সচিন তেন্ডুলকর না কি শাহরুখ খান। কার সঙ্গে ছুটি কাটাতে চান কেকেআর পেসার প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ? কঠিন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার আগে বেশ কিছুক্ষণ ভেবে নিলেন তরুণ পেসার। তার পরে বলে দিলেন, ‘‘শাহরুখের সঙ্গেই ছুটি কাটাতে যেতে চাইব। কারণ সচিন ক্রিকেটার, আমিও ক্রিকেটার। ছুটিই যখন কাটাতে যাব, তখন ক্রিকেট নিয়ে আলোচনা না-ই বা করলাম!’’

মঙ্গলবার রাজারহাটের দিল্লি পাবলিক স্কুল মেগাসিটি স্কুলে ‘দ্য টেলিগ্রাফ’ আয়োজিত ‘চ্যাট উইথ দ্য চ্যাম্পিয়ন্স’ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন নাইট পেসার। প্রসিদ্ধের পাশাপাশি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ক্রিস লিন, ম্যাট কেলি ও সহকারী কোচ সাইমন ক্যাটিচ। নাইটদের উপস্থিতি ঘিরে পড়ুয়াদের উৎসাহ ছিল তুঙ্গে। ক্যাটিচের দিকে প্রশ্ন ছুড়ে দেওয়া হল, কে তাঁর প্রিয় অভিনেতা? সহকারী কোচের উত্তর, ‘‘অবশ্যই এসআরকে। ও-ই আমার প্রিয়।’’

পড়ুয়াদের মধ্যে অনেকেই জানতে চেয়েছিল কী ভাবে বিপক্ষের ত্রাস হয়ে উঠলেন লিন? কেকেআর ওপেনারের উত্তর, ‘‘কেকেআরের হয়ে ওপেন করার অভিজ্ঞতা সত্যি অসাধারণ। এক দিকে নারাইন দ্রুত রান তোলে। আমি অন্য দিক থেকে নিজের খেলা চালিয়ে যাই। বেশি চাপ থাকে না। কারণ, জানি পিছনে রাসেল আছে। যে কোনও মুহূর্তে ম্যাচের রং পাল্টে দিতে পারে।’’ লিনের বার্তা, ‘‘তোমাদেরও একটা কথা বলে যেতে চাই। যা-ই করো, মন দিয়ে ভালবেসে করো। তাতে ভাল কাজও করতে পারবে, শান্তিতেও থাকতে পারবে।’’

তরুণ অস্ট্রেলীয় পেসার ম্যাট কেলির সঙ্গে এখনও সে ভাবে আলাপ হয়নি কলকাতার ক্রিকেটপ্রেমীদের। এখনও অভিষেক হয়নি কেলির। কিন্তু প্রথম বার নাইট শিবিরে তাঁর অভিজ্ঞতার কথা জানতে চাইলেন সঞ্চালক। কেলি বলেন, ‘‘আমি আসার পর থেকে একটা ম্যাচও জিততে পারেনি কেকেআর। আশা করি পরের ম্যাচ থেকে আমরা জিতব। তা হলেই আসল মজার স্বাদ পাওয়া যাবে। এমনিতে ড্রেসিংরুমে প্রত্যেকে খুব আন্তরিক। বন্ধুর মতো মিশতে পেরে ভাল লাগছে।’’

এখানেই শেষ নয়, ফের প্রশ্ন ছুড়ে দেওয়া হয় লিনকে। জিজ্ঞাসা করা হয়, আইপিএল না বিগ ব্যাশ, কোন প্রতিযোগিতা তাঁর প্রিয়। নাইট ওপেনারের উত্তর, ‘‘বিশ্বের সেরা টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা আইপিএল। এখানে দর্শকের উন্মাদনাই অন্য রকম। ইডেনের মতো দর্শক পৃথিবীর অন্য কোনও জায়গায় পাওয়া যাবে না।’’