ইতিমধ্যেই আজ়লান শাহ কাপ হকি প্রতিযোগিতার ফাইনালে উঠেছে ভারত। এখন মনদীপ সিংহদের লক্ষ্য, শুক্রবার গ্রুপে শেষ ম্যাচে পোলান্ডের বিরুদ্ধে আক্রমণ আরও তীক্ষ্ণ করে বড় ব্যবধানে জয়। প্রতিপক্ষ হিসেবে হকির বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে ভারতের থেকে অনেকটাই পিছিয়ে আছে পোলিশরা। ভারত যেখানে পাঁচ নম্বরে, সেখানে পোলান্ড ২১।

আজ়লান শাহে গ্রুপে ভারত তিনটি ম্যাচ জিতেছে, একটি ড্র। ছ’দেশের প্রতিযোগিতায় তারাই গ্রুপ শীর্ষে রয়েছে ১০ পয়েন্ট পেয়ে। গোল পার্থক্য আট। ফাইনালে পাঁচ বারের চ্যাম্পিয়ন ভারতের সামনে দক্ষিণ কোরিয়া। শুধু পয়েন্টে নয়, গোল পার্থক্যেও কোরীয়রা ভারতের থেকে পিছিয়ে। গ্রুপ লিগে শেষ ম্যাচটা দু’দলের কাছেই নিয়মরক্ষার। কিন্তু দু’দলই চাইবে তাদের শেষ ম্যাচ জিতে ফাইনালটা খেলতে।

প্রতিপক্ষ পোলান্ড বলেই ভারতের কাজটা বেশ সহজ। তার উপর ভারতীয় আক্রমণ বিভাগ এই মুহূর্তে দারুণ ছন্দে রয়েছে। এশিয়ান গেমসে সোনাজয়ী জাপানকে তারা হারিয়েছে ২-০ গোলে। আয়োজক দেশ মালয়েশিয়ার বিরুদ্ধে ৪-২ জয় পেয়েছে। কানাডাকে চূর্ণ করেছে ৭-৩ গোলে। গ্রুপে মনপ্রীত সিংহের নেতৃত্বে খেলা ভারতীয় দলের সেই অর্থে খারাপ ফল একটাই। দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে ১-১ ড্র করা। এই কোরিয়ার সঙ্গেই শনিবার ফাইনাল খেলবে ভারত। এবং পোলান্ডকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে বাড়তি মনোবল নিয়ে মাঠে নামাটাই তাদের লক্ষ্য থাকবে।

আজ়লান শাহে অসাধারণ খেলছেন মনদীপ। কানাডার বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিকটা যার সব চেয়ে বড় প্রমাণ। তবে আক্রমণে তাঁর দরকার অন্য স্ট্রাইকারদের কাছ থেকে আরও সাহায্য পাওয়া। প্রধান কোচহীন ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট ঠিক সেটাই চায়। মনদীপ ছাড়া পেনাল্টি কর্নার মারায় বিশেষ দক্ষতা দেখিয়েছেন বরুণ কুমার। প্রতিযোগিতার বাকি দু’টি ম্যাচেও নিশ্চিত ভাবে দারুণ কিছু করতে চাইবেন মনদীপ, বরুণরা। 

মালয়েশিয়ার ইপোয় এ বার ভারতীয় দলের শুরুটা ছিল মন্থর। কিন্তু দ্রুত ভারত নিজেদের খেলায় উন্নতি করেছে। পাশাপাশি পোলান্ড আজ়লান শাহে এ বার একটা ম্যাচেও জেতেনি। শেষ ম্যাচে একটা সান্ত্বনা পয়েন্ট পাওয়া নিশ্চিত ভাবেই লক্ষ্য থাকবে পোলিশদের। যদিও তাদের পক্ষে কাজটা করে দেখানো বেশ কঠিন। মালয়েশিয়া, কানাডা ও জাপান যথাক্রমে তাদের ৫, ৪ এবং ৩ গোল দিয়েছে। একমাত্র কোরিয়া বেশ লড়াই করে তাদের ৩-২ গোলে হারায়।