প্রথাবিরুদ্ধ বোলিং অ্যাকশনের জন্যই শিরদাঁড়ার নীচের অংশে চোট পেতে পারেন ভারতীয় বোলার যশপ্রীত বুমরা। মত, অস্ট্রেলিয়ার ক্রীড়াবিজ্ঞানীদের। 

কার্যকর শারীরবিদ্যা, শক্তি প্রয়োগ ও তার যত্ন সংক্রান্ত বিজ্ঞান সম্পর্কে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ কথা জানিয়েছেন ভিক্টোরিয়ার ডিকিন বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়াবিজ্ঞানী ফেরোস ও ফিজিয়োথেরাপিস্ট জন গ্লস্টার। দু’জনেই বুমরার বোলিং অ্যাকশন খুঁটিয়ে দেখার পরে এই সিদ্ধান্তে এসেছেন। গোটা বিশ্বে তৃতীয় সেরা ক্রীড়া-বিজ্ঞান কেন্দ্র হিসেবে নাম রয়েছে ডিকিন বিশ্ববিদ্যালয়ের। এখানকার স্কুল অফ এক্সারসাইজ ও নিউট্রিশন সায়েন্স বিশ্বের অন্যতম সেরা বিভাগ। 

বুমরার বোলিং অ্যাকশন নিয়ে খুঁটিয়ে পড়াশোনার পরে ফেরোস বলছেন, ‘‘ফ্রন্ট ফুট লাইনের অনেক বাইরে থেকে হাত টেনে এনে বল ছাড়ে বুমরা। ডান হাতি ব্যাটসম্যানের কাছে যা ইনসুইং হয়ে দাঁড়ায়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে বাড়তি সুইং আদায় করার জন্য বুমরা শরীরকে ৪৫ ডিগ্রি হেলিয়ে বল ছাড়ে। আর এটা করতে গিয়েই মেরুদণ্ডের ‘লাম্বার’ অংশে চোট পাওয়ার সম্ভাবনা বাড়াচ্ছে বুমরা। মেরুদণ্ডের লাম্বার অংশ হল পাঁজর ও কোমরের মাঝের অংশ। যে অংশ তৈরি পাঁচটি ‘ভার্টিব্রা’ (কশেরুকা) নিয়ে।

সাম্প্রতিক কালে বুমরার বোলিং খুব ভাল ভাবে বিশ্লেষণ করেছেন ফেরোস ও গ্লস্টার। তাঁর ভিত্তিতেই ফেরোস বলছেন, ‘‘বল ছাড়ার সময় বুমরার কাঁধ ও কোমরের অবস্থান এমনিতে ঠিকঠাক থাকে। কিন্তু সমস্যাটা হয়ে দাঁড়ায় বুমরা যখন একের পর এক ইয়র্কার মারে।’’