• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কিনকে রেখেই অঙ্ক কলকাতার

Robbie Keane
রবি কিনকে নিয়ে জল্পনা ওড়ালেন শেরিংহ্যাম। ফাইল চিত্র

এটিকে ছেড়ে দিতে পারেন রবি কিন, এই গুঞ্জন উড়িয়ে দিলেন তাঁর এক সময়ের সতীর্থ ও বর্তমান কোচ টেডি শেরিংহ্যাম। সকালে অনুশীলনের পর বেঙ্গালুরু উড়ে যাওয়ার আগে টেডি বলে দিলেন, ‘‘ও আমাদের সঙ্গে শেষ দিন পর্যন্ত থাকবে। কিনের দল ছেড়ে যাওয়ার প্রশ্ন নেই।’’ আর এটিকের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘‘আইএসএলের শেষ দিন পর্যন্ত রবি কিনের সঙ্গে আমাদের চুক্তি আছে। কোনও ক্লাব কাউকে প্রস্তাব দিতেই পারে। আমাদের কিন্তু রবি কিন কিছু বলেনি।’’

সুনীল ছেত্রীর বেঙ্গালুরু এফসি-র বিরুদ্ধে আজ রবিবার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ খেলতে নামার আগে অবশ্য ম্যাচের চেয়ে বেশি আলোচনা শুরু হয়েছে এটিকে-র কিনকে নিয়ে। ইংল্যান্ডের বিভিন্ন সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছে কিন ছাড়তে পারেন এটিকে। খবরে লেখা হয়েছে, কিন যে ক্লাবে খেলে তারকা হয়েছেন সেই উলভারহ্যামটন এ বার দ্বিতীয় ডিভিশন থেকে উঠতে পারে প্রিমিয়ার লিগে। সে জন্যই কিনকে চাইছে তাঁরা। আইরিশ স্ট্র্ইকারও আগ্রহী। বিকেলে বেঙ্গালুরু পৌঁছবেন বলে টে়ডি এ দিন সাংবাদিক সম্মেলনে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন সহকারী বাস্তব রায়কে। কিন নিয়ে প্রশ্ন হলে টেডির সহকারি বলে দেন, ‘‘এটা কিন-ই একমাত্র বলতে পারবেন।’’

শনিবার সন্ধ্যায় বেঙ্গালুরুর টিম হোটেলে অবশ্য টটেনহ্যাম তারকা ছিলেন অন্য দিনের মতোই সাবলীল। অধিনায়ক সুলভ মনোভাব নিয়েই বেঙ্গালুরু ম্যাচের আগে রবিন সিংহ, দেবজিৎ মজুমদার, প্রবীর দাশদের তাতিয়েছেন তিনি। টিম হোটেলের খবর, কিন সবাইকে এ দিনও বলেছেন, ‘‘এই ম্যাচটা জিততেই হবে। লিগ টেবলে সবাই খুব কাছাকাছি। কয়েকটা ম্যাচ জিতলেই অনেক কিছুই বদলে যাবে।’’

এ বার আই এস এলে কোনও টিমকেই ম্যাচের আগের দিন মূল স্টেডিয়ামে অনুশীলন করতে দেওয়া হচ্ছে না। তাই বাইরের ম্যাচ থাকলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই নিজেদের শহরে শেষ অনুশীলন করে সরাসরি ম্যাচ খেলতে যাচ্ছেন টিমগুলো। টেডিও তাই করলেন শনিবার। এ দিন সকালে সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্কে অনুশীলনে অবশ্য দলে বেশ কয়েকটি পরিবর্তনের ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে। এটিকে কোচ নিজেই বারবার বলছেন, এ বারের টুর্নামেন্টে সবথেকে ব্যালান্সড দল বেঙ্গালুরু। সে জন্যই তিনি দলে ফেরাতে চাইছেন রবিন সিংহ এবং জর্ডি মন্টেলকে। দু’জনেই চোট সারিয়ে ফিরেছেন। বেঙ্গালুরুর ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা স্ট্রাইকার ভেনেজুয়েলার নিকুলাস ফোরেসের (মিকু) গোল আটকানোর দায়িত্ব পড়তে পারে জর্ডির উপরই। মিকু ইতিমধ্যেই আট গোল করে ফেলেছেন।  

গতবারের চ্যাম্পিয়ন এটিকের সঙ্গে খেতাবের অন্যতম দাবিদার বেঙ্গালুরুর লড়াই যে যথেষ্ট উত্তেজক হবে মানছেন সুনীলদের স্প্যানিশ কোচ আলবার্তো রোকাও। শেষ দুটি ম্যাচে তাঁর দল ছয় গোল করেছে। রোকা বলেছেন, ‘‘আমরা যে ম্যাচগুলো হেরেছি সেগুলো শেষ মুহূর্তের ভুলে। এটা বড় শিক্ষা আমাদের।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন