• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কাঁধে ব্যান্ডেজ, ব্যাট করলেন না কোহালি

Virat Kohli with Physio
উদ্বেগ: ধর্মশালায় বৃহস্পতিবার ব্যাট করলেন না কোহালি। ফিজিওর সঙ্গে বেশি সময় কাটালেন। ছবি: পিটিআই।

ধৌলাধার পর্বতমালার কোলে ভারতীয় দলের প্রধান চর্চার বিষয় বাইশ গজ নয়। চলতি সিরিজে প্রায় নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়া স্লেজিং বা দু’দলের তিক্ত সম্পর্ক নয়।

বরং এর চেয়েও বড় উদ্বেগ তাড়া করছে ভারতীয় শিবিরকে। তা হচ্ছে, তাদের অধিনায়ক বিরাট কোহালির ফিটনেস। রাঁচীতে লাগা কাঁধের চোট যে পুরোপুরি এখনও সেরে ওঠেনি, সেই লক্ষণ বারবার দেখা গিয়েছে বৃহস্পতিবার ধর্মশালায়। পুরো দস্তুর নেট প্র্যাকটিস হলেও কোহালি নেটে ব্যাট করতে যাননি। ফিল্ডিং করেছেন খুবই অল্প সময়।

ফিল্ডিং অনুশীলনের সময় ভারত অধিনায়ককে যেমন মরিয়া আর আগ্রাসী দেখায়, তার ছিটেফোঁটাও দেখা যায়নি এ দিন। ওয়ার্ম-আপের সময়েও খুব তীব্রতা ছিল না তাঁর দৌড় বা শারীরিক কসরতের মধ্যে। কয়েক বার শুধু ব্যাট হাতে নিয়ে আলতো করে বল নাচাতে দেখা গিয়েছে। পাশে দাঁড়ানো কোচ অনিল কুম্বলের চোখমুখে তখন যত না স্বস্তি, তার চেয়ে বেশি উদ্বেগ।

পাহাড়ের কোলে মনোরম পরিবেশে ভারতীয় দলের অনুশীলনে কোহালিকে দেখলে যে কেউ বলে দিতে পারত, তিনি এখনও পুরোপুরি সুস্থ হননি। এখানেই শেষ নয়। সব চেয়ে বেশি জল্পনা শুরু হয়েছে প্র্যাকটিস চলাকালীন মাঠের মধ্যে গম্ভীর মুখের দু’টি কনফারেন্স হওয়া নিয়ে। একটি অধিনায়ক কোহালি, কোচ অনিল কুম্বলে এবং ফিজিও প্যাট্রিক ফারহার্টের মধ্যে। বেশ খানিক্ষণ তিন জনে আলোচনা করতে থাকলেন। দ্বিতীয় বৈঠকটিতে ফিজিওর সঙ্গে এসে যোগ দিলেন টিমের অন্য দুই সিনিয়র ক্রিকেটার— অজিঙ্ক রাহানে এবং আর. অশ্বিন। মনে করিয়ে দেওয়া যাক, রাহানে হলেন দলের সহ-অধিনায়ক এবং অশ্বিন সব চেয়ে সিনিয়র ক্রিকেটারদের এক জন। 

আরও পড়ুন: বিরাটের মধ্যে নিজেকে দেখতে পান স্টিভ ওয়

মাঠের মধ্যে এই দু’টি বৈঠক কোহালিকে নিয়ে জল্পনা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। তা হলে কি ভারত অধিনায়ক এখনও পুরোপুরি সুস্থ হননি। তা হলে কি তাঁর ডান কাঁধের ব্যথা সারেনি? তা হলে কি এখনও ব্যাট তুলতে অস্বস্তিই হচ্ছে তাঁর? পর্বতমালাকে ছাপিয়ে এখন প্রশ্নমালার ভিড় কোহালিকে ঘিরে। কোহালির ফিটনেস নিয়ে উদ্বেগ বাড়িয়ে অতিরিক্ত হিসেবে স্রেয়াস আয়ার-কে উড়িয়ে আনা হচ্ছে ধর্মশালায়।

এখনই বলা যাবে না, কোহালি চতুর্থ টেস্টে খেলছেন কি খেলছেন না। ভারতীয় শিবির থেকে অবশ্যি কেউ এ নিয়ে মুখ খুলতে চাইবেন না এখনই। কোহালিকে নিয়ে সামান্য অনিশ্চয়তার খবর জানাজানি হওয়া মানেই তো প্রতিপক্ষ বিরাট মনস্তাত্ত্বিক সুবিধে পেয়ে যাবে। তবে মাঠের মধ্যে দু’বার ফিজিওকে রেখে আলোচনা কীসের জন্য হচ্ছিল, সেই উদ্বেগজনক প্রশ্নও থাকছে। নিশ্চয়ই কোহালি, রাহানে, অশ্বিন এবং ফিজিও মিলে ধর্মশালার আবহাওয়া নিয়ে আলোচনা করছিলেন না!

রাঁচীতে ফিল্ডিং করার সময় বাউন্ডারি বাঁচাতে গিয়ে পড়ে গিয়ে ডান কাঁধে গুরুতর চোট পান বিরাট। তার পর গোটা দিন আর ফিল্ডিং করতে নামেননি। পরের দিন কাঁধে স্ট্র্যাপ লাগিয়ে ব্যাট করতে নামলেও সেই ইনিংসে রান করতে পারেননি। অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংসে অবশ্য পুরো সময় তিনি ফিল্ডিং করেছেন। তবে কাঁধ থেকে এখনও স্ট্র্যাপ খোলা হয়নি বলে সম্পূর্ণ সুস্থতা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

অধিনায়ক হিসেবে কোহালি স্বয়ং সম্পূর্ণ ফিট খেলোয়াড় খেলানোর পক্ষপাতী। আবার আইপিএলের সময় হাতের মারাত্মক চোট নিয়েও ব্যান্ডেজ লাগিয়ে সেঞ্চুরি করে ম্যাচ জিতিয়েছেন। ধর্মশালায় ফয়সালার টেস্টে তিনি কী করবেন, সেটাই বৃহস্পতিবার থেকে সেরা আকর্ষণ হয়ে দাঁড়াতে চলেছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন