ফেডারেশনের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতে যাওয়ার প্রস্তুতি শুরু করেছে আই লিগের ক্লাব জোট। শুক্রবার নয়াদাল্লিতে ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগান-সহ ছয় দল মিলে আলোচনা করে ‘অ্যাসোসিয়েশন’ গঠন করে দিল্লি হাইকোর্টে মামলা করবে বলে ঠিক হয়েছে।

এই অবস্থায় ঐতিহ্যবাহী কলকাতার দুই ক্লাবের পাশে দাঁড়িয়ে গেল আইএফএ। রাজ্য সংস্থার প্রেসিডেন্ট অজিত বন্দ্যোপাধ্যায় এ দিন দিল্লিতে ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট এবং সচিবকে চিঠি পাঠিয়ে অনুরোধ করেছেন, ‘‘শতবর্ষের ঐতিহ্যবাহী বাংলার দুই ক্লাবের সঙ্গে কোটি কোটি সদস্য সমর্থকের আবেগ জড়িত। ওদের সর্বোচ্চ লিগে খেলতে দেওয়া হোক। যদি সমস্যা সমাধানের জন্য আমাদের সাহায্য চাওয়া হয়, আমরা সমঝোতার রাস্তা তৈরি করতে রাজি।’’ অজিতবাবু সম্পর্কে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাদা। 

আইএফএ সদিচ্ছা দেখালেও দিল্লির ফুটবল হাউস অবশ্য প্রচণ্ড চটেছে আই লিগের ক্লাবগুলির উপরে। ফেডারেশন সচিব এ দিন দিল্লি থেকে ফোনে বললেন, ‘‘আই লিগের ভবিষ্যৎ কী বলতে পারব না। এএফ সি-র প্রতিনিধিরা কবে আসবেন, কী করবেন তা-ও জানি না। আর ওদের সঙ্গে আলোচনা করেও বা লাভ কি?  প্রেসিডেন্ট প্রফুল্ল পটেলের সঙ্গে আলোচনা পর ওরা কথা দিয়েছিল একসঙ্গে সমস্যার সমাধান করবে। সেই সভার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে উল্টো কথা বলে চিঠি পাঠিয়েছে ওরা।’’ কিন্তু ক্লাবগুলি আদালতে গেলে কি হবে? সচিব তা নিয়ে মুখ খোলেননি। তবে ফেডারেশনের এক কর্তা বললেন, ‘‘আদালতে যে কেউ যেতেই পারে। আমরা চিন্তিত নই।’’