• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ভিএআর নিয়ে ফুটবলারদের সতর্ক করলেন স্পেন কোচ

Julen Lopetegui
য়ুলেন লোপেতেগি। ছবি: এএফপি।

স্পেনের কোচ য়ুলেন লোপেতেগি তাঁর ফুটবলারদের ভিডিয়ো অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর) নিয়ে সতর্ক করে দিলেন।

স্পেনের ফুটবল লিগে এখনও ‘ভিএআর’ আনা হয়নি। কিন্তু পর্তুগালে এই নতুন পদ্ধতির সফল ভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে। ঘটনাচক্রে রাশিয়া বিশ্বকাপে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোদের বিরুদ্ধেই প্রথম ম্যাচে খেলবে স্পেন। আর এই প্রথম বার ফুটবলের সব চেয়ে বড় প্রতিযোগিতাতেও মাঠে বিতর্কিত ঘটনার মীমাংসা করতে ভিডিয়ো প্রযুক্তির সাহায্য নেওয়া হবে।

সব কিছু ঠিকঠাক চললে পরের মরসুমে লা লিগাতেও ভিএআর আসছে। কিন্তু এ বারের স্পেন দলের বেশির ভাগ ফুটবলারেরই এ ব্যাপারে কোনও পূর্ব অভিজ্ঞতা নেই। যা যথেষ্ট উদ্বেগে রাখছে লোপেতেগিকে। রাশিয়ার ক্রাসনোদর শহরে তিউনিসিয়ার বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচে খেলতে নামার আগে স্পেনের কোচ বললেন, ‘‘নতুন পদ্ধতির সঙ্গে পর্তুগালের ফুটবলাররা পরিচিত। স্পেন নয়। ফুটবল ম্যাচে খেলা থামিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করার অভিজ্ঞতা আমাদের নেই। আমাদের দেখতে হবে অপেক্ষা করার জন্য খেলা থেকে মনটা যেন না সরে যায়। খেলা নতুন করে শুরুর জন্যও তৈরি থাকতে হবে। এই পদ্ধতিতে অনেক দল উপকৃত হয়েছে। উপকৃত হয়নি এমন উদাহরণও আছে।’’

‘ভিএআর’ ব্যাপারটা কী বুঝিয়ে দিতে স্পেনের রেফারি সংস্থার প্রেসিডেন্ট কার্লোস ভেলাসকো কার্ভালো ফুটবলারদের কার্যত ক্লাস নিয়েছেন। যা নিয়ে লোপেতেগির মন্তব্য, ‘‘ওঁনার বক্তব্য শুনে পুরো দলটাই উপকৃত হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে অনেক সংশয়ও কেটে গিয়েছে। এটা নিয়ে হইচই করার কিছু হয়নি। আমরা জানি, ইতিমধ্যেই ‘ভিএআর’ ব্যবহার করা হচ্ছে বিভিন্ন জায়গায়। ফুটবলে যা থেকেও যাবে।  আমদের এটি মেনে নিতে হবে। মানিয়েও নিতে হবে।’’

সাংবাদিক সম্মেলনে এসে লোপেতেগি আরও জানিয়েছেন, রিয়াল মাদ্রিদের ডিফেন্ডার দানি কার্ভাহাল দ্রুত সুস্থ হচ্ছেন। তাঁর মন্তব্য,  ‘‘আমাদের এখন ওর পাশে থাকতেই হবে। ধাপে ধাপে ও উন্নতি করছে। যে ভাবে উন্নতি করছে তাতেও আমরা খুশি। আমি নিশ্চিত, বিশ্বকাপের আগে ও পুরো সুস্থ হয়ে যাবে। প্রথম ম্যাচের আগে না হলেও দ্বিতীয় ম্যাচের আগে নিশ্চিত ভাবেই তৈরি হয়ে যাবে।’’ প্রসঙ্গত, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে কার্ভাহাল চোট পেয়ে মাঠ ছেড়েছিলেন।

এ দিকে স্পেনের এক সংবামাধ্যমের খবর, রাশিয়ায় কাপ জিতলে স্পেনের ফুটবলারদের ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৬ কোটি ৬০ লক্ষ টাকা দেওয়া হবে। ২০১০ সালের বিশ্বজয়ী স্পেনের ফুটবলাররা যা পেয়েছিলেন তার চেয়ে সংখ্যাটা অনেকটাই বেশি। আর এ বার কাপ জিতলে জার্মানি যা পাবে, ইনিয়েস্তারা পাবেন দ্বিগুণ বেশি। এমনকি এ বার বিশ্বকাপ জিতলে ব্রাজিল দলও এত টাকা পাবে না বলে শোনা যাচ্ছে।      

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন