ব্যাডমিন্টনে আন্তর্জাতিক মঞ্চে রানার্স হলেন এক বঙ্গকন্যা।

বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে শনিবার রাতে ছিল ‘বেলজিয়ান ইন্টারন্যাশনাল ব্যাডমিন্টন’ প্রতিযোগিতার ফাইনালে। সেখানে হলদিয়ার ঋতুপর্ণা দাস হারেন চিনের লিন ইয়াং চুংয়ের কাছে। চিনের ওই প্রতিযোগীর কাছে তিনি হেরেছেন ২১-১৬, ২১-১৬ ফলাফলে। ফাইনালের আগে ঋতুপর্ণা জিতেছিলেন কানাডা,  নেদারল্যান্ডস ও জার্মান প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে।

আদতে হলদিয়া টাউনশীপের বাসিন্দা ঋতুপর্ণা ২০১০ সাল থেকেই হায়দরাবাদে গোপী চন্দের অ্যাকাডেমিতে রয়েছেন। বেলজিয়াম থেকে ঋতুপর্ণা  জানিয়েছেন, ‘‘এর পরেই তিনি পোল্যান্ডে যাচ্ছি। আগামী ২১ সেপ্টেম্বর থেকে পোল্যান্ডে খেলা শুরু। আশা করছি ওখানে এর চেয়েও ভাল ফল করতে পারব।’’

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে ঋতুপর্ণা চোট পান। তারপর দীর্ঘ সময় ধরে তিনি রিহ্যাবে ছিলেন। তবে এ বছর তিনি সুস্থ রয়েছেন বলে জানিয়েছেন। এ বছরই রাশিয়া, ভিয়েতনাম, সিঙ্গাপুর— এই তিনটি দেশেই  আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত গিয়েছিলেন। ঋতুপর্ণা বলেন, ‘‘এ বছর বিদেশে একাধিক প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে অনেক অভিজ্ঞতা হয়েছে। তবে আরও বড় কিছুর জন্য পরিশ্রম করছি।’’

বেলজিয়ামে এই মুহূর্তে ঋতুপর্ণার সঙ্গে রয়েছেন তাঁর বাবা মোহনানন্দ দাস। তিনি মোহনানন্দবাবু বলেন, ‘‘বেলজিয়ামের ঠাণ্ডার সাথে মানিয়ে নিয়েছিল মেয়ে। পোল্যান্ডে একটু বেশি ঠাণ্ডা। আশা করি সেখানেও ও ওই ঠাণ্ডায় মানিয়ে নিয়ে ভাল করতে হবে। উল্লেখ্য, বেলজিয়ামে রানার্স হওয়ায় ঋতুপর্ণা ৩৪০০ পয়েন্ট পেয়েছেন। এতে তাঁর র‌্যাঙ্কিং এক ধাক্কায় অনেকটাই উঠে আসবে বলে আশাবাদী এই বঙ্গকন্যা।