• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লাইফস্টাইল

গরমে স্বস্তি পান এই উপায়ে

শেয়ার করুন
main
মে মাস শেষ হতে চলেছে। কিন্তু তাপমাত্রা কমার লক্ষণ নেই। বরং গরমে হাঁসফাঁস করছেন সাধারণ মানুষ। এমন অবস্থায় ঘরে ঘরে এসি বসানোর ধুম পড়েছে চারিদিকে। কিন্তু তাতে পরিবেশের উপর কী মারাত্মক প্রভাব পড়ছে জানেন?
ac
এসি থেকে হাইড্রো ফ্লুরো কার্বন এবং ক্লোরো ফ্লুরো কার্বন গ্যাস বেরোয়, যে গুলি পরিবেশের পক্ষে ক্ষতিকর গ্রিন হাউস গ্যাসের তালিকায় পড়ে। এই গ্রিন হাউস গ্যাসগুলিই বিশ্ব উষ্ণায়নের জন্য দায়ী। গরম থেকে নিষ্কৃতি পেতে তাই ঘরোয়া টোটকার সাহায্য নিন বরং। এতে সাশ্রয়ও হবে। আবার বাঁচবে পরিবেশও।
cap
ব্যাগ-ছাতা সামলানোর ঝক্কি অনেক। রোদ থেকে বাঁচতে তাই টুপি পরেন অনেকে। কিন্তু প্রচণ্ড রোদে তা বিশেষ কাজ দেয় না। উল্টে মাথাব্যথার শুরু হয়। তবে সহজেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।
leaf
তার জন্য দরকার সুপুরি গাছের পাতার খোল। টুপির মাপ নিয়ে সুপুরি পাতার খোল গোল করে কেটে নিন। সেটি জলে ভিজিয়ে রাখুন কিছু ক্ষণ। বাইরে বেরনোর আগে জল ঝেড়ে টুপির মধ্যে রেখে দিন। সেই অবস্থাতেই টুপি পরে বেরোন। এতে মাথায় রোদ লাগবে না।
roof
রোদে বাড়ির ছাদ তেতে গেলে গরমে কষ্ট হয়। অতি সহজেই এর থেকে মুক্তি পেতে পারেন। তার জন্য লাগবে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল, থার্মোকল শিট এবং বস্তা। যে ঘরে ঘুমোন, তার ছাদে প্রথমে বস্তা পাততে হবে। তার উপর বিছিয়ে দিতে হবে থার্মোকল শিট, যা ঢেকে দিতে হবে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল দিয়ে।
foil
খেয়াল রাখবেন অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল এবং থার্মোকল শিটের মধ্যে একটুও ফাঁক থাকা চলবে না। হাওয়ায় ফয়েল যাতে উড়ে না যায়, তার জন্য তার উপর ইট চাপিয়ে দিয়ে পারেন। এর ফলে তিনটি স্তর পেরিয়ে সরাসরি ছাদে রোদ পড়বে না। এ ভাবে ঘরের তাপমাত্রা প্রায় ৫ ডিগ্রি কমানো সম্ভব।
fan
পাখার গরম হাওয়ায় ঘরে টিকতে পারছেন না? তারও উপায় রয়েছে। দরকার শুধু একটি টেবিল ফ্যান এবং দুটি প্লাস্টিকের বোতলের। প্লাস্টিকের বোতলের নীচের অংশ গোল করে কেটে নিন। এ বার দড়ি বা ফিতে দিয়ে টেবিল ফ্যানের পিছনে আটকে দিন। পাখা চালু করার আগে বোতল দু’টির মধ্যে বরফের টুকরো রেখে দিন। সুইচ টিপলেই ঠান্ডা হাওয়া।
window
জানলার সামনে ভিজে কাপড় ঝুলিয়ে রাখলে ঘর ঠান্ডা হয় নিশ্চয়ই জানেন! কিন্তু ভিজে চাদর গায়ে রেখে শোওয়ার কথা শুনেছেন? প্রচন্ড গরম থেকে রেহাই পেতে মিশরের মানুষ এই উপায় খুঁজে বার করেছেন। এ ক্ষেত্রে গা ঢাকার চাদর হালকা করে ভিজিয়ে নিন। গায়ের উপর চাপিয়ে শুয়ে পড়ুন। চাদর যত শুকোবে, ততই ঠান্ডা বোধ করবেন আপনি।
bed
ভিজে চাদর গায়ে জড়িয়ে শুতে আপত্তি থাকলে, অন্য উপায়ও রয়েছে। সে ক্ষেত্রে বিছানার চাদরে বেবি পাওডার ছড়িয়ে নিন। তাড়াতাড়ি ঘাম শুকিয়ে যাবে। আবার তেমন গরমও লাগবে না।

Advertisement

Advertisement

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
বাছাই খবর
আরও পড়ুন