে ছোটখাট অসুখে ভুগতে হতে পারে। সাবধানে থাকাই ভাল। কথাবার্তা বলার ধরনের জন্য তো বটেই, তা ছাড়াও এঁদের আকর্ষণ ক্ষমতা অনেক বেশি হয়। এঁরা বাইরের মানুষকে চট করে কাছে টেনে নিতে পারেন। এই ধরণের মানুষ সব সময়ে বিলাসিতা পছন্দ করেন। নিজেকে সাজিয়ে রাখতে চান। রান্নাবান্না, আঁকা,আলপনার প্রতি আকর্ষণ দেখা যায়।

২৩ ২৭
V-  নতুন বছরের গোটাটাই বেশ ভাল কাটবে। অর্থ, প্রেম, যশ সবই মিলবে। তবে ছোটখাট দুর্ঘটনার ভয় রয়েছে। সাবধানে ও সতর্ক থাকাই বাঞ্ছনীয়। মনে রাখবেন, নামের শুরুতে V থাকলে, তাঁরা খুবই পরিশ্রমী। কোনও কিছুতেই যেন ক্লান্ত হন না। আসলে ক্লান্তি প্রকাশ করতে চান না। কিন্তু মাঝে মধ্যেই ভুগতে হয়। যে কোনও গঠনমূলক কাজে নিজেদের জড়িয়ে রাখতে ভালবাসেন। ভীষণভাবে বিস্তারিত তথ্যের প্রতি ঝোঁক। গবেষণমূলক কাজে যা সাহায্য করে।

V- নতুন বছরের গোটাটাই বেশ ভাল কাটবে। অর্থ, প্রেম, যশ সবই মিলবে। তবে ছোটখাট দুর্ঘটনার ভয় রয়েছে। সাবধানে ও সতর্ক থাকাই বাঞ্ছনীয়। মনে রাখবেন, নামের শুরুতে V থাকলে, তাঁরা খুবই পরিশ্রমী। কোনও কিছুতেই যেন ক্লান্ত হন না। আসলে ক্লান্তি প্রকাশ করতে চান না। কিন্তু মাঝে মধ্যেই ভুগতে হয়। যে কোনও গঠনমূলক কাজে নিজেদের জড়িয়ে রাখতে ভালবাসেন। ভীষণভাবে বিস্তারিত তথ্যের প্রতি ঝোঁক। গবেষণমূলক কাজে যা সাহায্য করে।

২৪ ২৭
W-  বাংলা নামের শুরুতে এই বর্ণ বিশেষ থাকে না। তবে এঁরা চরিত্রগত দিক থেকে একটু স্বাধীনচেতা হন। এঁদের মধ্যে শৈল্পিক ভাবনা চিন্তা খুবই থাকে। তবে এঁরা যে সবাইকে খুশি করতে পারে তেমনটা নয়। সেটার পরোয়াও করেন না। নিজের সুখ, নিজের ভাল থাকাই এঁদের কাছে প্রাধান্য পায়। যে কোনও বিষয়ে খুব ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন। নতুন বছরটা মোটেও সুখকর নয়। নানা দিক থেকে বাধা আসবে। অতিরিক্ত অর্থাগম নেই বললেই চলে।

W- বাংলা নামের শুরুতে এই বর্ণ বিশেষ থাকে না। তবে এঁরা চরিত্রগত দিক থেকে একটু স্বাধীনচেতা হন। এঁদের মধ্যে শৈল্পিক ভাবনা চিন্তা খুবই থাকে। তবে এঁরা যে সবাইকে খুশি করতে পারে তেমনটা নয়। সেটার পরোয়াও করেন না। নিজের সুখ, নিজের ভাল থাকাই এঁদের কাছে প্রাধান্য পায়। যে কোনও বিষয়ে খুব ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন। নতুন বছরটা মোটেও সুখকর নয়। নানা দিক থেকে বাধা আসবে। অতিরিক্ত অর্থাগম নেই বললেই চলে।

২৫ ২৭
X-  বাংলায় এই বর্ণ দিয়ে নাম শুরু হতে দেখা যায় না। তবে বর্ণের সংখ্যাতত্বের ভিত্তিতে এই বর্ণ দিয়ে নাম হলে তাঁরা জেদি ধরনের হন। নিজের মতো চলতে পছন্দ করেন। এঁরা খুবই উচ্চাকাঙ্খী হন। আশেপাশের মানুষদের নিজের মতো কাজ শেখাতে পছন্দ করেন। নিজের মত চাপিয়ে দিতেও চান। এই বছরটায় একটু চিন্তা থাকতে হতে পারে টাকা পয়সা নিয়ে। কারণ, আয় তেমন না বাড়লেও খরচ বাড়বে। ভারসাম্য রাখতে গিয়ে হিমশিম খেতে হবে। যদিও সুনাম বজায় থাকবে।

X- বাংলায় এই বর্ণ দিয়ে নাম শুরু হতে দেখা যায় না। তবে বর্ণের সংখ্যাতত্বের ভিত্তিতে এই বর্ণ দিয়ে নাম হলে তাঁরা জেদি ধরনের হন। নিজের মতো চলতে পছন্দ করেন। এঁরা খুবই উচ্চাকাঙ্খী হন। আশেপাশের মানুষদের নিজের মতো কাজ শেখাতে পছন্দ করেন। নিজের মত চাপিয়ে দিতেও চান। এই বছরটায় একটু চিন্তা থাকতে হতে পারে টাকা পয়সা নিয়ে। কারণ, আয় তেমন না বাড়লেও খরচ বাড়বে। ভারসাম্য রাখতে গিয়ে হিমশিম খেতে হবে। যদিও সুনাম বজায় থাকবে।

২৬ ২৭
Y-  এই বর্ণ দিয়েও বাংলা নাম কম হয়। তবে অনেকে ‘য’ দিয়ে নাম হলে ইংরাজেতি ‘Y’ লেখেন। এঁরা সবার চেয়ে আলাদা প্রকৃতি। খুবই ঠৌঁট কাটা ধরণের হন। নিজের কাজে কোনও রকমের বাধা এঁরা সহ্য করেন না। ফলে এঁদের সঙ্গে অনেকের বিরোধিতা চরমে ওঠে। সত্য সামনে আনতে সব সময় চেষ্টা করেন। তবে বাইরে থেকে কঠিন হলেও ভিতরে ভিতরে এঁরা নরম প্রকৃতির হয়ে থাকেন। বছরটা মিশ্র কাটবে। এমন সুযোগও এসে যেতে পারে যা কল্পনা করা হয়নি। আবার কোনও কোনও ক্ষেত্রে হতাশ হতে হবে। হাতে এসে যাওয়া কিছু একটুর জন্য হারাতে হতে পারে।

Y- এই বর্ণ দিয়েও বাংলা নাম কম হয়। তবে অনেকে ‘য’ দিয়ে নাম হলে ইংরাজেতি ‘Y’ লেখেন। এঁরা সবার চেয়ে আলাদা প্রকৃতি। খুবই ঠৌঁট কাটা ধরণের হন। নিজের কাজে কোনও রকমের বাধা এঁরা সহ্য করেন না। ফলে এঁদের সঙ্গে অনেকের বিরোধিতা চরমে ওঠে। সত্য সামনে আনতে সব সময় চেষ্টা করেন। তবে বাইরে থেকে কঠিন হলেও ভিতরে ভিতরে এঁরা নরম প্রকৃতির হয়ে থাকেন। বছরটা মিশ্র কাটবে। এমন সুযোগও এসে যেতে পারে যা কল্পনা করা হয়নি। আবার কোনও কোনও ক্ষেত্রে হতাশ হতে হবে। হাতে এসে যাওয়া কিছু একটুর জন্য হারাতে হতে পারে।

২৭ ২৭
Z-  ইংরাজি বর্ণমালায় সর্বশেষ অক্ষর অনেকের নামেরই শুরুতে থাকে। নতুন বছর বেশ ভাল কাটবে। কাছের মানুষের কাছে সমাদর যেমন পাবেন তেমন সামাজিক ক্ষেত্রেও সুনাম অর্জন করবেন। অর্থভাগ্যও মোটের উপরে ভাল। সংখ্যাতত্ব অনুযায়ী, এঁরা ভীষণভাবে ক্ষমতায়ণে বিশ্বাসী। বদ্ধমূল ধারণাই পরে বাস্তবে রূপায়িত করতে চান। মাঝে মাঝেই পারেন না। তবে হাল ছাড়েন না। এঁরা নিজের রূপ নিয়ে খুবই সচেতন হন। সর্বত্র শান্তি বজায় রাখতে পছন্দ করেন। বন্ধুদের সর্বদা সঠিক পরামর্শ দিয়ে থাকেন। একবার কাউকে কথা দিয়ে থাকলে তার নড়চড় হয় না।

Z- ইংরাজি বর্ণমালায় সর্বশেষ অক্ষর অনেকের নামেরই শুরুতে থাকে। নতুন বছর বেশ ভাল কাটবে। কাছের মানুষের কাছে সমাদর যেমন পাবেন তেমন সামাজিক ক্ষেত্রেও সুনাম অর্জন করবেন। অর্থভাগ্যও মোটের উপরে ভাল। সংখ্যাতত্ব অনুযায়ী, এঁরা ভীষণভাবে ক্ষমতায়ণে বিশ্বাসী। বদ্ধমূল ধারণাই পরে বাস্তবে রূপায়িত করতে চান। মাঝে মাঝেই পারেন না। তবে হাল ছাড়েন না। এঁরা নিজের রূপ নিয়ে খুবই সচেতন হন। সর্বত্র শান্তি বজায় রাখতে পছন্দ করেন। বন্ধুদের সর্বদা সঠিক পরামর্শ দিয়ে থাকেন। একবার কাউকে কথা দিয়ে থাকলে তার নড়চড় হয় না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE