• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নেমারদের মঞ্চে নায়ক হাল্যান্ড

Erling Braut Haland
অভিনব: ধ্যানেই উৎসব? গোল করে এমনই ভঙ্গি হাল্যান্ডের। এপি

ডর্টমুন্ড ২           •           পিএসজি ১

এখনও কিশোর নরওয়ের আর্লিং ব্রট হাল্যান্ড। তাঁর জোড়া গোলে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড নিজেদের মাঠ ইদুনা পার্কে মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ধরাশায়ী করল কিলিয়ান এমবাপেদের প্যারিস সাঁ জারমাঁকে। নেমার দা সিলভা স্যান্টোস জুনিয়র নিজে গোল করলেও দলকে জেতাতে ব্যর্থ। ম্যাচের পরে ক্ষোভ উগরে দিয়ে মন্তব্য করলেন, ‘‘টানা চার ম্যাচ মাঠের বাইরে থাকার পরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মত টুর্নামেন্টে খেলা কঠিন। আমি স্বেচ্ছায় বিশ্রামে ছিলাম না। এটা ক্লাব ও চিকিৎসকদের সিদ্ধান্ত যা আমার পছন্দ হয়নি। বিষয়টি নিয়ে ক্লাবে আলোচনা হয়েছে। খেলতেই চেয়েছিলাম। সুস্থও ছিলাম। কিন্তু ক্লাব ভয় পেল। তার ফল আমায় ভুগতে হল।’’

ম্যাচে নেমারদের ছাপিয়ে নায়ক হাল্যান্ড। যাঁর বাবা ম্যাঞ্চেস্টার সিটিতে খেলেছেন। অস্ট্রিয়ার রেড বুল ক্লাব থেকে এই মরসুমেই প্রায় ১৫৫ কোটি টাকায় তাঁকে কিনেছে ডর্টমুন্ড। প্রতিভা চিনতে ভুল করেননি জার্মান ক্লাবের কর্তারা। প্রায় সাড়ে ছ’ফুট উচ্চতার হাল্যান্ড নতুন ক্লাবে সাত ম্যাচে গোল করেছেন ১১। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে রেড বুলের হয়ে সাত ম্যাচে ১০ গোল করেছিলেন। ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের ম্যানেজার ওয়ে গুন্নার সোলসার চেয়েছিলেন, স্বদেশীয় প্রতিভাকে নিজের ক্লাবে নিতে। কিন্তু সোলসারকে কথা দিয়েও শেষ মুহূর্তে হাল্যান্ড বরুসিয়ায় খেলার সিদ্ধান্ত নেন। 

জোড়া গোল করে নায়ক ম্যাচের পরে বলেছেন, ‘‘এই ধরনের মুহূর্তের অপেক্ষাতেই ফুটবলটা খেলি। আজকের ম্যাচ দারুণ উপভোগ করলাম। কোয়ার্টার ফাইনালের স্বপ্ন দেখছি। কিন্তু তার জন্য প্যারিসে আরও ভাল খেলতে হবে। লড়াইটা কঠিন। কিন্তু আমরাও যথেষ্ট ভাল দল। এই ছন্দ ধরে রাখাই বড় দায়িত্ব।’’ হাল্যান্ডের পাশে ঢাকা পড়ে গেলেও নেমারের গোল আশা জিইয়ে রাখল পিএসজির। শেষ তিন বার প্যারিসের ক্লাব চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোয় বিদায় নিয়েছে। এ বার কী হয়, সেটাই দেখার।

আঙ্খেল দি মারিয়া, নেমার ও এমবাপের ত্রিভুজ আক্রমণ বারবার হোঁচট খেয়েছে বরুসিয়ার মাঝমাঠের জুটি অ্যাক্সেল উইটসেল ও এমরে জানের দৃঢ়তায়। কম যাননি বরুসিয়ার ১৯ বছর বয়সি অন্য প্রতিভা জ্যাডন সাঞ্চো। অবশ্য অসাধারণ প্রতিআক্রমণ থেকে তিনি সহজ সুযোগ নষ্ট করেন। দ্বিতীয়ার্ধে বরুসিয়ার ঝোড়ো আক্রমণে দিশেহারা অবস্থা হয় পিএসজি রক্ষণের। ৬৯ মিনিটে সুযোগসন্ধানী হাল্যান্ড ১-০ করেন। ৬ মিনিটেই এমবাপের ক্রস থেকে ১-১ করেন নেমার। বরুসিয়া জয়ের গোল পায় ৭৭ মিনিটে। এ বার বক্সের বাইরে থেকে অসাধারণ শটে ২-১ করেন নরওয়ের বিস্ময়-প্রতিভা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন