আদালত নিযুক্ত কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স বা সিওএ-র সিদ্ধান্তে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারেন রাজ্য ক্রিকেট সংস্থা সিএবি-র কর্তারা। ৪ নভেম্বর ইডেনে ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচের কমপ্লিমেন্টারি টিকিট বন্টন নিয়ে জটিলতা কাটবে এই সিদ্ধান্তে। সিএবি তাদের প্রচলিত নিয়মেই এই ধরনের টিকিট বন্টন করতে পারে বলে ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা। 

ভারতে আন্তর্জাতিক ম্যাচে কমপ্লিমেন্টারি টিকিটের নির্দিষ্ট সংখ্যা নিয়ে বোর্ডের নতুন গঠনতন্ত্রে যে নিয়ম রয়েছে, তা সিএবি-র কমপ্লিমেন্টারি টিকিট বন্টন পদ্ধতির বিপরীত। বোর্ডের নতুন নিয়ম অনুযায়ী মোট টিকিটের ১০ শতাংশ কমপ্লিমেন্টারি হিসেবে রাখতে হবে। এর মধ্যে ১২০০ টিকিট দিতে হবে বোর্ডকে। শনিবার দিল্লিতে সিওএ-র বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, বোর্ডকে ৬০৪টি কমপ্লিমেন্টারি টিকিট দিলেই চলবে। হসপিট্যালিটি বক্সের ১৮৪টি টিকিট ও ৪২০টি এর ঠিক পরের স্তরের টিকিট। বাকি কমপ্লিমেন্টারি টিকিট আয়োজক সংস্থা তাদের অতিথিদের দিতে পারে।

প্রায় ৬৭ হাজার আসনের ইডেনে দশ শতাংশ, অর্থাৎ ৬,৭০০ টিকিট কমপ্লিমেন্টারি হিসেবে রাখা নিয়েই আপত্তি জানায় সিএবি। তামিলনাড়ু ক্রিকেট সংস্থাও একই আপত্তি জানিয়েছিল। সিওএ-কে সিএবি জানিয়ে দেয়, ৩০ হাজারের কম কমপ্লিমেন্টারি টিকিট রাখতে পারবে না তারা। প্রায় ২৪ হাজার সদস্যকে বিনামূল্যে টিকিট দিতে হয় তাদের। এ ছাড়াও অন্তত ছ’হাজার আমন্ত্রিত অতিথিকে টিকিট দিতে হয়। এ দিন সিওএ জানিয়েছে সিএবি সদস্যদের জন্য বরাদ্দ বিনামূল্যের টিকিট এই দশ শতাংশের মধ্যে রাখা হবে না। অর্থাৎ ৪ নভেম্বরের ম্যাচের জন্য সিএবি সদস্যদের দেওয়ার পরেও আরও ৬,৭০০ টিকিট কমপ্লিমেন্টারি হিসেবে বন্টন করতে পারবে সিএবি।