গত অ্যাশেজ সিরিজের তৃতীয় টেস্টে তাঁর ম্যাচ জেতানো অপরাজিত ১৩৫ রানের রাজকীয় ইনিংসের নেপথ্য কাহিনি জানালেন ইংল্যান্ড অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। বললেন, ইনিংসের মাঝে ডেভিড ওয়ার্নার ক্রমাগত তাঁর মনঃসংযোগ নষ্ট করার চেষ্টা করছিলেন। যা তাঁকে ওই স্মরণীয় ইনিংস খেলতে বাড়তি প্রেরণা দিয়েছিল।

স্টোকসের কথায়, ‘‘তৃতীয় দিনের খেলা শেষ হওয়ার সময় আমাকে ডেভিড ওয়ার্নার এমন কিছু বলেছিল, যা আমাকে ওই ইনিংস খেলতে বাড়তি উদ্দীপ্ত করে।’’ ইংল্যান্ডের এই অলরাউন্ডার সঙ্গে যোগ করেন, ‘‘কটূক্তি করেই যাচ্ছিল ওয়ার্নার। যার একটা অর্থ হতে পারে, অ্যাশেজে ওর ব্যর্থতা।’’ স্টোকসের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল খেলা শেষ হওয়ার পরে ওয়ার্নারকে তিনি পাল্টা কিছু বলেছিলেন কি না? স্টোকস জবাব দেন, ‘‘বিড়বিড় করে অনেক কিছু বলতে চাইলেও কিছু বলিনি। খেলা শেষ হওয়ার পরে করমর্দন করে বলে এসেছিলাম দুর্দান্ত।’’ 

এ দিকে অ্যাশেজ সিরিজে ব্যর্থ হওয়ার মাশুল দিতে হল উসমান খোয়াজা ও মার্কাস হ্যারিসকে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দল থেকে বাদ পড়লেন দু’জনই। দলে ফেরানো হল ক্যামেরন ব্যানক্রফ্ট ও জো বার্নসকে। অস্ট্রেলিয়ার পেস আক্রমণকে যথারীতি নেতৃত্ব দেবেন জশ হ্যাজ়েলউড, প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক ও জেমস প্যাটারসন। তাঁদের সাহায্য করার জন্য নেওয়া হল অলরাউন্ডার মাইকেল নেসেরকেও।

ব্যানক্রফ্ট যে ফিরতে পারেন, তার ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল আগেই। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়া দু’টি টেস্ট খেলবে। গাব্বায় প্রথম টেস্ট শুরু হবে বৃহস্পতিবার। ২৯ নভেম্বর থেকে দিন-রাতের দ্বিতীয় টেস্ট অ্যাডিলেডে। 

দক্ষিণ আফ্রিকায় বল বিকৃতি কাণ্ডে দোষী প্রমাণিত হওয়ার পরে নির্বাসিত হন ব্যানক্রফ্ট। টেস্ট দলে ফেরেন অ্যাশেজ সিরিজে। কিন্তু ব্যাটিংয়ে বিশেষ কিছু করতে পারেননি। যে কারণে প্রথম দল থেকে বাদ পড়েন। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সিরিজে তাঁর ডাক পাওয়ার খবরে ক্রিকেট মহল অবাক। এই মুহূর্তে অস্ট্রেলিয়া দলে বিশেষজ্ঞ ওপেনার তিন জন। ব্যানক্রফ্ট ছাড়া রয়েছেন ডেভিড ওয়ার্নার এবং বার্নস। তবে ব্রিসবেনে তাঁকে সম্ভবত ওপেনার হিসেবে নেওয়া হবে না। নামানো হবে লোয়ার অর্ডারে। অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় নির্বাচক ট্রেভর হন‌্স ইঙ্গিত দিয়েছেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্টে ওয়ার্নারের সঙ্গে বার্নস ওপেন করবেন।