• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে পরীক্ষা ওপেনারদের

টেস্টের আগে বিরাটদের প্রকৃতি অভিযান

India
চনমনে: হ্যামিল্টন থেকে কিছু দূরে ‘ব্লু স্প্রিংস’ ট্রেকিংয়ে বিরাট-অনুষ্কা। রয়েছেন সাইনি (বাঁ দিকে) ও শামি। ফেসবুক

Advertisement

টেস্ট সিরিজের আগে নিজেদের তরতাজা করে তুলতে প্রকৃতির কোলকে বেছে নিল ভারতীয় ক্রিকেট দল। বৃহস্পতিবার বিরাট কোহালিরা গেলেন হ্যামিল্টন থেকে প্রায় ৭০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত ব্লু স্প্রিংয়ে। যেখানে নদীর পাশ দিয়ে সাত-আট কিলোমিটার ‘ট্রেক’ করলেন কোহালিরা। ভারত অধিনায়কের সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী অনুষ্কা শর্মাও।

আজ, শুক্রবার থেকে নিউজ়িল্যান্ড একাদশের বিরুদ্ধে তিন দিনের একটা প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে নামছে ভারত।  যেখানে ঠিক হতে পারে পৃথ্বী শ না শুভমন গিল, কাকে ওপেন করানো হবে প্রথম টেস্টে। তার আগে প্রকৃতির সান্নিধ্যে এসে বাড়তি অক্সিজেন পেয়ে গেলেন ভারতীয় ক্রিকেটারেরা।

ভারতীয় বোর্ডের ওয়েবসাইটে পোস্ট করা একটি ভিডিয়োয় দেখানো হয়েছে এই প্রকৃতি-অভিযান। যে ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে মহম্মদ শামি দলের এক-এক জন ক্রিকেটারের কাছে গিয়ে জানতে চাইছেন, কী রকম লাগল ‘ব্লু স্প্রিংস ট্রেকিং’।

পৃথ্বী শ থেকে উমেশ যাদব, সবাই মনে করেন, নিজেদের তাজা করার জন্য এর চেয়ে ভাল রাস্তা আর কিছু হয় না। বাংলার ঋদ্ধিমান সাহা বলেছেন, ‘‘এই রকম প্রাকৃতিক দৃশ্য ভারতে খুব কমই দেখা যায়। অনেক দিন বাদে ৭-৮ কিলোমিটার হাঁটলাম। খুবই ভাল লাগছে।’’ শিলিগুড়ির ঋদ্ধি এও বলেছেন, ‘‘উত্তর ভারতের দিকটায় হয়তো এ রকম দৃশ্য কিছুটা দেখা যেতে পারে।’’ হ্যামিল্টন থেকে কিছুটা দূরে এই সিলভার স্প্রিংস প্রকৃতিপ্রেমীদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি জায়গা। কাচের মতো স্বচ্ছ নদীর জল। বলা হয়, এই নদী এবং এখানকার ঝরনার জল এতটাই পরিষ্কার যে, নিউজ়িল্যান্ডের ৭০ শতাংশ পানীয় জল এখান থেকেই আসে। নদীর পাশ দিয়েই হাঁটার রাস্তা। যে রাস্তায় হেঁটে এসে মুগ্ধ ভারতীয় ক্রিকেটারেরা।

ফেরার পথে টিম বাসে শামি গিয়ে এক-এক জনের কাছে তাঁদের অভিজ্ঞতার কথা জানতে চান। নবদীপ সাইনি বলছিলেন, ‘‘খুব শান্ত, নিরিবিলি একটা জায়গা। পাখির ডাক শোনা যাচ্ছিল। আমি প্রাকৃতিক দৃশ্য খুব ভালবাসি।’’ উমেশ যাদব মনে করেন, নতুন এনার্জি পেয়েছেন তাঁরা। এই ফাস্ট বোলারের কথায়, ‘‘৬-৭ কিলোমিটার হাঁটলাম আমরা। নিজেকে খুব তরতাজা মনে হচ্ছে।’’ ঋষভ পন্থের ধারণা, টেস্ট সিরিজের আগে এ রকম একটা অভিযান দরকার ছিল। ঋষভ বলেছেন, ‘‘টেস্ট সিরিজের আগে মানসিক ভাবে তরতাজা হওয়া গেল। সব কিছু মুছে আমরা আবার নতুন ভাবে শুরু করতে পারব।’’

এর মধ্যে একটা আক্ষেপ যাচ্ছে না চেতেশ্বর পূজারার। তিনি বলেছেন, ‘‘সব ভাল। শুধু দেখলাম, শামি বোলিং করল না এ দিন। ও আজ প্রচুর হেঁটেছে। বল করার সময়ও এত হাঁটে না!’’     

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন