Advertisement
১৩ জুন ২০২৪
Oil Import in India

আমেরিকার ‘শত্রু’র সঙ্গে চুক্তি অম্বানীর, কোটি কোটি গ্যালন তেল আসবে ভারতে! কতটা লাভ হবে?

আমেরিকার ‘শত্রু’ দেশের সঙ্গে এ বার চুক্তি করলেন ভারতের ধনীতম শিল্পপতি মুকেশ অম্বানী। তাঁর সংস্থা রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ় ওই দেশ থেকে তেল কিনবে। এই মর্মে দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ৩০ মে ২০২৪ ০৯:০৩
Share: Save:
০১ ১৭
দু’বছরেরও বেশি সময় অতিক্রান্ত। যুদ্ধ চলছে পূর্ব ইউরোপে। রাশিয়া এবং ইউক্রেনের সেই যুদ্ধের প্রভাব পড়েছে সারা বিশ্বের অর্থনীতিতে। একই ভাবে যুদ্ধরত দেশ দু’টির অর্থনীতিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই লড়াইয়ে।

দু’বছরেরও বেশি সময় অতিক্রান্ত। যুদ্ধ চলছে পূর্ব ইউরোপে। রাশিয়া এবং ইউক্রেনের সেই যুদ্ধের প্রভাব পড়েছে সারা বিশ্বের অর্থনীতিতে। একই ভাবে যুদ্ধরত দেশ দু’টির অর্থনীতিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই লড়াইয়ে।

০২ ১৭
যুদ্ধরত সেই রাশিয়ার সঙ্গেই এ বার চুক্তি করলেন ভারতের ধনীতম শিল্পপতি মুকেশ অম্বানী। তাঁর সংস্থা রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ় রাশিয়ার কাছ থেকে তেল কিনবে। সেই অনুযায়ী দীর্ঘমেয়াদি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন অম্বানী।

যুদ্ধরত সেই রাশিয়ার সঙ্গেই এ বার চুক্তি করলেন ভারতের ধনীতম শিল্পপতি মুকেশ অম্বানী। তাঁর সংস্থা রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ় রাশিয়ার কাছ থেকে তেল কিনবে। সেই অনুযায়ী দীর্ঘমেয়াদি চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন অম্বানী।

০৩ ১৭
রিলায়্যান্স এই মুহূর্তে বিশ্বের বৃহত্তম তেল পরিশোধন কমপ্লেক্সের অপারেটর। রাশিয়ার সঙ্গে টানা এক বছরের চুক্তি হয়েছে রিলায়্যান্সের। এক বছর ধরে রাশিয়া থেকে অপরিশোধিত খনিজ তেল আসবে ভারতে।

রিলায়্যান্স এই মুহূর্তে বিশ্বের বৃহত্তম তেল পরিশোধন কমপ্লেক্সের অপারেটর। রাশিয়ার সঙ্গে টানা এক বছরের চুক্তি হয়েছে রিলায়্যান্সের। এক বছর ধরে রাশিয়া থেকে অপরিশোধিত খনিজ তেল আসবে ভারতে।

০৪ ১৭
রয়টার্সের রিপোর্ট অনুযায়ী, রিলায়্যান্সের সঙ্গে রাশিয়ার চুক্তিতে বলা হয়েছে, প্রতি মাসে রাশিয়া থেকে ৩০ লক্ষ ব্যারেল খনিজ তেল কেনা হবে। ভারতে এসে পৌঁছবে ওই তেল। অর্থাৎ, বছরে ৩ কোটি ৬০ লক্ষ ব্যারেল তেল রাশিয়া থেকে কিনবেন অম্বানী।

রয়টার্সের রিপোর্ট অনুযায়ী, রিলায়্যান্সের সঙ্গে রাশিয়ার চুক্তিতে বলা হয়েছে, প্রতি মাসে রাশিয়া থেকে ৩০ লক্ষ ব্যারেল খনিজ তেল কেনা হবে। ভারতে এসে পৌঁছবে ওই তেল। অর্থাৎ, বছরে ৩ কোটি ৬০ লক্ষ ব্যারেল তেল রাশিয়া থেকে কিনবেন অম্বানী।

০৫ ১৭
চুক্তির শর্ত বলছে, তেলের টাকা ভারতীয় মুদ্রায় রাশিয়াকে দিতে পারবে না রিলায়্যান্স। আমেরিকান ডলারেও দাম দেওয়া যাবে না। অম্বানীকে তেলের দাম দিতে হবে রাশিয়ান মুদ্রা রুবলে।

চুক্তির শর্ত বলছে, তেলের টাকা ভারতীয় মুদ্রায় রাশিয়াকে দিতে পারবে না রিলায়্যান্স। আমেরিকান ডলারেও দাম দেওয়া যাবে না। অম্বানীকে তেলের দাম দিতে হবে রাশিয়ান মুদ্রা রুবলে।

০৬ ১৭
ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার পর থেকে আমেরিকা, ইউরোপ-সহ পশ্চিমের দেশগুলি রাশিয়ার উপর একাধিক বাণিজ্যিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। যার ফলে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে কিছুটা হলেও কোণঠাসা হয়েছেন ভ্লাদিমির পুতিন।

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার পর থেকে আমেরিকা, ইউরোপ-সহ পশ্চিমের দেশগুলি রাশিয়ার উপর একাধিক বাণিজ্যিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। যার ফলে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে কিছুটা হলেও কোণঠাসা হয়েছেন ভ্লাদিমির পুতিন।

০৭ ১৭
সেই কারণেই রিলায়্যান্সের সঙ্গে তেলের চুক্তিতে ভারতীয় কিংবা আমেরিকান মুদ্রা নিতে রাজি হননি পুতিন। রাশিয়ান রুবলকে তিনি বাণিজ্যিক লেনদেনের বিকল্প মাধ্যম হিসাবে গড়ে তুলতে চাইছেন বলে মত পর্যবেক্ষকদের।

সেই কারণেই রিলায়্যান্সের সঙ্গে তেলের চুক্তিতে ভারতীয় কিংবা আমেরিকান মুদ্রা নিতে রাজি হননি পুতিন। রাশিয়ান রুবলকে তিনি বাণিজ্যিক লেনদেনের বিকল্প মাধ্যম হিসাবে গড়ে তুলতে চাইছেন বলে মত পর্যবেক্ষকদের।

০৮ ১৭
আরও একটি মতে, আন্তর্জাতিক বাজারে গত কয়েক বছর ধরে লাগাতার কমেছে রাশিয়ান মুদ্রার দাম। বর্তমানে তা ভারতের টাকার চেয়েও সস্তা হয়ে গিয়েছে। এক রুবল বর্তমানে ভারতের ৯৩ পয়সার সমান।

আরও একটি মতে, আন্তর্জাতিক বাজারে গত কয়েক বছর ধরে লাগাতার কমেছে রাশিয়ান মুদ্রার দাম। বর্তমানে তা ভারতের টাকার চেয়েও সস্তা হয়ে গিয়েছে। এক রুবল বর্তমানে ভারতের ৯৩ পয়সার সমান।

০৯ ১৭
ভারতের টাকা বেশি দামি হওয়ায়, সেই টাকায় তেলের ব্যবসা করলে রাশিয়ার বড় একটা লাভ হত না। রিলায়্যান্সের সঙ্গে চুক্তির শর্ত নির্ধারণের সময়ে পুতিন সেই বিষয়টিও মাথায় রেখেছিলেন বলে মনে করা হচ্ছে।

ভারতের টাকা বেশি দামি হওয়ায়, সেই টাকায় তেলের ব্যবসা করলে রাশিয়ার বড় একটা লাভ হত না। রিলায়্যান্সের সঙ্গে চুক্তির শর্ত নির্ধারণের সময়ে পুতিন সেই বিষয়টিও মাথায় রেখেছিলেন বলে মনে করা হচ্ছে।

১০ ১৭
বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম তেল আমদানিকারক দেশ ভারত। ইউক্রেন-যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর রাশিয়ার তেলের সবচেয়ে বড় ক্রেতাও হয়ে উঠেছে নয়াদিল্লি। এত দিন রাশিয়ার কাছ থেকে তেল কিনে চিন, সৌদি আরবের মুদ্রায় দাম মেটাচ্ছিল ভারত। এ ছাড়া, কোনও কোনও ক্ষেত্রে ভারতের মুদ্রাও দেওয়া হচ্ছিল রাশিয়াকে। অম্বানীকে দিতে হবে রাশিয়ান মুদ্রা।

বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম তেল আমদানিকারক দেশ ভারত। ইউক্রেন-যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর রাশিয়ার তেলের সবচেয়ে বড় ক্রেতাও হয়ে উঠেছে নয়াদিল্লি। এত দিন রাশিয়ার কাছ থেকে তেল কিনে চিন, সৌদি আরবের মুদ্রায় দাম মেটাচ্ছিল ভারত। এ ছাড়া, কোনও কোনও ক্ষেত্রে ভারতের মুদ্রাও দেওয়া হচ্ছিল রাশিয়াকে। অম্বানীকে দিতে হবে রাশিয়ান মুদ্রা।

১১ ১৭
রয়টার্সের রিপোর্ট অনুযায়ী, রাশিয়ার থেকে কেনা তেলের দাম এইচডিএফসি ব্যাঙ্কের মাধ্যমে মেটাবেন অম্বানী। ওই ব্যাঙ্ক থেকে টাকা যাবে রাশিয়ার গ্যাজ়প্রোম ব্যাঙ্কে। এই দুই ব্যাঙ্কের সঙ্গেও সেই মর্মে চুক্তি হয়েছে।

রয়টার্সের রিপোর্ট অনুযায়ী, রাশিয়ার থেকে কেনা তেলের দাম এইচডিএফসি ব্যাঙ্কের মাধ্যমে মেটাবেন অম্বানী। ওই ব্যাঙ্ক থেকে টাকা যাবে রাশিয়ার গ্যাজ়প্রোম ব্যাঙ্কে। এই দুই ব্যাঙ্কের সঙ্গেও সেই মর্মে চুক্তি হয়েছে।

১২ ১৭
রাশিয়া থেকে তেল কিনে তাদের রাশিয়ান মুদ্রাতেই টাকা দেওয়া হলে তো খালি হবে ভারতের ভান্ডার! প্রশ্ন হল, রাশিয়া-রিলায়্যান্সের এই চুক্তিতে ভারত কেন আগ্রহী? এতে নয়াদিল্লির কী লাভ হবে?

রাশিয়া থেকে তেল কিনে তাদের রাশিয়ান মুদ্রাতেই টাকা দেওয়া হলে তো খালি হবে ভারতের ভান্ডার! প্রশ্ন হল, রাশিয়া-রিলায়্যান্সের এই চুক্তিতে ভারত কেন আগ্রহী? এতে নয়াদিল্লির কী লাভ হবে?

১৩ ১৭
পর্যবেক্ষকদের মতে, এই দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি ভারতের জন্য আশীর্বাদ হয়ে দেখা দিতে পারে। কারণ, রাশিয়ার থেকে তেল কিনে সেই তেলে ব্যবসা করবে ভারতই। তুলে নেবে বিনিয়োগের চেয়ে কয়েক গুণ বেশি টাকা।

পর্যবেক্ষকদের মতে, এই দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি ভারতের জন্য আশীর্বাদ হয়ে দেখা দিতে পারে। কারণ, রাশিয়ার থেকে তেল কিনে সেই তেলে ব্যবসা করবে ভারতই। তুলে নেবে বিনিয়োগের চেয়ে কয়েক গুণ বেশি টাকা।

১৪ ১৭
তেল পরিশোধন করে তেলজাত দ্রব্য ভারতের বাজারে তৈরি করবে অম্বানীর রিলায়্যান্স। তার পর আন্তর্জাতিক বাজারে তা রফতানি করা হবে। অম্বানীর সংস্থার হাত ধরে নয়াদিল্লির ঘরে আসবে বিদেশি মুদ্রা। সমৃদ্ধ হবে ভারতের বাজারও।

তেল পরিশোধন করে তেলজাত দ্রব্য ভারতের বাজারে তৈরি করবে অম্বানীর রিলায়্যান্স। তার পর আন্তর্জাতিক বাজারে তা রফতানি করা হবে। অম্বানীর সংস্থার হাত ধরে নয়াদিল্লির ঘরে আসবে বিদেশি মুদ্রা। সমৃদ্ধ হবে ভারতের বাজারও।

১৫ ১৭
ভারত থেকে প্রতি বছর যা কিছু বিদেশে রফতানি করা হয়, সেই তালিকায় এই মুহূর্তে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পেট্রোলিয়ামজাত দ্রব্য। অর্থাৎ, ভারতের বাজারে খনিজ তেল থেকে প্রস্তুত করা দ্রব্যের চাহিদা রয়েছে বিদেশে। অম্বানীর সঙ্গে রাশিয়ার চুক্তিতে দেশের রফতানি শিল্প সমৃদ্ধ হতে পারে।

ভারত থেকে প্রতি বছর যা কিছু বিদেশে রফতানি করা হয়, সেই তালিকায় এই মুহূর্তে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পেট্রোলিয়ামজাত দ্রব্য। অর্থাৎ, ভারতের বাজারে খনিজ তেল থেকে প্রস্তুত করা দ্রব্যের চাহিদা রয়েছে বিদেশে। অম্বানীর সঙ্গে রাশিয়ার চুক্তিতে দেশের রফতানি শিল্প সমৃদ্ধ হতে পারে।

১৬ ১৭
পর্যবেক্ষকদের একাংশ এই চুক্তিতে অম্বানীর দূরদর্শী মনোভাবের পরিচয় পাচ্ছেন। তাঁদের মতে, বর্তমানে পশ্চিম এশিয়ায় যুদ্ধ চলছে। পূর্ব ইউরোপও যুদ্ধবিধ্বস্ত। ফলে তেলের খনিসমৃদ্ধ একাধিক দেশ বিপন্ন।

পর্যবেক্ষকদের একাংশ এই চুক্তিতে অম্বানীর দূরদর্শী মনোভাবের পরিচয় পাচ্ছেন। তাঁদের মতে, বর্তমানে পশ্চিম এশিয়ায় যুদ্ধ চলছে। পূর্ব ইউরোপও যুদ্ধবিধ্বস্ত। ফলে তেলের খনিসমৃদ্ধ একাধিক দেশ বিপন্ন।

১৭ ১৭
তেলের খনিতে যুদ্ধের আঁচ লাগায় আগামী দিনে আন্তর্জাতিক বাজারে খনিজ তেলের দাম চড়চড় করে বৃদ্ধি পেতে পারে। এক বছরে সেই দাম আকাশ ছুঁয়ে ফেলতে পারে, আশঙ্কা পর্যবেক্ষকদের। মনে করা হচ্ছে, অম্বানী সেই পরিস্থিতি বিচার করেই এই দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি করেছেন। তাতে আখেরে ভারতের লাভ হবে।

তেলের খনিতে যুদ্ধের আঁচ লাগায় আগামী দিনে আন্তর্জাতিক বাজারে খনিজ তেলের দাম চড়চড় করে বৃদ্ধি পেতে পারে। এক বছরে সেই দাম আকাশ ছুঁয়ে ফেলতে পারে, আশঙ্কা পর্যবেক্ষকদের। মনে করা হচ্ছে, অম্বানী সেই পরিস্থিতি বিচার করেই এই দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি করেছেন। তাতে আখেরে ভারতের লাভ হবে।

সকল ছবি: সংগৃহীত।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE