মৃত্যুর সঙ্গে যে ভাবে লড়াই করে ফিরে এসেছে তাইল্যান্ডের খুদে ফুটবলাররা, তাতে মুগ্ধ বিশ্বকাপের তারকারাও। তাঁদের এক জন পল পোগবা, বেলজিয়ামকে হারিয়ে ফাইনালে উঠে টুইট করেছেন, ‘‘এই জয় উৎসর্গ করছি নায়কদের। তাইল্যান্ডের খুদে ফুটবলারদের। লড়াই করে ফিরেছ তোমরা। দারুণ সাহস আর শক্তি দেখিয়েছ।’’

পোগবা যেমন তাইল্যান্ডের খুদেদের নিয়ে মুগ্ধ, তেমনই ফ্রান্সের এই মিডফিল্ডারের প্রশংসা শোনা যাচ্ছে প্রাক্তন ফুটবলারদের মুখে। বিশ্বকাপে পোগবার খেলা দেখার পরে অ্যালান শিয়েরার মন্তব্য করেছেন, ‘‘ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে পোগবাকে অনেক ভয়ে ভয়ে খেলতে দেখি। যেটা কিন্তু ফ্রান্সের জার্সিতে দেখা যাচ্ছে না।’’ কেন এ রকম মনে হচ্ছে? ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ফুটবলার শিয়েরার বলেছেন, ‘‘দেশের হয়ে অনেক স্বাধীন ভাবে খেলতে পারছে পোগবা। ফ্রান্সের হয়ে কোনও ভুল করলে সেটা বাকিরা মেনে নিচ্ছে। কিন্তু ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে কোনও ভুল করলে পোগবাকে খুব ভীত দেখায়।’’

ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে যাঁর কোচিংয়ে খেলেন পোগবা, সেই জোসে মোরিনহো তাঁর খেলায় সন্তুষ্ট। পোগবার সঙ্গে মোরিনহোর সম্পর্কের রেখচিত্র মাঝে মাঝেই ওঠা নামা করেছে। এখানে অবশ্য মোরিনহোর গলায় উচ্ছ্বসিত প্রশংসারই সুর শোনা গিয়েছে। তিনি বলেছেন, ‘‘পোগবাকে অনেক পরিণত দেখিয়েছে। ওকে যে দায়িত্বটা দেওয়া হয়েছিল, সেটা ঠিকঠাক পালন করেছে।’’

আরও পড়ুন:  এমবাপে এক আতঙ্কের নাম, মত রিয়ো ফার্ডিনান্ডের