ভারত ‘এ’ এবং অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ব্যাটিং কোচ হিসেবে প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার বিক্রম রাঠৌরের নিয়োগ আটকে গেল।

রবিবার রাঠৌরের নতুন দায়িত্বে নিয়োগের কথা ঘোষিত হওয়ার পরেই বিতর্ক শুরু হয়। কারণ এই মুহূর্তে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অন্যতম নির্বাচক আশিস কপূর। যিনি আবার রাঠৌরের আত্মীয়। ফলে স্বার্থ সংঘাতের প্রশ্ন চলে আসে সামনে।

সোমবারই গোটা বিষয়টি কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্সের (সিওএ) নজরে আসে। সংবাদসংস্থাকে বোর্ডের এক আধিকারিক বলেছেন, ‘‘সিওএ রাঠৌরের নিয়োগ আপাতত স্থগিত রেখেছে। তবে এ দিনই তিনি লিখিত ভাবে আশিস কপূরের তাঁর সম্পর্কের বিষয়টি জানিয়েছেন। সিওএ প্রধান বিনোদ রাইও বাকিদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন।’’ ওই আধিকারিক আরও বলেছেন, ‘‘আলোচনায় যা ঠিক হয়েছে তাতে একমাত্র এথিক্স অফিসারই সিদ্ধান্ত নিতে পারেন রাঠৌর অনূর্ধ্ব-১৯ চতুর্দলীয় সিরিজে ব্যাটিং কোচের দায়িত্ব নিতে পারেন কি না।’’

কিন্তু ঘটনা হল, বোর্ডে এখন কোনও এথিক্স অফিসার নেই। তা হলে কে সিদ্ধান্ত নেবেন রাঠৌরের ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগের ক্ষেত্রে স্বার্থ সংঘাতের প্রশ্ন নেই? সিওএ-ও সেই জায়গাতে এসে অস্বস্তিতে পড়ে গিয়েছে। সেই কারণে রাঠৌরকে ব্যাটিং কোচ হিসেবে যুক্ত করা হচ্ছে, সেই নিয়োগপত্রে এখনও পর্যন্ত কেউ সই করেননি। তবে ওই আধিকারিক বলেছেন, ‘‘রাঠৌরকে ব্যাটিং কোচ হিসেবে চেয়েছিলেন রাহুল দ্রাবিড়। সেই সূত্রে ক্রিকেট অপারেশনস ম্যানেজার সাবা করিম যদি সম্মতি দেন, তা হলে রাঠৌর দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারেন।’’ তবে সোমবার পর্যন্ত ভারতীয় ‘এ’ এবং অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ব্যাটিং কোচ হিসেবে কাউকেই নিয়োগ করা হয়নি।