অপ্রতিরোধ্য বার্সেলোনা। শনিবার রাতে ক্যাম্প ন্যু-তে রিয়াল সোসিদাদকে হারিয়ে খেতাবের আরও কাছে পৌঁছে গেলেন লিয়োনেল মেসি, লুইস সুয়ারেসরা।

২৬তম লা লিগা খেতাব জয়ের জন্য বার্সেলোনার প্রয়োজন মাত্র ছয় পয়েন্ট। বাকি রয়েছে পাঁচটি ম্যাচ। অর্থাৎ, পরের দু’টো ম্যাচে জিতলেই চ্যাম্পিয়ন হবেন মেসিরা। এই মুহূর্তে ৩৩ ম্যাচে ৭৭ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবলের শীর্ষে বার্সেলোনা। সমসংখ্যক ম্যাচ খেলে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আতলেতিকো দে মাদ্রিদ। দু’দলের বাকি পাঁচটি করে ম্যাচ। আঁতোয়া গ্রিজ়ম্যান সব ম্যাচ জিতলেও ৮৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শেষ করবে। বার্সেলোনা দু’টি ম্যাচ জিতলেই ৮৩ পয়েন্ট পৌঁছে যাবে। সে ক্ষেত্রে বাকি তিনটি ম্যাচে হারলেও চ্যাম্পিয়ন হবেন মেসিরা। কারণ, লা লিগায় নিয়ম অনুযায়ী পয়েন্ট সমান হলে দেখা হয় মুখোমুখি সাক্ষাতের ফলাফল। এই মরসুমে আতলেতিকোর বিরুদ্ধে অ্যাওয়ে ম্যাচে ১-১ ড্র করেছিল বার্সেলোনা। ঘরের মাঠে ২-১ জিতেছিলেন মেসিরা।   

তবে শনিবার রাতে রিয়াল সোসিদাদের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগেই অস্বস্তি বাড়ে বার্সেলোনা শিবিরে। কারণ, এইবারকে ১-০ হারিয়ে পয়েন্টর ব্যবধান কিছুটা কমিয়ে এনেছিল লিগ টেবলে দ্বিতীয় স্থানে থাকা আতলেতিকো দে মাদ্রিদ। তাই কোনও অবস্থাতেই ঘরের মাঠে পয়েন্ট নষ্ট করার ঝুঁকি নিতে চাননি বার্সেলোনা ম্যানেজার আর্নেস্তো ভালভার্দে। আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়াতে ফিলিপে কুতিনহোর পরিবর্তে শুরু থেকেই খেলান উসমান দেম্বেলেকে। প্রথম থেকেই সোসিদাদের ফুটবলারদের লক্ষ্য ছিল মেসির ছন্দ নষ্ট করে দেওয়া। আর্জেন্টিনা তারকা বল ধরলেই সোসিদাদের তিন-চার জন ঘিরে ধরছিলেন। বাধ্য হয়েই বারবার মাঝমাঠে নেমে আসছিলেন মেসি। প্রতিকূল পরিস্থিতিতেও গোল করার সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু ২৭ মিনিটে তাঁর নেওয়া দুর্দান্ত ফ্রি-কিক অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। 

বার্সেলোনা শিবিরে স্বস্তি ফেরে প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার ঠিক আগে। দেম্বেলের কর্নারে মাথা ছুঁইয়ে গোল করেন ক্লে মঁ লংলে। ৬২ মিনিটে হুয়ান মিগুয়েলের গোলে ম্যাচে ফিরে আসে সোসিদাদ। দু’মিনিটের মধ্যেই অবশ্য ফের এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। নেপথ্যে ফের মেসি। আর্জেন্টিনা তারকা নিজে অবশ্য গোল করেননি। তাঁর দুর্দান্ত পাস ধরে বল জালে জড়িয়ে দেন জর্দি আলবা। শনিবার রাতে জয়ের পরে থেকেই ফুটবলপ্রেমীদের মধ্যে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে বার্সেলোনার ভবিষ্যৎ নিয়ে। কারও মতে মঙ্গলবার রাতে আলাভেসের বিরুদ্ধে যদি জেতেন মেসিরা। অন্য দিকে বুধবার ভ্যালেন্সিয়া হারিয়ে দেয় আতলেতিকো-কে, তা হলেই ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে যাবেন সুয়ারেসরা। কেউ কেউ মনে করেছেন, পরের শনিবার ক্যাম্প ন্যু-তে লেভান্তেকে হারিয়েই খেতাব জয়ের উৎসবে মাতবেন মেসিরা। বার্সেলোনা ম্যানেজার অবশ্য শুধু লা লিগায় চ্যাম্পিয়ন হওয়া নিয়ে ভাবছেন না। সাংবাদিক বৈঠকে ভালভার্দে বলেছেন, ‘‘অনেকেই মনে করে, ম্যাচ জেতা খুব সহজ। আসলে তার ঠিক উল্টো। সোসিদাদের বিরুদ্ধে কষ্ট করে জিততে হয়েছে। ওরা খেলাটা কঠিন করে দিয়েছিল। ভাগ্য ভাল যে দ্বিতীয় গোলটা দ্রুত পেয়ে গিয়েছিলাম।’’ যোগ করেন, ‘‘অনেকেই ইতিমধ্যেই আমাদের চ্যাম্পিয়ন বলতে শুরু করে দিয়েছে। কিন্তু লা লিগার জন্য যে পয়েন্ট দরকার, তার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।’’  

এ দিকে, রবিবার লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদ ৩-০ গোলে হারিয়েছে অ্যাথলেটিক বিলবাওকে। হ্যাটট্রিক করিম বেঞ্জেমার।  ৩৩ ম্যাচে ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে জ়িদানের দল।